×
South Asian Languages:
পারমানবিক, মে 2011
ইস্রাইল এ সম্ভাবনা বাদ দেয় না যে, ইরানের পারমাণবিক সমস্যা মীমাংসার জন্য ঐ দেশের পারমাণবিক প্রকল্পগুলির উপর প্রতিষেধমূলক আঘাত হানার প্রয়োজন হবে. এ সম্বন্ধে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন ইস্রাইলের উপ-প্রধানমন্ত্রী মোশে ইয়ালোন. তিনি ইরানের শাসন ব্যবস্থার তরফ থেকে বিপদের কথা জোর দিয়ে বলেন.
২০২২ সাল নাগাদ পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি সম্পূর্ণভাবে ত্যাগ করা সম্পর্কে জার্মানির সিদ্ধান্ত ফ্রান্স শ্রদ্ধা করে, তবে এ পথ অনুসরণের অভিপ্রায় তার নেই. ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী ফ্রাঁসুয়া ফিওন বলেন যে, কর্তৃপক্ষ “শান্তিপূর্ণ পরমাণুর” সাথে সমান্তরালভাবে “নির্মল” শক্তির উত্স বিকাশ করায় সাহায্য করে যাবে. ফ্রান্স ইউরোপে বিদ্যুত্শক্তির বৃহত্তম উত্পাদক ও সরবরাহকারী.
রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সংক্রান্ত রাশিয়ার সামরিক আলাপ-আলোচনাকারীরা সক্রিয় প্রচেষ্টা চালাচ্ছে, যাতে ৮ই জুন রাশিয়া-ন্যাটো পরিষদের দেশগুলির প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের সাক্ষাতে গ্রহণের জন্য সুনির্দিষ্ট দলিল পেশ করা যায়. এ সম্বন্ধে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন ন্যাটো জোটে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি দমিত্রি রগোজিন.
জাপানের বিপুল সংখ্যাধিক্য অধিবাসী “ফুকুসিমা-১” পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে দুর্ঘটনা সম্বন্ধে সরকারের খবরে বিশ্বাস করে না. জনমত সংগ্রহের ফলাফলের উদ্ধৃতি দিয়ে এ সম্বন্ধে সোমবার জানিয়েছে “ফুজি” টেলি-চ্যানেল. জনমত দেখিয়েছে যে, ৮১ শতাংশ জাপানী পারমাণবিক বিপর্যয় সংক্রান্ত কর্তৃপক্ষের খবরের প্রতি আস্থা প্রকাশ করে না.
ফেডারেল জার্মানির সরকার ২০২২ সাল নাগাদ দেশের সমস্ত পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রের ব্যবহার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে. এ সম্বন্ধে সোমবার জানিয়েছে জার্মানির প্রতিবেশ সংক্রান্ত মন্ত্রণালয়. ২০২২ সালের মধ্যে সরকার শক্তির বিকল্প উত্স ব্যবহার প্রসারের পরিকল্পনা করছে. দেশে বিদ্যুত্শক্তি সরবরাহের প্রয়োজনীয় লাইন তৈরি করা হবে. এইভাবে, জার্মানি পারমাণবিক শক্তি ব্যবহার করতে অস্বীকার করা প্রথম শিল্পোন্নত দেশ হয়ে উঠেছে.
রাশিয়া চায় যে, লিবিয়া এক স্বাধীন, স্বতন্ত্র, সার্বভৌম একক রাষ্ট্র হিসাবেই থাকুক. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন দোভিলে "বড় আট" দেশের শীর্ষ বৈঠকের পরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ. রাশিয়ার নেতা বলেছেন যে, এই আট দেশের নেতাদের সঙ্গে আলোচনার সময়ে লিবিয়ার সমস্যা সম্বন্ধে তিনি রাশিয়ার তরফ থেকে "মধ্যস্থতা" করার প্রস্তাব করেছেন.
পারমানবিক নিরাপত্তা, নিকট প্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকার পরিস্থিতি, বিশ্ব অর্থনীতির উন্নতি ও বহুপাক্ষিক বাণিজ্য, পরিবেশ সংরক্ষণ এবং উদ্ভাবনী প্রযুক্তি. এই রকমের অসম্পূর্ণ তালিকা হল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নগুলির, যা বড় আট দেশের নেতারা তাঁদের ঐতিহ্য অনুযায়ী চলে আসা বৈঠকে করতে চলেছেন. এবারে তা হচ্ছে ফ্রান্সের দোভিল শহরে.
