×
South Asian Languages:
মার্কিন, 4 এপ্রিল 2011
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোরান পোড়ানো আফগানিস্তানকে বিস্ফোরিত করেছে. "আমেরিকা মুর্দাবাদ!", "ওবামা মুর্দাবাদ!" স্লোগান দিয়ে আমেরিকা বিরোধী মিছিল হয়েছে আফগানিস্তানের দশটি রাজ্যে. শুক্রবারে মাজারি শারীফে মিছিল শুরু হয়েছিল. সেখানে আমেরিকার কোন রাজদূতাবাস বা প্রতিনিধি দপ্তর নেই, তাই রাষ্ট্রসংঘের দপ্তরের উপরেই মিছিল আক্রমণ করেছিল. সাতজন কর্মী খুন হয়েছেন. আহতদের মধ্যে দপ্তরের প্রধান রাশিয়ার পাভেল এরশভ আছেন.
লিবিয়াতে যে আজ দুই সপ্তাহ ধরে বোমা বর্ষণ হয়ে চলেছে, তা পশ্চিমের জোটের মধ্যে সঙ্কটকে প্রকট করে তুলেছে. তাদের পক্ষে গাদ্দাফির প্রশাসনের যুদ্ধ করার ক্ষমতাকে দাবিয়ে দেওয়া সম্ভব হয় নি, যারা এখনও সমস্ত বিদ্রোহী যোদ্ধাদের দখল করা জায়গা থেকে তাড়িয়ে চলেছে.
আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি হামিদ কার্জাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসকে আহ্বান জানিয়েছেন কোরান পোড়ানো প্যাস্টরের নিন্দে করতে. এ প্ররোচনার ইতিমধ্যে নিন্দে করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা, তবে কার্জাই মনে করেন এটা যথেষ্ট নয়. মুসলমানদের পবিত্র গ্রন্থ পোড়ানোর প্ররোচনা আফগানিস্তানে আলোড়ন জাগিয়েছে. পয়লা এপ্রিল মাজারি-শরিফে ক্ষুব্ধ জনতা রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশনের ভবনে ঢুকে পড়ে এবং মার-ধোর করে ২০ জনকে, যাদের মধ্যে সাতজন ছিল কূটনীতিজ্ঞ.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আন্তর্জাতিক কোয়ালিশনে আরও একদিন থাকবে. ওয়াশিংটন ন্যাটো জোটের অনুরোধে বোমাবর্ষণে নিজের বিমান বাহিনীর অংশগ্রহণের মেয়াদ বাড়িয়েছে. পেন্টাগনে ব্যাখ্যা করা হয় যে, লিবিয়ায় খারাপ আবহাওয়ার জন্য জোট মার্কিনীদের অনুরোধ করে সোমবার অবধি জামাহিরির উপর বিমান আঘাত চালিয়ে যেতে. বিশেষজ্ঞরা উল্লেখ করছেন যে, কি ভাবে আবহাওয়া সামরিক অভিযানের গতিকে প্রভাবিত করে তা বোঝা গেল না.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
এপ্রিল 2011
ঘটনার সূচী
এপ্রিল 2011
2
3
9
10
12
13
14
16
17
23
24
27
28
30