×
South Asian Languages:
কোরিয়া, জুলাই 2013
উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান কিম চেন ঈন বৃহস্পতিবার ১৯৫০-১৯৫৩ সালে কোরীয় যুদ্ধে নিহত কোরীয় গণ বাহিনীর যোদ্ধাদের স্মৃতি-সমাধিস্থলের পুনর্গঠন শেষ হওয়া উপলক্ষে সমারোহে অংশগ্রহণ করেন. দেশ মুক্তি যুদ্ধে বিজয়ের ৬০তম বার্ষিকীর প্রতি উত্সর্গীত এ সমারোহে আমন্ত্রণ করা হয়েছিল প্রাক্তন চীনা স্বেচ্ছাসেবীদের, যারা উত্তর কোরিয়ার পক্ষে লড়াই করেছিল. এ সমারোহে তাছাড়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে দুজন কোরীয় যুদ্ধের প্রবীণ যোদ্ধা উপস্থিত ছিলেন.
কিম চেন ঈনের ছোট বোন কয়েকদিন আগে এক দায়িত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় পদে বহাল হয়েছেন. দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ মাধ্যমে যেমন জানানো হয়েছে যে, ২৬ বছরের কিম ইও চ্ঝান রাষ্ট্রীয় প্রতিরক্ষা পরিষদের অনুষ্ঠান বিভাগের নেত্রী হয়েছেন. এই পদে তিনি সমস্ত রকমের অনুষ্ঠানের নেতৃত্ব দেবেন, যাতে কিম চেন ঈন নিজে অংশ নেবেন. এটা ঠিকই যে, এই খবরের প্রতি সাবধান হওয়া দরকার.
জাপানের কিয়োডো সংস্থা জানিয়েছে যে, লাওসে পালিয়ে আসা উত্তর কোরিয়ার নাগরিকরা, যাদের চিনের মাধ্যমে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে, তাদের মধ্যে ১৯৭৭ সালে জাপানের পশ্চিমে তোত্তোরি এলাকায় নিজের বাড়ী থেকে উত্তর কোরিয়ার গুপ্তচর বাহিনীর ধরে নিয়ে যাওয়া ২৯ বছরের মহিলা কিওকো মাতসুমোতোর ছেলে ছিল না ও সে নিজে পিয়ংইয়ং শহরে বাস করে, এই খবরেরও কোনও ভিত্তি নেই.
উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিনিধিরা আজ পরবর্তী পঞ্চম রাউন্ডের জটিল আলাপ-আলোচনা চালাচ্ছেন “কেসোন” শিল্পাঞ্চলের ভাগ্য নিয়ে. এই পঞ্চম সাক্ষাত্ আবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই শিল্প-নগরীতে, যা উত্তর কোরিয়ার ভূভাগে অবস্থিত. আগেকার আলাপ-আলোচনাগুলিতে যথেষ্ট অগ্রগতি অর্জন করা সম্ভব হয় নি.
বিশ্বব্যাপী শক্তির ভারসাম্য চীনের দিকে সরে যাচ্ছে, তার অর্থনৈতিক ক্ষমতা উর্ধগতিতে. অনেকে মনে করে যে, সময়ের সাথে চীন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যাবে পৃথিবীতে একমাত্র প্রধান অতি-শক্তি হিসেবে, বলা হয়েছে গ্লোবাল অ্যাটিচিউড প্রোজেক্টে. পিউ রিসার্চ সেন্টারের অধ্যয়ন প্রকাশিত হয় বৃহস্পতিবার. মত সংগ্রহ করা হয় মে মাসে ৩৯টি দেশে, প্রশ্ন করা হয় ৩৮ হাজার লোককে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার সাথে পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে মর্মহীন সংলাপ চালাতে চায় না, তবে বাস্তব আলাপ-আলোচনার জন্য প্রস্তুত, বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটনে বলেছেন মার্কিনী উপ-রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন. তাঁর কথায়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার সাথে সংলাপে প্রস্তুত, তবে পিয়ংইয়ং যদি প্রকৃত আলাপ-আলোচনায় প্রস্তুত থাকে এবং নিজের পারমাণবিক উচ্চাকাঙ্ক্ষা ত্যাগ করতে সম্মত হয়.
