×
South Asian Languages:
রুশ- মার্কিন

প্রথম থেকে শেষ অবধিই অসম্ভব ঠেকেছে নিউইয়র্ক শহরে ভারতের ডেপুটি কনসাল জেনারেল দেবযানী খোবরাগাদে আচমকা গ্রেপ্তার হওয়া আর তারপরে জেলবন্দী থাকার ঘটনা. উচ্চপদস্থ এই কূটনীতিবিদকে অপমানজনক ভাবে খানাতল্লাশী করা হয়েছে ও তারপরে নানারকমের অপরাধী ও মাদকাসক্তদের সাথে একত্রে কারাবাসে বাধ্য করা হয়েছে. এই কাজ দিয়েই খুব নোংরা ভাবে বিদেশে রাষ্ট্রের প্রতিনিধি সংক্রান্ত ১৯৬৩ সালের ভিয়েনা কনভেনশন ভঙ্গ করা হয়েছে, যে দলিলে স্পষ্ট করেই লেখা রয়েছে কূটনীতিবিদদের অনাক্রম্যতা নিয়ে.

২০১৪ সালের পরে, যখন সেই দেশ থেকে পশ্চিমের জোট শক্তির মূল অংশ বেরিয়ে চলে যাবে, তখন আফগানিস্তানের পরিস্থিতি কি রকমের হতে চলেছে, তা নিয়ে রাশিয়া ও ন্যাটো জোটের প্রতিনিধিরা ভবিষ্যদ্বাণীর ক্ষেত্রে পার্থক্য দেখতে পেয়েছেন. মস্কোতে আলোচনা শুরু হয়েছে ন্যাটো জোটের প্রতিনিধি কার্যালয় ও রাশিয়ার রাজনৈতিক গবেষণা কেন্দ্রের যৌথ উদ্যোগে. এই সব বিতর্কের কারণে সম্মেলনের একটি মুখ্য প্রশ্ন যে, কিভাবে আফগানিস্তানের বিষয়ে সহযোগিতা করা দরকার রয়েছে, তা উত্তর বিহীণ রয়ে গিয়েছে.

ভূমধ্য সাগরীয় এলাকায় নিরপেক্ষ জলসীমায় সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র বিষমুক্ত করা হতে চলেছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র “কেপ রে” নামের জাহাজে এই অস্ত্র নষ্ট করে ফেলার জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে. রবিবারে এই নিয়ে হোয়াইট হাউসের সরকারি প্রতিনিধি খবর দিয়েছেন. মস্কো এই অপারেশনের প্রস্তুতিতে সহায়তা করছে. রাশিয়াতে সামরিক বিষাক্ত পদার্থ নষ্ট করে ফেলার জন্য বহুদিন আগে থেকেই হাইড্রোলাইসিস প্রক্রিয়া ব্যবহার করা হয়ে থাকে, যদিও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অল্প কিছুদিন আগেও রাসায়নিক অস্ত্র জ্বালিয়ে দেওয়া হয়ে থাকত.

ইরানের পরমাণু সমস্যার সমাধান হচ্ছে মস্কো এবং ওয়াশিংটনের মধ্যে সহযোগিতার আরও একটি ক্ষেত্রে, যেখানে দুই দেশে যৌথ সম্পর্ক বজায় রেখে সহযোগিতা করছে। মস্কোয় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মাইকেল ম্যাকফল নিজের এক টুইট পোষ্টে আজ রোববার এ কথা লিখেছেন। ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে তেহরান ও অপর ছয়টি দেশ যে সমঝোতায় পৌঁছেছে তা নিয়ে এক মন্তব্য জানান ম্যাকফল।

রাসায়নিক অস্ত্র নিষিদ্ধ করণ সংস্থার কার্যকরী পরিষদ শুক্রবারে গাগ শহরে সিরিয়ার এলাকায় থাকা রাসায়নিক অস্ত্র নিয়ে যাওয়া ও ধ্বংস করা নিয়ে পরিকল্পনার আলোচনা শুরু করেছে. এই বিষয়ে জানিয়েছে “ইন্টারফ্যাক্স” সংস্থা. তাদের তথ্য অনুযায়ী এই আলোচনায় যাঁরা অংশ নিয়েছেন, তাঁরা এই ধরনের সামরিক বিষাক্ত জিনিষ নষ্ট করার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ যোগাড় নিয়ে আলোচনা করবেন. ১৫ই নভেম্বর – সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করার পরিকল্পনা ও তার কার্যক্রম গ্রহণের শেষ দিন.

১৯৮৮ সালের ১৫ই নভেম্বর, আজ থেকে পঁচিশ বছর আগে খুবই উল্লেখযোগ্য এক ঘটনা বিশ্বের মহাকাশ বিজ্ঞানের ইতিহাসে ঘটেছিল – বৈকনুর মহাকাশ উড়ান কেন্দ্র থেকে যাত্রা শুরু করেছিল সোভিয়েত দেশে তৈরী বহুবার মহাকাশে যেতে সক্ষম রকেট “এনেরগিয়া-বুরান”. এক দৈত্যাকার মহাকাশে যাওয়ার উপযুক্ত বিমান, “স্পেস- শাটল্”, যেটা মহাকাশে উড়ে গিয়ে আবার পৃথিবীতে এসে নেমেছিল একেবারেই স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থার মাধ্যমে, যেটা তার পরেই “গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে” উল্লেখ করা হয়েছিল.

