×
South Asian Languages:
রাষ্ট্রসংঘ, জুন 2012
রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন এ আশা প্রকাশ করেন যে, সিরিয়া সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সাক্ষাত্, যা অনুষ্ঠিত হবে ৩০শে জুন, সঙ্কট মীমাংসার ক্ষেত্রে প্রচেষ্টায় “এক মোড়বদলের সময়” হবে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের সদর দপ্তরে সাংবাদিকদের সামনে বক্তৃতা দিয়ে বান কি মুন আবার তাঁর বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের দ্বারা প্রস্তাবিত সিরিয়ায় সঙ্ঘর্ষ মীমাংসার পরিকল্পনা সমর্থন করেছেন.
সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ বলেছেন যে, শুধু সিরিয়াবাসীরা নিজেরাই দেশে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার উপায় খুঁজে বার করতে পারে. ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে তিনি আরও বলেন যে, সন্ত্রাসবাদী দলগুলিকে ধ্বংস করতে তিনি বদ্ধপরিকর, যারা, তাঁর কথায়, সিরিয়ায় তত্পর রয়েছে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব লীগের বিশেষ দূত কোফি আন্নান প্রস্তাব করেছেন সিরিয়াতে নতুন জাতীয় ঐক্য মন্ত্রীসভা তৈরী করার. মন্ত্রীসভায় বর্তমানের ক্যাবিনেটের মন্ত্রীরা ছাড়াও বিরোধী পক্ষ ও অন্যান্য লোকরাও প্রবেশ করতে পারেন, জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কূটনীতিবিদ, যিনি কোফি আন্নানের নতুন পরিকল্পনার সঙ্গে পরিচিত.
রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের স্থিরবিশ্বাস যে, সিরিয়া সঙ্কটের মীমাংসায় ইরানের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা উচিত্ এবং তাই সিরিয়া সমস্যা সম্পর্কে জেনেভা সম্মেলনের ফলাফল তাকে জানাবে. এ সম্বন্ধে বুধবার জানিয়েছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের প্রতিনিধি মার্টিন নেসিরকি. তাঁর কথায়, আনন তেহেরানকে বিশদে জানাবেন সিরিয়া সম্পর্কে সম্মেলনের ফলাফল, যা ৩০শে জুন জেনেভায় অনুষ্ঠিত হবে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘে তেহেরানের প্রতিনিধি মোহাম্মেদ হাজাই বলেছেন যে, সিরিয়ায় আলাপ-আলোচনার প্রক্রিয়ায় ইরান মধ্যস্থতার সার্ভিস দিতে প্রস্তুত. বৃহস্পতিবার বৃটিশ টেলি ও রেডিও সম্প্রচার কর্পোরেশন “বি.বি.সি” জানিয়েছে যে, এ বিবৃতি দেওয়া হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের দ্বারা প্রস্তাবিত সিরিয়ায় পরিস্থিতি মীমাংসার পরিকল্পনা আলোচনার প্রাক্কালে.
সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের কমিশনের রিপোর্টে জঙ্গীদের দ্বারা সাধিত হিংসাত্মক ক্রিয়াকলাপের পরিসর পূর্ণভাবে প্রতিফলিত হয় নি. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মানবতাবাদী সহযোগিতা সংক্রান্ত বিভাগের ডিরেক্টর ভাসিলি নেবেনজিয়া, জেনেভায় রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানব অধিকার সংক্রান্ত পরিষদের ২০তম অধিবেশনে পেশ করা দলিল সম্বন্ধে মন্তব্য করে.
সিরিয়ায় রাষ্ট্রসঙ্ঘের পর্যবেক্ষকদের ম্যান্ডেট বাড়ানোর প্রশ্ন আলোচনা করতে হবে, মঙ্গলবার “ইন্টারফাক্স” সংবাদ এজেন্সিকে বলেছেন রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী গেন্নাদি গাতিলোভ. তাঁর কথায়, রাশিয়া রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশনের ম্যান্ডেট বাড়ানোর পক্ষে মত প্রকাশ করতে প্রস্তুত, কারণ তা উপকারী ভূমিকা পালন করছে এবং সিরিয়ায় স্থিতিশীলতা গড়ে তোলায় সাহায্য করতে সক্ষম.
জেনেভায় আগামী শনিবার সিরিয়াসংক্রান্ত সম্মেলনের অংশগ্রহণকারীদের এখনও নির্ধারণ করা হয় নি. এ সম্বন্ধে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন, গত মঙ্গলবার নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার পরামর্শ-বৈঠকের পরে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আনন সিরিয়া সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক সম্মেলনে আমন্ত্রণ করার প্রস্তাব করেছেন, যা ৩০শে জুন জেনেভায় আয়োজন করার পরিকল্পনা রয়েছে. এ সম্বন্ধে ওয়াশিংটনে কূটনৈতিক উত্স-কে উদ্ধৃত করে মঙ্গলবার জানিয়েছে “অ্যাসোশিয়েটেড প্রেস” সংবাদ এজেন্সি.
পশ্চিমী প্রচার মাধ্যমগুলি পশ্চিমী কূটনীতিজ্ঞদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘ সিরিয়ায় নিরস্ত্র পর্যবেক্ষকদের মিশন হ্রাস করার সম্ভাবনা আলোচনা করছে. পশ্চিমী কূটনীতিজ্ঞদের কথায়, রাষ্ট্রসঙ্ঘের পর্যবেক্ষক মিশনের সামরিক অংশ হ্রাস করা হতে পারে অথবা এমনকি বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে, এ দেশে হিংসা বৃদ্ধির জন্য. সিরিয়ায় থেকে যেতে পারে শুধু মিশনের বেসামরিক অংশ যোগাযোগ বজায় রাখার কাজের জন্য.
রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দমিত্রি মেদভেদেভ বিকাশের এমন মডেল প্রণয়ন করার আহ্বান জানিয়েছেন, যা প্রকৃতির উপর অতিরিক্ত চাপ ছাড়াই সমাজের সচ্ছলতা সুনিশ্চিত করতে পারে. এমন মডেলের প্রয়োজনীয়তা সম্বন্ধে মেদভেদেভ বলেছেন বৃহস্পতিবার রিও-দে-জেনিরোতে “রিও + ২০” নামে স্থিতিশীল বিকাশ সংক্রান্ত সম্মেলনে বক্তৃতা দিয়ে. তাঁর কথায়, “একদিকে অর্থনীতির স্বার্থ এবং অন্যদিকে প্রকৃতির সংরক্ষণ ভারসাম্যপূর্ণ হওয়া উচিত্.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন স্থিতিশীল বিকাশের কর্তব্য পালনে রাশিয়ার একনিষ্ঠতার গুরুত্বের কথা বলেছেন. বৃহস্পতিবার তিনি স্থিতিশীল বিকাশের লক্ষ্যের প্রতি উত্সর্গীত রাষ্ট্রসঙ্ঘের “রিও + ২০” সম্মেলনের কাঠামোতে রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দমিত্রি মেদভেদেভের সাক্ষাত্ করেন. বান কি মুন বলেন যে, এ সম্মেলনে মেদভেদেভের অংশগ্রহণ – “স্থিতিশীল বিকাশের লক্ষ্যের প্রতি রাশিয়ার অপরিবর্তনীয় প্রবণতার” একটি প্রমাণ.
একশোরও বেশি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ও প্রধানমন্ত্রীদের আগামী ২ দিনে রিও-দে-জেনেরোয় অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘের সম্মেলনে তথাকথিত ‘সবুজ অর্থনীতি’ তৈরি করার জন্য ঐক্যমতে পৌঁছাতে হবে. রুশী প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী দমিত্রি মেদভেদেভ. তিনি আজ পূর্ণাঙ্গ বৈঠকে ভাষন দেবেন. সম্মেলন চলাকালীন মেদভেদেভ ৫-৬টি দ্বিপাক্ষিক সাক্ষাত্কারে মিলিত হবেন, যার মধ্যে আছে বান কি মুন ও নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী ইয়েন্স স্টলটেনবার্গের সাথে সাক্ষাত্কার.
বিশ্বের নেতারা আলোচনা করছেন “সবুজ অর্থনীতি” নিয়ে. ব্রাজিলের রিও-দে-জেনেইরো শহরে রাষ্ট্রসঙ্ঘের পরিবেশ ও স্থিতিশীল উন্নয়ন “রিও+২০” শিখর সম্মেলন ২০ থেকে ২২শে জুন হবে. রাশিয়ার পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ অংশ নেবেন এখানে.
বুধবার “রিও প্লাস ২০” নামে রাষ্ট্রসঙ্ঘের যে শীর্ষ সম্মেলন শুরু হচ্ছে তার মনোযোগের কেন্দ্রস্থলে থাকবে অর্থনৈতিক বৃদ্ধির সাথে সঙ্গতি রেখে স্থিতিশীল বিকাশের সমস্যা, সামাজিক সমস্যার মীমাংসা এবং প্রতিবেশ সংরক্ষণের সমস্যা.রিও-দে-জেনিরো সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন শতাধিক দেশের রাষ্ট্র ও সরকারের নেতা, রাশিয়ার প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী দমিত্রি মেদভেদেভ.
সেই সব সমস্যা, যা জি ২০ গোষ্ঠীর শীর্ষ সম্মেলনে লক্ষ্য করা হয়েছে, তা নিয়ে রাশিয়ার সভাপতিত্বে “বড় কুড়ি” দেশের গোষ্ঠীতেও আলোচনা করা হবে.
মেক্সিকোর লস- কাবোস শহরে হওয়া “কুড়িটি” দেশের নেতাদের শীর্ষ সম্মেলনের পরে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বুধবারে (মস্কো সময়) নিজের অংশগ্রহণের মূল্যায়ন করেছেন. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি তাঁর বিশ্বাস সম্বন্ধে বলেছেন যে, ইউরো অঞ্চলে পরিস্থিতি ভালোর দিকেই যাবে.
আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক মিশন সিরিয়া থাকবে, তার নিরাপত্তার জন্য ঝুঁকি সত্ত্বেও, যার দরুণ আগে কাজ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছিল. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার বলেছেন মিশনের প্রধান, নরওয়ের জেনারেল রবার্ট মুড, রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের পরে. ১৬ই জুন জেনারেল মুড বিগত ১০ দিনে দেশে হিংসার মানের তীব্র বৃদ্ধি হওয়া উপলক্ষে মিশনের কাজ স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেন.
১৯শে জুন রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিরিয়ার পর্যবেক্ষক মিশনের প্রধান রবার্ট মুডের রিপোর্ট শুনবে, তার পরে এই দেশে কাজ কর্মের জন্য পরবর্তী পরিকল্পনা স্থির করবে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশন প্রথমবার নিজেদের কাজকর্ম নিয়ে এপ্রিল মাসের শেষে সিরিয়াতে তাদের কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে বিবরণ দেবে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
জুন 2012
ঘটনার সূচী
জুন 2012
2
10
11
16
23
24
25
30