সিরিয়ার জনগন নিজেদের দেশের পরিস্থিতির দায়িত্বভার বহন করে. সিরিয়ার প্রশ্ন সমাধানে আন্তর্জাতিক আইনের নিয়মাবলী কোন রকমের ছাড় না দিয়েই পালন করা উচিত্. এই বিষয়ে “রেডিও রাশিয়াকে” দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাত্কারে ঘোষণা করেছেন সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার মুখ্য সচিব দিমিত্রি মেজেন্তসেভ.
স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী জিগফ্রিড হেকের ভিয়েনা শহরে পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা সর্বজনীন ভাবে নিষিদ্ধকরণ সংক্রান্ত এক সেমিনারে বক্তৃতা দিতে গিয়ে বলেছেন যে, তাঁর তিন বছর আগে এই দেশে যাওয়া ও সেখানে পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার উপযুক্ত বলে সন্দেহ হওয়া দুটি বিশেষ সুড়ঙ্গ দেখতে পাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি মনে করেন যে, উত্তর কোরিয়া এই ধরনের অস্ত্র পরীক্ষার জন্য সম্পূর্ণ ভাবেই তৈরী আছে.
সান-ফ্রানসিস্কোতে শনিবার দুর্ঘটনায় পড়া “বোইং-৭৭৭” বিমানের কর্মীদল প্রায় ১৫০ মিটার উচ্চতায় বুঝেছিল যে, বিমানটি উড়ছে খুবই নিচ দিয়ে, আর অবস্থা সংশোধনের চেষ্টা করেছিল. এ সম্বন্ধে জানিয়েছেন আমেরিকার যানবাহনে নিরাপত্তা সংক্রান্ত জাতীয় পরিষদের সভাপতি ডেবোরা হের্সমান. তাঁর কথায়, এ ঘটনা সংক্রান্ত এখনও বহু প্রশ্ন আছে, যা স্পষ্ট করে নিতে হবে.
কাজান শহরে ২৭তম বিশ্ব গ্রীষ্মকালীন ইউনিভার্সিয়াড প্রতিযোগিতায় মঙ্গলবার রাশিয়ার ছাত্র দল ২০টি স্বর্ণপদক জয় করে. রাশিয়ার ছেলে-মেয়েরা সাফল্য অর্জন করেছে হাঁটায়, সিনক্রোনিক সাঁতারে, জুডো-তে, জিমন্যাস্টিক্সে, অ্যাথলেটিক্সে এবং অন্যান্য প্রতিযোগিতায়. ফলে রাশিয়ার দল পদক জয়ের তালিকায় বিশ্বস্তভাবে অধিকার করে রয়েছে প্রথম স্থান ৩৯টি স্বর্ণপদক, ১৬টি রৌপ্যপদক এবং ২২টি ব্রোঞ্জ পদক পেয়ে.
কাজানে ২৭তম বিশ্ব গ্রীষ্মকালীন ইউনিভার্সিয়াডে পদক জয়ের দ্বিতীয় দিন ১২টি স্বর্ণপদক, সাতটি রৌপ্যপদক এবং সাতটি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছে. রাশিয়ার ক্রীড়াবিদরা সাফল্য প্রদর্শন করেছে অ্যাকাডেমিক রোইং, ডাইভিং, সিনক্রোনিক সাঁতার, জিমন্যাস্টিক, ফেন্সিং এবং ডিস্কাস থ্রো প্রতিযোগিতায়. মোট পদকের দিক থেকে রাশিয়াপ্রথম স্থানে রয়েছে ১৯টি স্বর্ণ, ৯টি রৌপ্য ও ১৫টি ব্রোঞ্জ পদক পেয়ে.
কাজানে ইউনিভার্সিয়াড-২০১৩ - ২৭তম গ্রীষ্মকালীন বিশ্ব ছাত্র ক্রীড়া প্রতিযোগিতার প্রথম পদক জয়ের দিনে রাশিয়ার ছাত্র দল জয় করেছে সাতটি স্বর্ণপদক, দুটি রৌপ্য পদক এবং আটটি ব্রোঞ্জ পদক. রাশিয়ার দলের প্রথম স্বর্ণপদক পেয়েছেন লন্ডন অলিম্পিকের রৌপ্য পদক বিজেতা ইয়েভগেনি কুজনেত্সভ – তিন মিটার উঁচু ট্রাম্পলিন থেকে ডাইভিংয়ে. জিমন্যাস্টিকে রাশিয়ার মেয়েদের দল জয়লাভ করেছে দলীয় প্রতিযোগিতায়. আলেক্সান্দর লেসনোই শট-পুটে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন.
