×
South Asian Languages:
বন্যা - ঝড়, নভেম্বর 2012
আমাদের জগতের সঙ্গে আজ থেকে একশ বছর পরে কি হতে চলেছে, অথবা হয়তো তারও আগে? বৈজ্ঞানিক ও সাধারন মানুষরা এই প্রশ্নই আজ বেশী করে করতে শুরু করেছেন. সমগ্র দেশ ও মহাদেশের জন্যই আজ বন্যা, ঘূর্ণিঝড়, খরা সত্যিকারের যমদূত হয়ে দাঁড়িয়েছে.
এ শতাব্দীর শেষ নাগাদ পৃথিবীতে তাপমাত্রা ৪ ডিগ্রি বাড়তে পারে. এ পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে বিশ্ব ব্যাঙ্কের দ্বারা প্রকাশিত রিপোর্টে. গবেষকদের মূল্যায়ন অনুযায়ী, এ তাপমাত্রা বৃদ্ধি “সমস্ত অঞ্চলকেই প্রভাবিত করবে”, ঝড়, বন্যা ও অনাবৃষ্টির বৃদ্ধির সম্ভাবনা তীব্র ভাবে বাড়বে. উপরন্তু সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে গরীব দেশগুলি. তবুও রিপোর্টের রচয়িতারা মনে করেন যে, ঘটনা বিকাশের এ ধরণের চিত্রনাট্য অবশ্যম্ভাবী নয়.
স্যাণ্ডি ঘূর্ণিঝড় থেকে বিপর্যস্ত সাধারন মানুষদের ত্রাণের জন্য ২৭ টন সামগ্রী নিয়ে একটি বিমান উড়ে গিয়েছে মস্কো উপকণ্ঠের বিমানঘাঁটি থেকে, আরও একটি বিমানে করে মোট ৫০ টন মাল পাঠানো হবে. গত মঙ্গলবারে আমেরিকার পূর্ব উপকূলে আছড়ে পড়া এই ঝড় থেকে কম করে হলেও ১২০ জন প্রাণ হারিয়েছেন. নিউ জার্সি ও নিউ ইয়র্ক শহরেই সবচেয়ে বেশী ক্ষতি হয়েছে.
নিউ-ইয়র্ক ও নিউ-জার্সি বিমানবন্দরে তুষার-পাতের জন্য প্রায় দেড় হাজার বিমান-যাত্রা বাতিল করা হয়েছে. সেখানে “নোসিস্টার” ঝড়ের দরুণ আবার ব্যাহত হয়েছে বিদ্যুত্ সরবরাহ. বিদ্যুত্-রহিত অবস্থায় রয়েছে প্রায় পাঁচ লক্ষ লোক. এক দিনেরও কম সময়ে তিন মাসের মানের সমান তুষার-পাত হয়েছে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে “স্যাণ্ডি” ঘুর্ণিঝড়ে নিহতদের সংখ্যা ১২০ জনে পৌঁছেছে, বুধবার জানিয়েছে “রয়টার” সংবাদ এজেন্সি. এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি লোক মারা গিয়েছে নিউ-ইয়র্ক রাজ্যে – ৪৯ জন. এই “স্যাণ্ডি” ঝড় আগে তাণ্ডব চালিয়েছে ক্যারিবিয়ান দেশগুলিতে, অক্টোবরের শেষে তা পৌঁছোয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পুবদিকের রাজ্যগুলিতে. এ ঝড়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে নিউ-জার্সি এবং নিউ-ইয়র্ক রাজ্যে.
ভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকায় গত কয়েক দিন ধরে টানা ভারী বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট বন্যায় কমপক্ষে ২২ জন প্রাণ হারিয়েছেন. স্থানীয় প্রশাসনের বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা ইএএনএস সোমবার এ খবর জানিয়েছে. গত সপ্তাহে ভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকায় আঘাত হানে সামুদ্রিক ঝড় নিলম. এতে সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয় অন্ধ্র প্রদেশের উপকূলীয় এলাকা.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে উত্তর পূর্বে খুবই কড়া ঠাণ্ডা পড়েছে, এখান দিয়েই তাণ্ডব করে গিয়েছিল স্যাণ্ডি. এখন রাতের তাপমাত্রা প্রায় শূণ্য ছুঁইছুঁই, রবিবারে ইন্টারফ্যাক্স সংস্থা এই খবর দিয়েছে. পরিস্থিতি এই এলাকায় জ্বালানী ও বিদ্যুতের অভাবে জটিল হয়েছে. সত্যই এবারে ঠাণ্ডা লাগছে – এই কথা সাংবাদিকদের বলেছেন নিউইয়র্কের মেয়র মাইকেল ব্লুমবের্গ.
ঘূর্ণিঝড় স্যান্ডিতে যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০৬ জনে দাঁড়িয়েছে. মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন আজ শনিবার এ খবর জানিয়েছে. এর আগে নিহতের সংখ্যা ৯৭ জন বলে ঘোষণা করা হয়েছিল. মঙ্গলবার রাতে দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকায় প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় আঘাতহানে. নিউইয়র্ক ও নিউ জার্সি রাজ্যের বাসিন্দারা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়. বর্তমানে সেখানে বিদ্যুত সংযোগ পুনঃস্থাপনের কাজ এগিয়ে চলছে.
নিউ-ইয়র্কের মেয়র মাইকেল ব্লুমবার্গ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বারাক ওবামাকে সমর্থন করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন. এর কারণ হিসেবে তিনি আবহাওয়ার পরিবর্তনের সাথে সংগ্রামে বর্তমান রাষ্ট্রনেতার অবদানের কথা উল্লেখ করেন. ব্লুমবার্গের সিদ্ধান্তকে বিশেষ করে প্রভাবিত করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে মঙ্গলবার দেখা দেওয়া ধ্বংসাত্মক “স্যাণ্ডি” ঘুর্ণিঝড়ের পরিণতির উত্তরে ওবামার কার্যকলাপ.
স্থানীয় পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত খবর অনুযায়ী, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে “স্যাণ্ডি” ঘুর্ণিঝড়ে নিহতদের সংখ্যা ছিল ৯৭ জন, শুক্রবার জানিয়েছে “রয়টার” সংবাদ এজেন্সি. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে এ ধ্বংসাত্মক ঘুর্ণিঝড় এসেছিল মঙ্গলবার রাতে. সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে নিউ-ইয়র্ক শহর ও রাজ্য.
রাশিয়ার বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয়ের বিমান মানবতাবাদী সাহায্যের জিনিসপত্র নিয়ে বুধবার রওনা হয়েছে কিউবায়, যা স্যাণ্ডি ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে. এ বিমানে রয়েছে নির্মাণের জিনিসপত্র, কিউবাবাসীদের ধ্বংস হওয়া বাড়ি-ঘর পুনর্স্থাপনের জন্য. মালপত্রের মোট ওজন ৩২ টন. সাহায্য পাঠানো হয়েছে কিউবার পক্ষের অনুরোধ অনুযায়ী. রাশিয়ার বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয় কিউবার প্রয়োজন অনুযায়ী অন্যান্য মানবতাবাদী সাহায্য পাঠাতেও প্রস্তুত.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলের কাছে “স্যাণ্ডি” ঝড়ে নিহতদের সংখ্যা ৭২ জন, বৃহস্পতিবার জানিয়েছে “ফক্স নিউজ” টেলি-চ্যানেল. ঝড়ের জন্য বিদ্যুত্ সরবরাহ থেকে বঞ্চিত হয়েছে ৮০ লক্ষ লোক. বিদ্যুত্ ক্ষেত্রের কর্মীদের কথায়, বিদ্যুত্ সরবরাহ পুনর্স্থাপনে অন্ততপক্ষে এক সপ্তাহ লাগবে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2012
4
6
8
10
11
12
13
15
16
17
18
20
22
23
24
25
26
27
28
29
30