×
South Asian Languages:
উদ্ভাবনী, জানুয়ারী 2011
রাশিয়া ও ভারতের ব্যবসায় রাশিয়ার নেতৃত্বের কাছ থেকে যৌথ উদ্যোগের জন্য বড় সাহায্য পেতে চলেছে. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী সের্গেই ইভানভ, ভারতীয় ব্যবসায়ীদের এক প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাত্কারের সময়ে. "আমরা ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের কাছ থেকে নির্দিষ্ট বিষয়ে প্রকল্পের প্রস্তাব তৈরী করে পেশ করা দরকার বলে মনে করছি, যাতে সেগুলি বাস্তবায়িত করা সম্ভব হয়" – তিনি বলেছেন.
মস্কো শহরের মেয়র সের্গেই সবিয়ানিন আজ ভারতের আনন্দ শর্মার সঙ্গে দাভোস বিশ্ব অর্থনৈতিক অধিবেশনে যোগ দিতে এসে আলোচনা করেছেন. দুই পক্ষই উদ্ভাবনী প্রযুক্তি বিষয়ে পারস্পরিক সহযোগিতা নিয়ে কথা বলেছেন, তাছাড়া ফার্মাসিউটিক্যাল ও কৃষি জাত পণ্য বিষয়েও সহযোগিতা সম্বন্ধে আলোচনা হয়েছে – মস্কোতে মেয়রের তথ্য ও জনসংযোগ দপ্তর এই খবর দিয়েছে.
দেশে বিদেশী বিনিয়োগের বন্যা আনার জন্য রাশিয়ার প্রতিনিধি দলের দাভোস বিশ্ব অর্থনৈতিক অধিবেশনে যোগ দেওয়া সফল হতে পারে. এই ধারণা ইতার – তাস সংবাদ সংস্থাকে প্রকাশ করেছেন স্কোলকোভো শহরের আধুনিক প্রযুক্তি কেন্দ্রের আধুনিক প্রযুক্তি ও তার ব্যবসায়িক ব্যবহারের উন্নয়ন তহবিলের প্রধান ভিক্তর ভেক্সেলবের্গ.
রাশিয়া আফগানিস্তানে ফিরে আসছে. কিন্তু সামরিক শক্তি নিয়ে নয়, অর্থনীতি নিয়ে. আফগান নেতা হামিদ কারজাই ও রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভের মস্কো বৈঠকের এটাই প্রধান ফল.     মস্কোতে সরকারি সফর কারজাই এই প্রথমবার এসেছেন. উচ্চ পর্যায়ের এই সাক্ষাত্কার রুশ – আফগান সম্পর্কের এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা করল.
বৃহস্পতিবারে বৈকানুর উড়ান কেন্দ্র থেকে পাঠানো আবহাওয়া নির্ণয়ের উপগ্রহ ইলেক্ট্রো – এল কক্ষ পথে পৌঁছেছে. আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়া, সমুদ্র ও মহাসমুদ্রের জল ভান্ডারের অবস্থা, আয়নোস্ফিয়ার ও পৃথিবীর চৌম্বক ক্ষেত্রের অবস্থাও পর্যবেক্ষণ করা হবে এটির সাহায্যে. বিশ্বের সমস্ত অঞ্চলের ছবি তুলে পাঠাবে এই উপগ্রহ আলট্রা রেড ও সাধারন ছবি হিসাবে.
মস্কো শহরে আজ ইরানের আন্তর্জাতিক পারমানবিক শক্তি নিয়ন্ত্রণ সংস্থায় স্থায়ী প্রতিনিধি আলি আসগর সলতানিয়ে ঘোষণা করেছেন যে, ইরান এই কাজের সম্পূর্ণ অধিকার রাখে. তিনি বলেছেন - আমাদের দেশ শান্তিপূর্ণ পারমানবিক শক্তির বিকাশের কাজে উল্লেখ যোগ্য অগ্রগতি করত পেরেছে, আমরা এই কাজ কখনোই থামাবো না, তবে তেহরান আন্তর্জাতিক পারমানবিক শক্তি নিয়ন্ত্রণ সংস্থার সঙ্গে আরও সহযোগিতা করার জন্য তৈরী.
