×
South Asian Languages:
যৌথ নিরাপত্তা, জানুয়ারী 2013
ভারত তৈরী হচ্ছে বিশ্ব জোড়া জাহাজের উপরে নামা ওঠার উপযুক্ত ছশো কোটি ডলারেরও বেশী মূল্যের হেলিকপ্টার কেনার টেন্ডার ঘোষণার জন্য. ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম দেশের সামরিক নৌবাহিনীর উত্স থেকে পাওয়া খবর হিসাবে জানিয়েছে. রাশিয়া আপাততঃ এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার সম্বন্ধে কোন রকমের ঘোষণা করে নি, কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন: বিজয়ের সম্ভাবনা আমাদের আছে.
টিউনিশিয়ার সামরিক নেতৃত্ব ঠিক করেছে আলজিরিয়ার সঙ্গে সীমান্ত এলাকার খনিজ গ্যাস ও তেল উত্পাদন ক্ষেত্রে বাড়তি শক্তি প্রয়োগ করে নিরাপত্তা বৃদ্ধির, এই খবর দিয়েছে টিউনিশিয়ার সংবাদ সংস্থা. সংস্থার পক্ষ থেকে প্রতিনিধি যেমন উল্লেখ করেছেন যে, এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে যে কোন রকমের সন্ত্রাসবাদী কাজ রুখতে, যা টিউনিশিয়ার খনিজ তেল ও গ্যাস ক্ষেত্রের বিরুদ্ধে করা হতে পারে.
রবিবারে ভারতে এক মাঝারি পাল্লার রকেট কে – ৫ বঙ্গোপসাগরে অন্ধ্র প্রদেশের কাছে কোন এক অনুল্লিখিত জলের নীচের প্ল্যাটফর্ম থেকে উড়ান সফল ভাবে সম্পন্ন করা হয়েছে, এই ধরনের রকেট এক টন অবধি বোমা বয়ে নিয়ে যেতে পারে ও এই রকেট ৭০০ কিলোমিটার দূরের একটি লক্ষ্য ভেদ করতেও সক্ষম হয়েছে.
দ্বিতীয় আবদাল্লার এই বিশ্বাসের কারণ ব্যাখ্যা না করেই তিনি দাভোস শহরের বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামে বক্তৃতা দিতে গিয়ে বলেছেন যে, সিরিয়াকে ভেঙে টুকরো করে দেওয়ার জন্য যে কোন প্রচেষ্টাই সারা এলাকার জন্য একটা বিপর্যয়ে পরিণত হতে পারে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘ পাকিস্তানে, আফগানিস্তানে ও অন্যান্য দেশে আমেরিকার পাইলট বিহীণ বিমান থেকে হানা আঘাতের পরিনাম নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে. এই বিষয়ে রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষ তদন্ত সংক্রান্ত রিপোর্ট দিয়েছেন ব্রিটেনের রাজ পরিবারের অ্যাডভোকেট বেন এম্মেরসন এক প্রকাশিত প্রবন্ধে. তাঁর উপরে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বিশ্লেষণের দলের নেতৃত্ব দিয়ে তদন্ত করে দেখার ও হেমন্তে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভায় তার ফলাফল জানানোর.
ভারতীয় প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে রাশিয়া স্থিত ভারতীয় দূতাবাসে ভারতের সম্পূর্ণ মর্যাদা ও দায়িত্ব প্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত রেডিও রাশিয়ার সাংবাদিকা নাতালিয়া বেনিউখকে এক সাক্ষাত্কার দিয়েছেন. সাক্ষাত্কারটি দেওয়া হল.
১৯টি দেশের থেকে দায়িত্ব প্রাপ্ত ও সম্পূর্ণ মর্যাদার রাষ্ট্রদূতদের কাছ থেকে সেই সব রাষ্ট্রের নিয়োগ সংক্রান্ত সাক্ষ্য পত্র গ্রহণ অনুষ্ঠানে আজ ক্রেমলিনে রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন যে, রাশিয়া নিকটপ্রাচ্যে রাষ্ট্রসঙ্ঘের কেন্দ্রীয় ভূমিকায় থাকাকেই সমর্থন করে যাবে. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, সিরিয়ার বিরোধ প্রায় দুই বছর ধরে শান্ত হওয়ার কোন লক্ষণই দেখাচ্ছে না.