পাকিস্তানের করাচী শহরের কাছে নৌবাহিনীর বিমান ঘাঁটি 'মেহরান' আক্রমণে এই কথাই প্রমাণিত হয় যে, সন্ত্রাসবাদীরা এই দেশে ও দেশের বাইরে বহুল প্রসারিত ও বিপজ্জনক সব অপারেশন করার জন্য মতলব করছে. "আমরা খুবই মনোযোগ দিয়ে পরিস্থিতিকে লক্ষ্যে রেখেছি এবং সমস্ত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাই নিচ্ছি. আমাদের সমস্ত বাহিনীই তৈরী রয়েছে নিয়মিত ভাবে", এই কথা বলেছেন ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আরাক্কাপারামবিল এন্টনি.
ইরান নিম্ন-পরিশোধিত ইউরেনিয়াম উত্পাদনের পরিমাণ বাড়াচ্ছে. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে ভিয়েনায় প্রচারিত আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সির রিপোর্টে. এ থেকে স্পষ্ট হচ্ছে যে, ইরানের ইউরেনিয়ামের সঞ্চয় ৪.১ টনের মতো. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোসঙ্ঘের দেশগুলি তেহেরানকে সন্দেহ করছে পারমাণবিক অস্ত্র সৃষ্টির প্রচেষ্টার. সোমবার ইউরোসঙ্ঘ ইরানের বিরুদ্ধে বাধানিষেধ কটোর করেছে.
পারমানবিক নিরাপত্তা, নিকট প্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা অঞ্চলের উন্নতি – এই বিষয় গুলিকেই অর্থনৈতিক ভাবে "আটটি বড়" দেশের শীর্ষবৈঠকে অংশগ্রহণকারীরা নাম দিয়েছেন মুখ্য বলে. বৃহস্পতিবারে ফ্রান্সের দোভিল শহরে এই সব দেশের ও প্রশাসনের নেতৃত্বের বৈঠক শুরু হতে চলেছে.
রাশিয়া, আফগানিস্থান, অর্থনৈতিক এলাকা, আরব, ভারত, ইন্টারনেট, মাওবাদী, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, বিমান, মেদভেদেভ, ইরান, সন্ত্রাস, রুশ- মার্কিন, পারমানবিক, মহাকাশ, পরিবেশ, ইউরোপীয় সংঘ, ধর্ম, রাষ্ট্রসংঘ, যৌথ নিরাপত্তা, ইরাক, মার্কিন, আধুনিকীকরণ, বিজ্ঞান, সম্মেলন, বিতর্কিত অঞ্চল, ন্যাটো জোট, আফ্রিকা, জাপান, রাশিয়ার ইরানের পারমানবিক পরিকল্পনা সম্বন্ধে অবস্থান, ইজিপ্টের পরিস্থিতি ও রাশিয়ার অবস্থান, উত্তর- পূর্ব এশিয়াতে পরিস্থিতি ও রাশিয়ার অবস্থান, পরিবেশ, বিশ্ব অর্থনীতি ও রাশিয়ার অবস্থান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা সংক্রান্ত চুক্তি ও স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা হ্রাস, সন্ত্রাসবাদের সমস্যা ও রাশিয়ার অবস্থান, ইরাকের পরিস্থিতি ও রাশিয়ার অবস্থান, স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা নিয়ে রাশিয়ার অবস্থান, ইন্টারনেট, ইউরোপের পরিস্থিতি, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, লিবিয়া ও আরব বিশ্ব, নিকট প্রাচ্য, চিন, প্রাকৃতিক বিপর্যয়, ব্রিকস
জাপানে “ফুকুসিমা-১” দুর্ঘটনাগ্রস্ত পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রের চারপাশের মাটির তেজষ্ক্রিয় মলিনতার মান চের্নোবিল পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে দুর্ঘটনার পরে এ এলাকার সূচকের সাথে তুলনীয়. এ তথ্য পাওয়া গেছে জাপানের পারমাণবিক শক্তি সংক্রান্ত সরকারী কমিশনের দ্বারা পরিচালিত অধ্যয়নের ফলে. সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রের উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত এলাকা.
সেন্ট পিটার্সবার্গে স্কোলকোভো তহবিলের প্রথম বড় মাপের বৈজ্ঞানিক সম্মেলন শুরু হয়েছে. এই প্রতিনিধিত্ব মূলক সম্মেলনে দেড়শো জনেরও বেশী বিখ্যাত বৈজ্ঞানিক, বড় কোম্পানীর প্রতিনিধি ও বিশেষজ্ঞ সমাজের লোক অংশ নিয়ে জ্বালানী শক্তি ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয় নিয়ে আলোচনা করছেন.
জাপানের সরকার “ফুকুসিমা-১” পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে দুর্ঘটনা তদন্তের জন্য বিশেষ স্বাদীন কমিশন গঠনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে. অনুমান করা হচ্ছে যে, রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, চীন, দক্ষিণ কোরিয়ার বিশেষজ্ঞদের এ কমিশনের কাজে আকর্ষণ করা হবে. কমিশনের সদস্যরা মন্ত্রীদের, আমলাদের, দুর্ঘটনাগ্রস্ত পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রের মালিক – জাপানের বৃহত্তম “টোকিও ইলেকট্রিক পাওয়ার” বিদ্যুত্ কোম্পানির  প্রতিনিধিদের প্রশ্ন করতে পারবেন.