২০১৬ সালের মধ্যে নাসা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী পাইলট নিয়ন্ত্রিত মহাকাশ যান বানাতে পারে না. আমেরিকার কংগ্রেসের কাছে পেশ করা রিপোর্টে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রীয় মহাকাশ সংস্থা নাসা এই রকমের সিদ্ধান্ত জানিয়েছে. এর অর্থ হল আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে মালপত্র ও মহাকাশচারী পাঠানোর সমস্ত ভার পড়বে রাশিয়ার সইউজ মহাকাশ যানের উপরে.
আমেরিকার প্রভাবশালী অর্থনীতিবিদ জিম ও নিল, যিনি ব্রিক (ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চিন) সংক্ষিপ্ত শব্দ টির এক স্রষ্টা, তিনি এক নতুন উদ্যোগ নিয়েছেন. তিনি এই দ্রুত উন্নতিশীল বিশ্ব অর্থনীতির দেশ গুলির সঙ্গে যোগ করতে চেয়েছেন মেক্সিকো, দক্ষিণ কোরিয়া, তুরস্ক ও ইন্দোনেশিয়া দেশ কে. ব্রিক কে প্রসারিত করার ধারণা অনেক দিন হল রয়েছে.
ব্রিটেনের ইঞ্জিনিয়ারেরা সোমালির জলদস্যূদের ভয় দেখানোর জন্য নতুন ধরনের অস্ত্র আবিষ্কার করেছেন, এই অস্ত্রে কেউ মারা পড়বে না – এটা লেসার রশ্মি দাগা কামান. আপাততঃ পরীক্ষা করা হয়েছে সামরিক পরীক্ষার মাঠে ও নানা রকমের মাপ নেওয়ার যন্ত্রের উপরেই, মানুষের উপরে কোন পরীক্ষা করা হয় নি. সুতরাং বাস্তব অবস্থায় কতটা ফলদায়ক হবে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না.
এই বছরে রাশিয়া প্রায় পঞ্চাশটি মহাকাশ যানের উড়ানের আয়োজন করেছে. এপ্রিল মাসে বিশ্বে মহাকাশ বিজ্ঞান যুগের শুরু হওয়ার পঞ্চাশ বছরের জয়ন্তী পালিত হবে. ১৯৬১ সালের এপ্রিল মাসে বিশ্বে প্রথম মহাকাশ ভ্রমণ সম্পন্ন করেছিলেন ইউরি গাগারীন.     এই বছরে আমেরিকার জি পি এস প্রযুক্তির সঙ্গে প্রতিযোগিতার উপযুক্ত গ্লোনাসস উপগ্রহের মাধ্যমে দিক নির্ণয় ব্যবস্থা নিয়ে নতুন জাতীয় প্রযোজনা গৃহীত হবে.
রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অসামরিক পারমানবিক শক্তি বিষয়ে সহযোগিতার বৃদ্ধি করবে. এই জন্য নতুন সম্ভাবনার সৃষ্টি করেছে শান্তিপূর্ণ পরমাণু ক্ষেত্রে সদ্য কার্যকর হওয়া দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা চুক্তি. প্রসঙ্গতঃ এই সহযোগিতা ব্যবসায়ের ক্ষেত্রেই থাকা প্রয়োজন, তাতে রাজনৈতিক রঙ দেওয়ার কোন দরকার নেই বলে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ বিশ্বাস করেন.
"ঠাণ্ডা যুদ্ধের" যন্ত্র খুলে ফেলা রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ২০১১ সালের প্রধান সম্মিলিত কাজ. রেডিও রাশিয়া কে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে রুশ স্ট্র্যাটেজিক মূল্যায়ণ ইনস্টিটিউটের প্রধান সের্গেই অজ্নোবিশ্যেভ এ কথা বলেছেন. ২০১০ সালে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই লক্ষ্যে সম্মিলিত পদক্ষেপ নিয়েছে.