রাশিয়া বহু মেরু বিশিষ্ট বিশ্ব পরিস্থিতিতে নিজেদের অবস্থানকে এক প্রধান প্রভাব ও শক্তি কেন্দ্র হিসাবে মজবুত করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে. রাশিয়ার রাজনীতির এক গুরুত্বপূর্ণতম দিক হয়েছে প্রাক্তন সোভিয়েত দেশ এলাকার রাষ্ট্র সমূহের মধ্যে সমাকলনের কাজ আরও গভীরে করা. এই বিষয়ে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বাত্সরিক কাজকর্মের ফলাফল নিয়ে আয়োজিত এক বড় সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করেছেন রুশ পররাষ্ট্র প্রধান সের্গেই লাভরভ.
রাশিয়া ও ইরানের পুলিশ বাহিনীর প্রধানরা সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন বলে জানানো হয়েছে রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র দপ্তরের তথ্য কেন্দ্র থেকে. এই সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে ইরানে রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ভ্লাদিমির কলোকল্তসেভের সফরের সময়ে. এটি প্রথম চুক্তি, যেখানে দুই দেশের পুলিশ বাহিনীর মধ্যে অপরাধের মোকাবিলা নিয়ে কাঠামো ও পদ্ধতি সংক্রান্ত সহযোগিতার রূপরেখা নির্ণিত হয়েছে, বলে জানানো হয়েছে তথ্য কেন্দ্র থেকে.
রাশিয়া বেআইনি অভিবাসন নিয়ে লড়াই আরও কঠোর করছে. রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বেশ কিছু আইন প্রণয়নের প্রস্তাব করেছেন, যা দেশের অভিবাসন সংক্রান্ত আইন লঙ্ঘনের শাস্তি আরও বাড়িয়ে দেবে. প্রসঙ্গতঃ এই কারণে যেমন যারা অভিবাসী হতে চান তারা, তেমনই যারা বেআইনি অভিবাসনের ব্যবস্থা করেন, তাদেরও শাস্তি দেওয়া হবে.
বর্তমানের বিশ্বে রসদ আরও কমে আসছে. সুতরাং তার জন্য আর বিক্রীর বাজারের জন্য লড়াই আরও কঠোর হচ্ছে. সুতরাং ২০১৩ সালে প্রধান ক্রীড়নকদের পরস্পর বিরোধী অবস্থান আরও অনেকটাই তীক্ষ্ণ হতে চলেছে. আমাদের “দাবা ও রাজনীতি” নামের আলোচনা চক্রে পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্লেষণ করেছেন দুই রুশ বিখ্যাত দাবাড়ু.
আমেরিকার ‘ফরেন পলিসি’ পত্রিকার সাইটে প্রভাবশালী কনসাল্টিং গ্রুপ ‘ইউরো-এশিয়া’ পৃথিবীর সবচেয়ে প্রভাবশালী রাজনীতিবিদদের তালিকা প্রকাশ করেছে. প্রথম স্থানটি ফাঁকা রাখা হয়েছে, দ্বিতীয় স্থানে আছে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের নাম. তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন মার্কিনী কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের প্রধান বেন বের্নানকে. তার পেছনে স্থান পেয়েছেন জার্মানীর চ্যান্সেলর এ্যাঞ্জেলা মার্কেল ও মার্কিনী রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা.
‘সল্ট-২’ চুক্তির শেষকৃত্য জয়ন্তী ৩রা জানুয়ারী পূরণ হচ্ছে পারমানবিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক সবচেয়ে অভাগা সোভিয়েত-মার্কিনী চুক্তি স্বাক্ষরের ২০তম জয়ন্তী. ১৯৯৩ সালে মস্কোয় ঐ চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন তত্কালীন রাষ্ট্রপতিরা – বরিস ইয়েলেতসিন ও সিনিয়র জর্জ বুশ. ঐ চুক্তিতে লিপিবদ্ধ করা হয়েছিল মস্কো ও ওয়াশিংটনের পারমানবিক ওয়ার-হেডের সংখ্যা কমিয়ে তিন-সাড়ে তিন হাজার করার বাধ্যবাধকতা.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2013
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2013
1
2
4
5
7
8
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
26