২০১৫ সালের পরে পূর্ব ইউরোপে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা রাশিয়ার সংযত রাখার পারমাণবিক ক্ষমতা হ্রাস করতে পারে. এ সিদ্ধান্তে আসা হয়েছে রাশিয়ার সামরিক সদর দপ্তরে, মার্কিনী রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার চার পর্যায়ে আধুনিকীকরণ এবং ইউরোপে তার উপাদান স্থাপনের পরিকল্পনা বিশ্লেষণের পরে. প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায় রাশিয়ার স্ট্র্যাটেজিক পারমাণবিক ক্ষমতার জন্য গুরুতর বিপদ সৃষ্টি করে না.
রুশ ভূগোল সমিতির অভিযাত্রী দল “পাভেল গর্দিয়েনকো” নামে গবেষণা জাহাজে করে একমাস ধরে দূর প্রাচ্যে তেজষ্ক্রিয়তার পরিস্থিতি অধ্যয়ন করার পর আজ ভ্লাদিভস্তোকে ফিরেছে. এর অংশগ্রহণকারীরা – রাশিয়ার বিজ্ঞান অ্যাকাডেমির বিজ্ঞানী, বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয় ও আবহ বিভাগের কর্মী, এবং তাঁরা “ফুকুসিমা-১” পারমাণবিক বিদ্যুত্কেন্দ্রে দুর্ঘটনার পরে এ অঞ্চলে তেজষ্ক্রিতার পরিস্থিতির মনিটরিং চালিয়েছেন.
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রেজা গিলানির চিন সফর চলছে. বুধবারে তিনি তাঁর চিনের সহকর্মী ভেন স্ঝিয়া বাও এর সঙ্গে দেখা করেছেন, শুক্রবারে দেখা হওয়ার কথা চিনের দেশ নেতা হু জিন টাও এর সঙ্গে. যার পরে অনেকেই আশা করেছেন বেশ কিছু নতুন চুক্তির. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.
সম্পর্ক স্বাভাবিক করার জন্য রাশিয়া ও ন্যাটো জোটের সাধারণ কাজ প্রয়োজন. এ সম্বন্ধে বলেছেন ন্যাটো জোটে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি দমিত্রি রগোজিন ইংরেজী ভাষায় অনুদিত তাঁর বইয়ের উপস্থাপনা অনুষ্ঠানে.
রাশিয়া নিজের আঘাত হানার পারমাণবিক ক্ষমতা তাড়াতাড়ি বিকাশ করবে, যদি রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে পাশ্চাত্যের সাথে সমঝোতা না হয়. এ সম্বন্ধে বুধবার সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ. তিনি এ আশা প্রকাশ করেন যে, রাশিয়া ও পাশ্চাত্য রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে সহযোগিতার মডেল প্রণয়ন করতে পারবে.
টোকিও শহর থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরের "হামাওকা" পারমানবিক বিদ্যুত কেন্দ্র বন্ধ করা হচ্ছে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে এই কেন্দ্র থেকে দূর্ঘটনা জনিত বিপদের কারণ আছে বলে. প্রশাসনের দাবী অনুযায়ী এই কেন্দ্র বন্ধ করা হচ্ছে, জানা আছে যে, এই কেন্দ্র সুনামি বিপর্যয় প্রতিরক্ষায় সক্ষম নয়. "হামাওকা" কেন্দ্র থেকে বিকীরণের সম্ভাবনা টোকিও শহরে রয়েছে, কারণ এই দিক থেকেই সাধারণতঃ হাওয়া শহরের দিকে আসে.
২০০৯ সালে বিশ্বের অন্যান্য সব দেশের মধ্যে রাশিয়া প্রতিরক্ষা বিষয়ে তিন হাজার আটশো কোটি ডলারের সমান ব্যয় করেছিল. এই তথ্য দিয়েছে বিশ্ব অস্ত্র বিক্রয় বিশ্লেষণ কেন্দ্র. এটা বিশ্বে সপ্তম বড় ব্যয় ও তার অর্থ হল যে, বিগত কয়েক বছরের তুলনায় সামরিক খাতে খরচের পরিমান যথেষ্ট বেশী মনোযোগ দিয়ে বৃদ্ধি করা হয়েছে, কারণ আগে রাশিয়া ছিল একাদশ স্থানে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
মে 2011
ঘটনার সূচী
মে 2011
2
4
7
8
9
10
12
14
15
16
17
21
22
23
28
29