×
South Asian Languages:
পারমানবিক, ফেব্রুয়ারী 2011
৪০ বছর আগে মস্কো, ওয়াশিংটন ও লন্ডনে স্বাক্ষর করার জন্য এক দলিল খোলা হয়েছিল, যেখানে সমুদ্র ও মহাসাগরের তলদেশ কে বাস্তবে পারমানবিক অস্ত্র মুক্ত অঞ্চল বলে ঘোষণা করা হয়েছিল. এই আন্তর্জাতিক চুক্তি জলের তলায় বা মাটির গভীরে শুধু পারমানবিকই নয়, এমনকি যে কোন ধরনের গণ হত্যার সম্ভাবনা আছে এমন অস্ত্র রাখা নিষিদ্ধ করেছিল.
জাপান ও রাশিয়ার দুই কর্পোরেশন সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম বিক্রী করার জন্য কোম্পানী খোলার বিষয়ে আলোচনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে. ২০০৯ সালের মে মাসে দুই দেশের কোম্পানীর মধ্যে একটি সম্মতি পত্র এই বিষয়ে স্বাক্ষরিত হয়েছিল, যেখানে জাপানে একটি ইউরেনিয়ামের ভান্ডার তৈরী করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, যা এই দেশের পারমানবিক বিদ্যুত কেন্দ্র গুলিকে সরবরাহ করবে জ্বালানী দিয়ে.
প্রয়োজনে সামরিক শক্তি প্রয়োগ করা হবে, শুধু জোটের দেশ গুলির সঙ্গে একসাথেই নয়, নিজেদের পছন্দ মতও. স্ট্র্যাটেজিক লক্ষ্য হিসাবে বলা হয়েছে আল কায়দা ও তাদের সহযোগী দল গুলিকে, যারা আফগানিস্তান, পাকিস্তান, সোমালি, ইয়েমেন এই ধরনের দেশে রয়েছে.
২রা ফেব্রুয়ারী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা এই আইনে স্বাক্ষর করেছেন. মার্কিন কংগ্রেসের সেনেট ২২শে ডিসেম্বর চুক্তিটি গ্রহণ করেছিল. প্রাগ শহরে ২০১০ সালের ৮ই এপ্রিল দুই দেশের রাষ্ট্রপতিরা এই দলিলে স্বাক্ষর করেছিলেন. এই চুক্তির ফলে দুই দেশের কাছে সক্রিয় অবস্থায় থাকবে ১৫৫০ টি পারমানবিক যুদ্ধাস্ত্র. এছাড়া দুই পক্ষই স্থির করেছে ৭০০টি পারমানবিক অস্ত্র বাহী স্ট্র্যাটেজিক রকেট থাকবে.
রাশিয়া ও আমেরিকার মধ্যে স্বাক্ষরিত স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা চুক্তি সংক্রান্ত আইন আজ রাশিয়ার সংবাদ পত্র রশিস্কায়া গাজেতা তে প্রকাশিত হয়েছে ও তা বহাল হয়েছে. গত সপ্তাহে রাশিয়ার পার্লামেন্টের দুই কক্ষই এই চুক্তি সংক্রান্ত আইন গ্রহণ করেছিল, আর তারপরে এই আইনে রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ স্বাক্ষর করেছিলেন. চুক্তি গত বছরে এপ্রিল মাসের ৮ তারিখে প্রাগ শহরে স্বাক্ষরিত হয়েছিল.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28
ফেব্রুয়ারী 2011
ঘটনার সূচী
ফেব্রুয়ারী 2011
2
4
5
6
7
8
12
13
14
15
18
19
20
21
22
23
24
26
27