২০১০ সালে রাশিয়াতে শিল্পোত্পাদনের পরিমানে উন্নতি হতে চলেছে গত ২০০৯ সালের তুলনায় শতকরা সাড়ে আট ভাগ. কিছুটা কম হতে চলেছে জাতীয় সার্বিক উত্পাদন – প্রায় চার শতাংশ. এই ধরনের তথ্য থেকে বোঝা সম্ভব হয়েছে যে, দেশের অর্থনীতিতে ইতিবাচক গতি এসেছে ও বিনিয়োগ ব্যবস্থায় স্থিতিশীলতা রয়েছে.
মহাকাশে কক্ষ পথের সর্ব্বোচ্চ স্তরে ইউরি গাগারীনের প্রথম মহাকাশ যাত্রার জয়ন্তী পালন করা হতে চলেছে. তার জন্য ২৭ তম মহাকাশ স্টেশনের অভিযানের দল তৈরী হচ্ছে – আমেরিকার মেয়ে ক্যাথরিন কলমেন, ইতালির পাওলো নেসপলি ও মহাকাশ স্টেশনের দল নেতা রাশিয়ার দিমিত্রি কনদ্রাতিয়েভ ২০১১ সালের বেশীর ভাগ সময়ই মহাকাশে থাকবেন, এই বছর রাশিয়ার মহাকাশ গবেষণার বছর বলে ঘোষিত হয়েছে.
তিনটি মহাকাশ উতক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে এই যাত্রা শুরু হবে. এত বেশী পরিমানে রকেট পাঠানোর জন্য এই গুলির সমস্ত যন্ত্রাংশ ও উপগ্রহ নির্মাণের কাজ দ্রুত করতে হবে. পরিকল্পনা অনুযায়ী বৈকানুর আন্তর্জাতিক মহাকাশ উতক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে দশটি যাত্রা শুরু হবে, তার মধ্যে চারটি পাইলট সহ সইউজ টি এম এ ও ছয়টি মালবাহী যান প্রোগ্রেস এম থাকছে.
রাশিয়ার বিমান বাহিনী কে এই বিমান গুলি দেওয়া হবে বলে রবিবারে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সরকারি প্রতিনিধি জানিয়েছেন. তাঁর কথামতো এর
রাশিয়াতে হাইব্রিড মোটর যুক্ত তিনটি সবচেয়ে কম দামী গাড়ীর মডেল দেখানো হয়েছে. পাঁচটি দরজা সমেত হ্যাচ ব্যাক, ক্যুপে ক্রস ওভার ও একটি মালবাহী ছোট্ট গাড়ী আপাততঃ মডেল অবস্থায় দেখা গিয়েছে, কিন্তু আর দেড় বছর বাদেই তাদের বাণিজ্যিক উত্পাদন শুরু হয়ে যাবে, যাঁরা এই গাড়ীটি উদ্ভাবন করেছেন, তাঁরা বলেছেন যে, এই ধরনের গাড়ীর দাম দশ হাজার ডলারের বেশী হবে না.
এই নতুন বছরের একটি মনে রাখার মত তারিখ – প্রথম মানুষের মহাকাশ যাত্রা – ইউরি গাগারীনের ১২ এপ্রিল ১৯৬১ সালের প্রথম মহাকাশ ভ্রমণের পঞ্চাশ বছর. পৃথিবীর চারপাশে পাক খেয়ে আসা বীরের তখন বয়স ছিল ২৭ বছর. তাঁকে দেশে ও বিদেশে সবাই মনে রেখেছে এক অল্প বয়সী হাসিখুশী মানুষ হিসাবেই.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2011
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2011
4
6
8
9
10
11
13
15
16
17
22
23
24
25
26
27
29
30