×
South Asian Languages:
পারমানবিক, নভেম্বর 2011
সিরিয়া আরব দেশ গুলির লীগের পর্যবেক্ষক দলকে দেশে আসতে অনুমতি দিয়েছে, যাদের মধ্যে থাকছে মানবাধিকার রক্ষা পরিষদের কর্মী প্রতিনিধিরা, সামরিক বাহিনীর লোকেরা আর সাংবাদিকেরা. এই প্রসঙ্গে দামাস্কাসের বিরুদ্ধে আরব লীগের পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞার হুমকি আগের মতোই দেওয়া হচ্ছে.
    আগামী সফরে আন্তর্জাতিক পারমানবিক শক্তি কমিশনের উপ-প্রধান জেরম্যান নাকের্টস দক্ষিণ কোরিয়ার পারমানবিক বিদ্যুতকেন্দ্রগুলির নিরাপত্তা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখবেন. পররাষ্ট্রমন্ত্রকের সূত্র ধরে দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ মাধ্যমগুলি এই খবর দিয়ে্ছে. নাগের্টস, যিনি ইরানের পারমানবিক কেন্দ্র গুলির আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক কমিশনের প্রধান, রবিবার দক্ষিণ কোরিয়ায় পৌঁছাবেন. পররাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, যে তিনি ৬ দিন ঐদেশে থাকবেন. সফরকালে তিনি কয়েকটি পারমানবিক বিদ্যুতকেন্দ্র পরিদর্শন করবেন.
ইউরোপে রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নির্মাণ করার মার্কিনী পরিকল্পনার কড়া সমালোচনা করেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ. মেদভেদেভ ক্ষমতায় থাকাকালীন এই প্রথম রাশিয়ার সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করার সম্প্রসারিত নক্সা প্রদর্শন করা হয়েছে.     প্রথমতঃ প্রতিরক্ষামন্ত্রককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যে অনতিবিলম্বে কালিনিনগ্রাদে রেডার ষ্টেশন স্থাপণ করার, যা রকেটের আক্রমণ সম্মন্ধে সতর্ক করে দিতে পারবে.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ ইউরোপে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো জোটের রকেট বিরোধী ব্যবস্থা তৈরীর উত্তর হিসাবে যে সমস্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে তার সম্বন্ধে বলেছেন. প্রথম পদক্ষেপ হবে অবিলম্বে কালিনিনগ্রাদের রেডিও নির্ণয় ব্যবস্থায় সামরিক অংশ জোড়া হবে, যা রকেট আঘাত সম্বন্ধে পূর্বাভাস দিতে সক্ষম.
রাশিয়া রকেট বিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সম্পর্কে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সংলাপ চালিয়ে যেতে প্রস্তুত, এই কথা বুধবার বলেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ. তবে, মস্কোর পরবর্তী পদক্ষেপ নির্ভর করবে বাস্তব ঘটনা পরম্পরার উপরেই.
রাশিয়া রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সম্পর্কেমার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সংলাপ চালিয়ে যেতে প্রস্তুত, বুধবার বলেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ. তবে, মস্কোর পরবর্তী পদক্ষেপ নির্ভর করবে বাস্তব ঘটনা বিকাসের উপর. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বিষয়ে চুক্তির অবিদ্যমানতায় রাশিয়া নিরস্ত্রীকরণ এবং অস্ত্রসজ্জার নিয়ন্ত্রণে পরবর্তী পদক্ষেপ প্রত্যাখান করার নিজের অধিকার বজায় রাখবে, জোর দিয়ে বলেন রাষ্ট্রপতি.
ইরানের বিরুদ্ধে নতুন মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে রাশিয়া বলেছে গ্রহণযোগ্য নয় ও আন্তর্জাতিক আইন বিরুদ্ধ. রুশ প্রজাতন্ত্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের ঘোষণাতে বলা হয়েছে যে, তেহরানের উপরে এই ভাবে চাপ বাড়িয়ে অস্ত্র প্রসার রোধের সমস্যা সমাধানের কাঠামোর বাইরেই যাওয়া হচ্ছে.      সোমবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই প্রথম ইরানের খনিজ তেল ও রসায়ন শিল্পের বিরুদ্ধে একতরফা নিষেধাজ্ঞা জারী করেছে.
নিকট প্রাচ্যে বরফ গলতে শুরু করেছে, এই ভাবেই রুশ বিশেষজ্ঞরা আঞ্চলিক ভাবে পারমানবিক অস্ত্র শূণ্য হওয়ার জন্য প্রথম সম্মেলনের মূল্যায়ণ করেছেন. ২১- ২২ নভেম্বর এই সম্মেলন হচ্ছে আন্তর্জাতিক পারমানবিক শক্তি নিয়ন্ত্রণ সংস্থার সদর দপ্তর ভিয়েনা শহরে, উদ্যোক্তা সংস্থার প্রধান ইউকিও আমানো. এই ধরনের সম্মেলনের সিদ্ধান্ত এখন থেকে ১১ বছর আগে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভা.
চলতি বছরের মার্চ মাসে জাপানের ফুকুসিমা পারমানিক বিদ্যুত কেন্দ্র ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার পর বিদেশি পর্যটকরা পুনরায় ফুকুসিমা ভ্রমনে এসেছেন।পর্যটকদের বহনকারী
ইরানের পরমানু কর্মসূচিকে আরও স্বচ্চাতা করার অংশ হিসেবে জাতিসংঘের পরমাণু শক্তি সংস্থা (আইএইএ)গতকাল শুক্রবার একটি প্রস্তাব পাস করেছে।ইরানের
পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ পূর্ব এশিয়ার সমিতির ষষ্ঠ শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নেবেন, যা ১৯শে নভেম্বর ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে হবে. গত বছরে এই মর্মে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল যে, রাশিয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে পূর্ব এশিয়া সমিতির সম্পূর্ণ শরিক হবে.     ২০০৫ সালে পূর্ব এশিয়া সমিতি ব্যবস্থা তৈরী করা হয়েছিল দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশ গুলির সংগঠনের উদ্যোগে.
আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সির পরিচালক পরিষদ, আশা করা হচ্ছে যে, শুক্রবার ইরান সংক্রান্ত খসড়া সিদ্ধান্ত ভোটদানের জন্য পেশ করবে. তাতে আবার তেহেরানের কাছে আহ্বান জানানো হয়েছে ঐ দেশের পারমাণবিক প্রকল্পে এজেন্সির বিশেষজ্ঞদের ঢুকতে দেওয়ার. দলিলের রচয়িতারা ইরানকে তাছাড়া আহ্বান জানাচ্ছে পারমাণবিক অস্ত্র প্রসার নিরোধের চুক্তি এবং রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের তত্সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত থেকে উদ্ভূত বাধ্যবাধকতা সম্পূর্ণভাবে পালন করার.
আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সির পরিচালক পরিষদের বৈঠক হবে ১৭-১৮ই নভেম্বর ভিয়েনায়. তার অংশগ্রহণকারীরা ইরানের পারমাণবিক সমস্যা আলোচনা করবেন. এ সম্বন্ধে "রিয়া নোভস্তি" সংবাদ এজেন্সিকে জানানো হয়েছে আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সির প্রেস-সার্ভিসে. এ প্রশ্ন ছাড়া বৈঠকের আলোচ্য সূচিতে আছে – পারমাণবিক ক্ষেত্রে উত্তর কোরিয়া এবং সিরিয়ার কার্যকলাপের আলোচনা.
১৭ – ১৮ই নভেম্বর ভিয়েনাতে আন্তর্জাতিক পারমানবিক শক্তি সংস্থার পরিচালকদের সভা বসছে. এই সভার আলোচ্য বিষয়ে মধ্যে – ইরান থেকে উদ্ভূত পারমানবিক বিপদ সম্পর্কে সংস্থার প্রধান ইউকিও আমানো প্রকাশিত রিপোর্ট, যাতে জোর দিয়ে বলা হয়েছে যে, ইরান গণহত্যার উপযুক্ত অস্ত্র তৈরী করছে.
রাশিয়ার সামরিক বিশেষজ্ঞরা ইউরোপীয় রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা যে রাশিয়ার দিকে নির্দেসিত নয় সে সম্পর্কে বিস্বস্ত হতে পারেন, তবে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিধানিক গ্যারান্টি দিতে পারে না. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাজনৈতিক প্রশ্নে মার্কিনী পররাষ্ট্র সচিবের নতুন সহকারিনী ওয়েন্ডি শেরমান রাশিয়ার “কমেরসান্ত” পত্রিকাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে.
জাপানের পারমানবিক বিদ্যুত উত্পাদন কেন্দ্র ফুকুসিমাতে বিপর্যয়ের পরে বিশ্বের শক্তি ভারসাম্যে পারমানবিক শক্তি ক্ষেত্রের দ্রুত পতন সংক্রান্ত নৈরাশ্যবাদী পূর্বাভাস স্বত্ত্বেও এই শিল্প ক্ষেত্র প্রভূত উন্নতির অপেক্ষায় রয়েছে. আন্তর্জাতিক শক্তি সংস্থার রিপোর্টে এই ধরনের সিদ্ধান্ত প্রকাশিত হয়েছে. বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.
অস্ট্রেলিয়ার কর্তৃপক্ষ ভারতকে ইউরেনিয়াম বিক্রির ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে নিজের স্থিতি বদলাতে এবং এ সরবরাহ পুনরারম্ভের প্রশ্ন বিবেচনা করতে প্রস্তুত. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার বলেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী জুলিয়া গিল্লার্ড. অস্ট্রেলিয়ার সরকার প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনা সমর্থন করেছে. সরকারের বৈঠকের ফলাফল সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে যে, ভারত আন্তর্জাতিক চুক্তি লঙ্ঘনকারী পারমাণবিক অস্ত্রাধিকারী দেশ নয়, লিখেছে “দ্য অস্ট্রেলিয়ান” পত্রিকা.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ঠিক করেছে চিনকে সামরিক ভাবে বেঁধে রাখার চেষ্টা করতে. রুশ বিশেষজ্ঞরা পেন্টাগনে চিনের বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া করার বিশেষ দপ্তর খোলাকে এই ভাবেই দেখছেন. এই দপ্তরের লক্ষ্য – চিনের উপরে সমুদ্র ও আকাশ পথে আঘাত হানার পরিকল্পনা করা, মহাকাশে ও সাইবার ক্ষেত্রে আঘাত করা ও চিনের উপগ্রহ বিরোধী ও যুদ্ধ জাহাজ বিরোধী রকেট আটকে দেওয়া.
রাশিয়া মনে করে ইরানের বিরুদ্ধে বাধানিষেধের ব্যবস্থা বিফল হয়েছে, সমস্যাটি কূটনৈতিক পথে “মধ্যস্থ ছয়দেশের” কাঠামোতে মীমাংসা করা উচিত. এ সম্বন্ধে সোমবার সাংবাদিকদের বলেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ. তিনি উল্লেখ করেন যে, নিরাপত্তা পরিষদের ধারায় সব কিছুই করা হয়েছে, যাকে ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচির সাথে সম্পর্কিত বলা যেতে পারে, আর এটাই ছিল বাধানিষেধের চাপ দেওয়ার উদ্দেশ্য.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2011
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2011
2
4
5
6
7
13
20
26
27
28
29