সান-ফ্রানসিস্কো বিমানবন্দরে হার্ড ল্যান্ডিংয়ের সময় নিহত উভয় যাত্রীই চীনের নাগরিক, রবিবার জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার “এসিয়ানা এয়ারলাইনস” কোম্পানি. বিমান কোম্পানির একজন নেতৃস্থানীয় ব্যক্তির কথায়, যাত্রীরা বসেছিল বিমানের পিছনের অংশে, যা রানওয়ের সাথে ধাক্কায় খুবই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল. বিমান কোম্পানির তথ্য অনুযায়ী, দক্ষিণ কোরিয়া থেকে যাত্রা করা এ বিমানে ১৪১ জন চীনের নাগরিক ছিল.
      একটি বোয়িং ৭৭৭ সান-ফ্রান্সিসকো বিমান বন্দরে মুখ থুবড়ে পড়ায় ২ জন নিহত ও ১৮১ জন গুরুতর আহত হয়েছে. বিশ্বের অন্যতম সবচেয়ে নিরাপদ দূরপাল্লার বিমান বোয়িং ৭৭৭ শনিবার মুখ থুবড়ে পড়েছে সান-ফ্রান্সিসকো ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে. সেওল থেকে ওড়া ঐ বিমানের আরোহী ছিলেন ২৯১ জন যাত্রী ও ১৬ জন বিমানকর্মী.
উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রশাসন শনিবারে যৌথ উদ্যোগে গঠিত কেসন শিল্প ক্ষেত্রে কাজ আবার করে শুরু করা নিয়ে আলোচনা চালু করেছে বলে দক্ষিণ কোরিয়ার সংস্থা ইওনহাপ জানিয়েছে. গত বৃহস্পতিবারে গণ প্রজাতান্ত্রিক কোরিয়ার প্রশাসন দক্ষিণের প্রতিবেশীদের প্রস্তাব গ্রহণ করেছে ও আলোচনা চালু করেছে এই এলাকায় আবার করে যৌথ উদ্যোগে কাজ শুরু হওয়া নিয়ে.
রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইগর মর্গুলোভ শুক্রবার সাংবাদিকদের কোরিয়া উপদ্বীপে পরিস্থিতির মীমাংসা নিয়ে রাশিয়া ও উত্তর কোরিয়ার স্থিতিতে মতভেদের বিদ্যমানতার কথা বলেছেন. তাঁর কথায়, পক্ষদ্বয় “পরস্পরের পক্ষে গ্রহণযোগ্য মীমাংসা খুঁজে বার করার উদ্দেশ্যে ছয়পাক্ষিক প্রক্রিয়ার সমস্ত শরিকের সাথে সক্রিয়, একনিষ্ঠ কাজ চালিয়ে যেতে” চায়.
৪ঠা জুলাই আলোচনা প্রক্রিয়া নতুন করে শুরু করা নিয়ে বৈঠক করবেন ইগর মার্গুলভ তাঁর উত্তর কোরিয়ার সহকর্মীর সঙ্গে. মঙ্গলবারে তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, রাশিয়া সব সময়েই পরম্পরা মেনে এই ছয় পক্ষের মধ্যস্থতাকারী পরিষদের আলোচনার পক্ষে কথা বলে থাকে, কারণ মনে করে যে, এটাই কোরিয়া উপদ্বীপ এলাকাকে পরমাণু অস্ত্র মুক্ত করার একমাত্র পথ.
যথন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তালিবদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে চাইছে, তখন ভারত নিজেদের তালিবদের সঙ্গে "কোন সংস্পর্শ নয় নীতি" থেকে সরে এসেছে বলে বোঝা গিয়েছে, যখন ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রী সলমন খুরশিদ মঙ্গলবারে বলেছেন যে, "নয়াদিল্লী সমস্ত আফগান সমাজের লোকদের মধ্যেই আলোচনাকে সমর্থন করে, আর তার মধ্যে সশস্ত্র জঙ্গীরাও রয়েছে ও সেই অর্থে তালিবরাও".
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জুলাই 2013
ঘটনার সূচী
জুলাই 2013
1
2
4
12
13
14
15
16
17
20
21
23
26
27
28
29
30
31