×
South Asian Languages:
খরা - দুর্যোগ, জুলাই 2010
মস্কো শহরে গত দশ দিনের বেশী সময় ধরে তাপমাত্রা একের পর এক রেকর্ড ভাঙছে. অস্বাভাবিক গরম ও খরা এই বারের গরমে যা হচ্ছে, তা ২০৭০ সালে হয়ত স্বাভাবিক বলে মনে হতে পারে. এই রকম একটা ভবিষ্যদ্বাণী করে বসেছেন বিশ্ব বন্য প্রকৃতি ফান্ডের রাশিয়ার আবহাওয়া প্রোগ্রামের প্রধান আলেক্সেই ককোরিন.
রাশিয়ার ইউরোপীয় অংশ দাবানলে আক্রান্ত. আগুনে পাঁচ জন নিহত, তাঁদের মধ্যে একজন দমকল কর্মী. এই বছরে হাস্য কৌতুকের উর্দ্ধে ওঠা আগুনের বহ্নি শিখাতে ক্ষতির এটিই প্রাথমিক তথ্য.     প্রাকৃতিক অগ্নিকাণ্ড, বিশেষ করে শুকনো পচা পাতার মন্ড ও দাবানলে ধ্বংস হওয়ার বিষয়টি রাশিয়ার জন্য সত্যিকারের একটা বিপর্যয়ে পরিনত হয়েছে.
আর্কটিক অঞ্চলে আগষ্ট মাসে অস্বাভাবিক গরমের জন্য রেকর্ড পরিমান জায়গায় বরফ গলে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে. এই রকম একটা পূর্ব্বাভাষ দিয়েছেন রাশিয়ার জল বায়ু বিভাগের বিশেষজ্ঞরা. এই পূর্ব্বাভাষ দেওয়ার ভিত্তি জুন মাসের ঐতিহাসিক ভাবে বিরল বরফ গলে যাওয়ার গতি. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বরফ ও তুষার তথ্য কেন্দ্রের বিশেষজ্ঞরাও এই ধরনেরই মত প্রকাশ করেছেন.
গত ১৩০ বছরের ইতিহাসে এই রকম কখনও হয় নি. গত দশ দিনে পাঁচটি তাপমাত্রার আগের রেকর্ড ভেঙেছে. ১৯২০ সালের পর মাস হিসাবেও একেবারে উষ্ণ তম মাস. এখন তাপমাত্রা ৩৬, ৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস. শনিবার সন্ধ্যায় মস্কোর কিছু জায়গায়, তভের ও ভ্লাদিমির অঞ্চলে ঝড় বৃষ্টি ও জোরালো হাওয়াতে গরম কিছুটা কমে ছিল.
প্রধান মন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন গ্যারান্টি দিয়েছেন যে, দেশের সম্ভাব্য ফসলের প্রায় এক পঞ্চমাংশ খরার ফলে নষ্ট হলেও রাশিয়া গত বছরের ফসল থেকে জমানো গম ভান্ডারে থাকার জন্য দেশের আভ্যন্তরীন প্রয়োজন সম্পূর্ণ ভাবে মেটাতে সক্ষম হবে.   দেশের কৃষি জাত পণ্য উত্পাদকদের জন্য বাজেটে কৃষকদের ভরতুকির জন্য অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে.
দেশের সম্ভাব্য ফসলের প্রায় এক পঞ্চমাংশ খরার ফলে নষ্ট হলেও রাশিয়া গত বছরের ফসল থেকে জমানো ২৪ মিলিয়ন টন গম ভান্ডারে থাকার জন্য দেশের আভ্যন্তরীন প্রয়োজন সম্পূর্ণ ভাবে মেটাতে সক্ষম হবে বলে ঘোষণা করেছেন দেশের লোকসভার নিম্ন কক্ষের পরিচালক ও ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া দলের উচ্চ সভার প্রধান বরিস গ্রীজলভ. দেশের কৃষি জাত পণ্য উত্পাদকদের জন্য বাজেটে অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে.
প্রায় এক মাস হতে চলল আবহাওয়ার পূর্ব্বাভাষ শোনাচ্ছে যেন রেহাই পাওয়ার উপযুক্ত ঠাণ্ডা কে কোন সুযোগ না দিয়ে নিষ্ঠুর আদালতের রায়ের মতো. ইউরোপে এবারের গরম সমস্ত ধারণা যোগ্য রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে. মস্কো শহর এখন সত্যিকারের বিষুবরেখার কাছের শহরের মতো, তাপমাত্রা তিরিশ ডিগ্রী সেলসিয়াসের বহু উপরে, আবার বলা হয়েছে, এটাই শেষ নয়.
রাশিয়ার কৃষি মন্ত্রী এলেনা স্ক্রীণনিক জানিয়েছেন যে, অস্বাভাবিক গরমে ও খরায় এই বছরে দেশে ১০ মিলিয়ন হেক্টর সম্ভাব্য ফসলের জমি নষ্ট হয়েছে. তিনি উল্লেখ করেছেন যে, খরার কারণে দেশের ২৩টি অঞ্চলে ইতিমধ্যেই জরুরী অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে. পশু পালনের ক্ষেত্রেও ৭ মিলিয়ন টন পশুর খাদ্য কম পড়েছে বলে মন্ত্রী বলেছেন.
