×
South Asian Languages:
মহাকাশ, জানুয়ারী 2011
রাশিয়ার মালবাহী মহাকাশ যান প্রোগ্রেস তিন মাস আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে কাজ করার পরে নিজের সফর শেষ করেছে প্রশান্ত মহাসাগরের বুকে. আজ এই যানের ভগ্নাংশ ডুবে গিয়েছে এই কাজের জন্য বিশেষ ভাবে চিহ্নিত জায়গায় চার কিলোমিটার গভীরে. এই এলাকা রাশিয়ার মহাকাশ যানের অবশিষ্টাংশ ডুবিয়ে দেওয়ার জন্য সাধারন ভাবে আলাদা করা ও জাহাজ চলাচলের পথ থেকে অনেক দূরে.
বৃহস্পতিবারে বৈকানুর উড়ান কেন্দ্র থেকে পাঠানো আবহাওয়া নির্ণয়ের উপগ্রহ ইলেক্ট্রো – এল কক্ষ পথে পৌঁছেছে. আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়া, সমুদ্র ও মহাসমুদ্রের জল ভান্ডারের অবস্থা, আয়নোস্ফিয়ার ও পৃথিবীর চৌম্বক ক্ষেত্রের অবস্থাও পর্যবেক্ষণ করা হবে এটির সাহায্যে. বিশ্বের সমস্ত অঞ্চলের ছবি তুলে পাঠাবে এই উপগ্রহ আলট্রা রেড ও সাধারন ছবি হিসাবে.
২০১৬ সালের মধ্যে নাসা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী পাইলট নিয়ন্ত্রিত মহাকাশ যান বানাতে পারে না. আমেরিকার কংগ্রেসের কাছে পেশ করা রিপোর্টে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রীয় মহাকাশ সংস্থা নাসা এই রকমের সিদ্ধান্ত জানিয়েছে. এর অর্থ হল আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে মালপত্র ও মহাকাশচারী পাঠানোর সমস্ত ভার পড়বে রাশিয়ার সইউজ মহাকাশ যানের উপরে.
রাশিয়া পৃথিবীর প্রধান “মহাকাশ পরিবহণকারীর” ভূমিকা পালন করছে. ২০১০ সালে রাশিয়ার দ্বারা ক্ষেপণ করা মহাকাশ সরঞ্জামের প্রায় অর্ধেক করা হয়েছে বিদেশী ফরমাশদাতাদের স্বার্থে. আজ “রসকসমস” সংস্থার প্রেস-সার্ভিসে  জানানো হয়েছে যে, কক্ষপথে মহাকাশ সরঞ্জাম স্থাপনের সংখ্যার দিক থেকেও রাশিয়া অগ্রস্থান অধিকার করে আছে. তবে, তার প্রায় অর্ধেক (২০টি) অন্যান্য রাষ্ট্রের.
এই বছরে রাশিয়া প্রায় পঞ্চাশটি মহাকাশ যানের উড়ানের আয়োজন করেছে. এপ্রিল মাসে বিশ্বে মহাকাশ বিজ্ঞান যুগের শুরু হওয়ার পঞ্চাশ বছরের জয়ন্তী পালিত হবে. ১৯৬১ সালের এপ্রিল মাসে বিশ্বে প্রথম মহাকাশ ভ্রমণ সম্পন্ন করেছিলেন ইউরি গাগারীন.     এই বছরে আমেরিকার জি পি এস প্রযুক্তির সঙ্গে প্রতিযোগিতার উপযুক্ত গ্লোনাসস উপগ্রহের মাধ্যমে দিক নির্ণয় ব্যবস্থা নিয়ে নতুন জাতীয় প্রযোজনা গৃহীত হবে.
রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন মস্কোর উপকন্ঠে মহাকাশযাত্রা পরিচালনা কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন এবং সেখানে ইউরি গাগারিনের মহাকাশযাত্রার ৫০তম বার্ষিকী উদযাপনের প্রস্তুতি সংক্রান্ত সাংগঠনিক কমিটির বৈঠক পরিচালনা করবেন. প্রধান প্রধান অনুষ্ঠানের মধ্যে আছে গাগারিনের জন্মস্থানে এবং এ বিশিষ্ট ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্য জায়গায় মিউজিয়ামের নির্মাণ ও পুনর্গঠন, প্রদর্শনী ও উত্সবের আয়োজন, এভিয়েশন ও মহাকাশ প্রদর্শনীতে দ্রষ্টব্য বস্তু সাজানো ইত্যাদি.
মহাকাশে কক্ষ পথের সর্ব্বোচ্চ স্তরে ইউরি গাগারীনের প্রথম মহাকাশ যাত্রার জয়ন্তী পালন করা হতে চলেছে. তার জন্য ২৭ তম মহাকাশ স্টেশনের অভিযানের দল তৈরী হচ্ছে – আমেরিকার মেয়ে ক্যাথরিন কলমেন, ইতালির পাওলো নেসপলি ও মহাকাশ স্টেশনের দল নেতা রাশিয়ার দিমিত্রি কনদ্রাতিয়েভ ২০১১ সালের বেশীর ভাগ সময়ই মহাকাশে থাকবেন, এই বছর রাশিয়ার মহাকাশ গবেষণার বছর বলে ঘোষিত হয়েছে.
তিনটি মহাকাশ উতক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে এই যাত্রা শুরু হবে. এত বেশী পরিমানে রকেট পাঠানোর জন্য এই গুলির সমস্ত যন্ত্রাংশ ও উপগ্রহ নির্মাণের কাজ দ্রুত করতে হবে. পরিকল্পনা অনুযায়ী বৈকানুর আন্তর্জাতিক মহাকাশ উতক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে দশটি যাত্রা শুরু হবে, তার মধ্যে চারটি পাইলট সহ সইউজ টি এম এ ও ছয়টি মালবাহী যান প্রোগ্রেস এম থাকছে.
আন্তর্মহাদেশীয় ব্যালিস্টিক রকেটের পরীক্ষা করা হবে দশটি, এই মর্মে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক থেকে জানানো হয়েছে. নতুন ধরনের রকেট বানানোর জন্য এই পরীক্ষা করতে হবে বলে জানানো হয়েছে. ২০১০ সালে প্রতিরক্ষা বিভাগ পাঁচটি আন্তর্মহাদেশীয় রকেট পরীক্ষা করেছিল, তার মধ্যে দুটি তোপল আর এস ১২ এম রকেট ছিল. পরীক্ষা করে এই ধরনের রকেট গুলির প্রধান গুণাবলীর স্থিতিশীলতা লক্ষ্য করা হয়েছিল.
এই নতুন বছরের একটি মনে রাখার মত তারিখ – প্রথম মানুষের মহাকাশ যাত্রা – ইউরি গাগারীনের ১২ এপ্রিল ১৯৬১ সালের প্রথম মহাকাশ ভ্রমণের পঞ্চাশ বছর. পৃথিবীর চারপাশে পাক খেয়ে আসা বীরের তখন বয়স ছিল ২৭ বছর. তাঁকে দেশে ও বিদেশে সবাই মনে রেখেছে এক অল্প বয়সী হাসিখুশী মানুষ হিসাবেই.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2011
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2011
2
4
6
7
8
9
10
13
14
15
16
18
20
22
23
25
26
27
28
29
30
31