×
South Asian Languages:
কোরিয়া, জুন 2012
আজ, শুক্রবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিন কোরিয়া ইতিহাসে সবচেয়ে তীব্র গোলাগুলি চালানোর অনুশীলন শুরু করেছে উত্তর কোরিয়ার সীমান্তের কাছে. দক্ষিন কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, যে এই অনুশীলন ১৯৫০-৫৩ সালের কোরিয়া গৃহযুদ্ধের ৬২ তম জয়ন্তীর প্রতি উত্সর্গীকৃত. ২ হাজারেরও বেশি সেনা সেখানে যোগ দিযেছে, সেখানে আছে ফাইটার এফ-১৫কে, দূরত্ব থেকে লক্ষ্য নির্দ্ধারণকারী বিমান ই-৭৩৭, আক্রমণকারী টি.
শুক্রবার উত্তর কোরিয়ার সীমান্তের কাছে দক্ষিণ কোরিয়া আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ত্বিপাক্ষিক সামরিক সহযেগিতার ইতিহাসে বৃহত্তম সামরিক মহড়া অনুষ্ঠিত হবে. সোমবার সরকারী উত্স উদ্ধৃত করে এই বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে. মহড়ায় অংশ নেবে ২ হাজারের বেশি সৈনিক, এফ-১৫কে জঙ্গী বিমান, আপাচে হেলিকপ্টার, ট্যাঙ্ক. মহড়ায় যুদ্ধ প্রশিক্ষণমূলক সামরিক গোলাবর্যের অনুশীলন করা হবে.
আজকের দিনের দুনিয়ায় একেবারেই সমস্ত কিছু ভাল নয়. বিশ্বের অর্থনীতির ব্যবস্থা স্থিতিশীল নয়, সশস্ত্র বিরোধ চলছে, রাষ্ট্র গুলির মধ্যে রাজনৈতিক মত পার্থক্য পার হওয়া থেকে অনেক দূরে. এখনকার সবচেয়ে বেদনা দায়ক প্রশ্ন গুলির উত্তর খুঁজতে বিশ্বের বড় কুড়িটি দেশের নেতারা ১৮- ১৯শে জুন মেক্সিকোর লস- কাবোস জি ২০ শীর্ষবৈঠকে কাজ করবেন. এটা জি ২০ কাঠামোর মধ্যে সর্ব্বোচ্চ পর্যায়ে সপ্তম বৈঠক.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া উত্তর কোরিয়ার কাছে গৃহীত আন্তর্জাতিক বাধ্যবাধকতা পালন করার এবং অঞ্চলে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করা প্ররোচনা ত্যাগ করার দাবি করেছে. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটনে অনুষ্ঠিত দু দেশের কূটনৈতিক ও প্রতিরক্ষা বিভাগের প্রধানদের সাক্ষাতের ফলাফল সংক্রান্ত যৌথ বিবৃতিতে.
উত্তর কোরিয়ার রকেট কর্মসূচিতে চীনের সম্ভাব্য অংশগ্রহণ সম্বন্ধে প্রাপ্ত তথ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন. এ সম্বন্ধে মার্কিনী রাজধানীতে এক ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন মার্কিনী পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া নুল্যান্ড. তিনি খুঁটিনাটি জানাতে অস্বীকার করেছেন এ যুক্তি দেখিয়ে যে, কথা হচ্ছে গোপন গোয়েন্দা তথ্যের.
     রাশিয়া ও চিনের স্ট্র্যাটেজিক ভাবে সহকর্মী হিসাবে কাজ একটি অভূতপূর্ব উচ্চতায় পৌঁছেছে, আর দুই দেশের সম্পর্ক সমস্ত ক্ষেত্রেই তৈরী করা হচ্ছে এক পারস্পরিক ভাবে লাভজনক ভিত্তিতে ও সেই ক্ষেত্রে খুবই উচ্চ পর্যায়ের ভরসা ও খোলামেলা ভাব রয়েছে, বেজিং সফরে গিয়ে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন এই কথা বলেছেন.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
জুন 2012
ঘটনার সূচী
জুন 2012
1
2
3
4
5
7
8
9
10
11
12
13
16
17
19
20
21
23
24
25
26
27
28
29
30