রাশিয়া ও পশ্চিম ইউরোপে অস্বাভাবিক গরম, দক্ষিণ আমেরিকায় অসম্ভব ঠাণ্ডা, চীনে প্রবল বন্যা, আর্কটিক অঞ্চলে হিমবাহ দ্রুত গলে যাওয়া – এবারের গরমে প্রকৃতি মানব সমাজের সামনে কম অস্বাভাবিক বিস্ময়ের ঘটনা উপস্থিত করে নি.
দেশের কুড়িটিরও বেশী অঞ্চলে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে. এই অঞ্চল গুলির মধ্যে চির শীতল পূর্ব্ব সাইবেরিয়ার ইয়াকুতিয়া অঞ্চলও রয়েছে, সেখানেও তাপমাত্রা তিরিশ ডিগ্রী সেলসিয়াস পার করেছে!!!! গরমের হাত থেকে বাঁচতে এই অঞ্চলের লোকেরা ইয়াকুতস্ক শহর থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরের " বুলুস " হিমবাহের দিকে রওয়ানা হয়েছে, যেখানে বরফ সব থেকে গরম দিনেও পুরো গলে যায় না.
গত চার সপ্তাহ ধরে রাশিয়াতে এক অস্বাভাবিক গরম পড়েছে, রাজধানীর কাছে এত গরম যে, তা আফ্রিকার বা ইউরোপের পর্যটন কেন্দ্র গুলির থেকে বেশী. শহর গুলিতে অ্যাসফাল্ট রাস্তায় গলে যাচ্ছে, পাখা, ঠাণ্ডা পানীয়, আইস ক্রীম ও এয়ার কণ্ডিশনার বিক্রী বেড়ে গিয়েছে কয়েক গুণ. বিশ্বের বাজারে গমের দাম বেড়ে গিয়েছে.
আজ মস্কোতে গত একশ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশী গরম পড়তে পারে – আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা আজ বলেছেন ৩৬ ' ডিগ্রী সেলসিয়াস গরম হতে পারে. শনিবারে রাজধানীতে নতুন সবচেয়ে বেশী তাপমাত্রা ৩৫ ' ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল. গরমের জন্য ফিলি মেট্রো লাইনে রেল চলাচল কিছু সময়ের জন্য ব্যাহত হয়েছিল, হাই ভোল্টেজ কনট্যাক্ট গরমের চোটে বেঁকে গিয়েছিল.
রাশিয়াতে খরা, স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহ, ইউরোপ ও এশিয়ার অন্যান্য দেশেরও একই হাল সারা বিশ্বেরই সবচেয়ে বড় কাঁচা মালের শেয়ার বাজারে গুলিতে গত দুই সপ্তাহে দানা শষ্যের দাম প্রায় শতকরা ২০ শতাংশ বেড়েছে. কানাডায় পড়ছে অবিরত বৃষ্টি আর রাশিয়া ও কাজাখস্থানে খরা এই দাম বাড়ার কারণ.     প্রধান উত্পাদক দেশ গুলিতে ফসল হবে কম তাই দাম বাড়ছে.
রাশিয়াতে খরা, স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহ, ইউরোপ ও এশিয়ার অন্যান্য দেশেরও একই হাল সারা বিশ্বেরই খাদ্য নিরাপত্তা বিষয় কে বিপন্ন করেছে. বিশ্বের সবচেয়ে বড় কাঁচা মালের শেয়ার বাজারে গত দুই সপ্তাহে দানা শষ্যের দাম প্রায় শতকরা ২০ শতাংশ বেড়েছে. আপাততঃ বিশ্লেষক দের ভবিষ্যদ্বাণী পরিস্থিতির কোন গুণগত পরিবর্তনের কথা বলছে না : দানা শষ্যের দাম পুরো ঋতুতেই খালি বাড়বে.
রাষ্ট্রপতির আবহাওয়া উপদেষ্টা আলেকজান্ডার বেরদিতস্কি এই খবর দিয়েছেন. রাশিয়ার ইউরোপীয় অংশের কেন্দ্রের ১৪টি অঞ্চলে ভীষণ গরম পড়েছে. খরায় ৯ মিলিয়ন হেক্টর জমির ফসল জ্বলে গেছে. কৃষকেরা বলছেন যে, খরার করণে তাঁরা ঋণ শোধ করতে সক্ষম হবেন না. মস্কোতেও বৃষ্টি না হয়ে গরম চলছে. প্রধান অনাময় চিকিত্সক গেন্নাদি অনিশেঙ্কো বলেছেন কয়েকটি দক্ষিণের দেশের মতই রাশিয়াতে দুপুরের পর বিশ্রামের ব্যবস্থা করতে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জুলাই 2010
ঘটনার সূচী
জুলাই 2010
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
16
17
19
20
21
26
28
29