এই গত সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি অবধিও পশ্চিমের সংবাদ মাধ্যমে মৃগী রোগীর মত চেহারা ওয়ালা খবর, যা সিরিয়া নিয়ে দেওয়া হচ্ছিল, তা এখন আর দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না. সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ত্যাগ ও বাস্তবে আন্তর্জাতিক “জেনেভা-২” সম্মেলনের জন্য প্রস্তুতি হাওয়া বদলের ভূমিকা নিয়েছে, অপপ্রচারের ধোঁয়াশা তাতে কিছুটা কমেছে বৈকী. আর এবারে একেবারে শেষ অবধি স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে যে, সিরিয়ার ঘটনাগুলোকে আর এক রক্তপিপাসু প্রশাসক, যে কিনা তার নিজের দেশের লোকদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে আর এই সময়ে আবার প্রতিবেশীদের ভয় দেখাচ্ছে বলে সেই রূপকথার মোড়কে আর রাখা যাচ্ছে না.

আমেরিকার বিশেষ জাতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর প্রাক্তন কর্মী এডওয়ার্ড স্নোডেন, যে রাশিয়াতে সাময়িক ভাবে আশ্রয় পেয়েছে, ১লা নভেম্বর থেকে কাজে যোগ দিয়েছে. সে আপাততঃ দেশের এক বৃহত্তম ইন্টারনেট রিসোর্সেস কোম্পানীর হয়ে কাজ করবে.

আমেরিকার বিশেষ বাহিনীর খবর ফাঁস করে দেওয়া কর্মী যেখানে কাজ শুরু করল সেই কোম্পানীর নাম ও তার নতুন পদের বিষয়টা গোপনই রাখা হয়েছে. এটাও ঠিক জানা নেই যে, আমেরিকার এই লোক কি অফিসে বসে কাজ করবে, নাকি দূর থেকে ইন্টারনেটে কাজ করবে. রাশিয়াতে এডওয়ার্ড স্নোডেনের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট কাজের দেখাশোনা করা অ্যাডভোকেট আনাতোলি কুচেরেনা বলেছেন যে, এই রকমের গোপনীয়তা রক্ষার প্রয়োজন রয়েছে এই “পালিয়ে আসা” ব্যক্তির নিরাপত্তার খাতিরেই.

সিরিয়াতে রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করে দেওয়ার জন্য মিশনের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ শেষ হয়েছে. তৃতীয় অধ্যায় হতে চলেছে সবচেয়ে বেশী জটিল ও দীর্ঘ সময়ের.

রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করে দেওয়া নিয়ে যে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে, তা অনুযায়ী ১লা নভেম্বরের মধ্যে সিরিয়ার প্রশাসনের প্রয়োজন ছিল রাসায়নিক অস্ত্র উত্পাদনের জন্য সমস্ত রকমের কল কারখানা ও তা পৌঁছনোর জন্য সমস্ত রকমের ব্যবস্থা নষ্ট করে ফেলা. ঠিক সেটাই করা সম্ভব হয়েছে.

এই অক্টোবর মাসের শেষে ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতিকে তাদের দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে কম জনপ্রিয় রাষ্ট্রপ্রধান বলে স্বীকার করা হয়েছে. এই জনমত গ্রহণের তথ্য অনুযায়ী তাঁর স্বপক্ষে ছিলেন শতকরা ২৬ ভাগ মানুষ. তিনি এই দেশের প্রশাসনের শীর্ষে আছেন মাত্র এক বছর ও পাঁচ মাস সময়. এত নীচে ফরাসীদের জন্য সবচেয়ে অপ্রিয় নিকোল্যা সারকোজি কখনও পড়েন নি: তিনি এমনকি নিজের রাষ্ট্রপতিত্বের মেয়াদ শেষ করেছিলেন শতকরা তিরিশ ভাগ মানুষের সমর্থনের রেটিং নিয়ে.

রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্রদের লীগের বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি দামাস্কাসে এসেছেন সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও দেশের আভ্যন্তরীণ বিরোধী পক্ষের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাত্কার করতে. আলজিরিয়ার এই কূটনীতিবিদের জন্য এখন খুবই কঠিন এক মিশন সামনে রয়েছে: তাঁকে বিরোধী পক্ষকে রাজী করাতে হবে, তাঁরই নিজের কথামতো একটি “সলিড ডেলিগেশন” অথবা মর্যাদা ও ক্ষমতা সম্পন্ন প্রতিনিধিদল তৈরী করে জেনেভা শহরে শান্তি সম্মেলনে পাঠানোর জন্য. তা হওয়ার কথা ২৩শে নভেম্বর, কিন্তু আবারও সেটা প্রশ্নের সম্মুখীণ হয়েছে.

সিরিয়ার সরকার ও বিরোধী জোটকে জেনেভা-২ শান্তি সম্মেলনের আলোচনার টেবিলে বসানোর সম্ভাবনা ক্রমশই বাস্তবে রুপ পাচ্ছে।

এইতো কয়েক সপ্তাহ আগেও সিরিয়ার বিদ্রোহী গোষ্ঠীর নেতারা ও অধিকাংশ পশ্চিমা মিত্রজোট বাশার আসাদের সাথে এমনকি আলোচনা করার কথাও শুনতে পারতেন না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্ররা শুধুমাত্র সামরিক অভিযানের মাধ্যমে সিরিয়া সংকট সমাধান করতে চেয়েছিলো।

 

সিরিয়ায় মজুদ থাকা রাসায়নিক অস্ত্রের ওপর আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণ তুলে দেওয়ার সম্মতিতে পৌঁছানোর কারণে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে অভিনন্দন জানিয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর জোট আসিয়ান।

যুক্তরাষ্ট্র সরকারের গোপন নজরদারি সম্পর্কিত তথ্য ফাঁসকারী কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) সাবেক কর্মকর্তা এডওয়ার্ড স্নোডেনকে দেখতে তাঁর বাবা লন স্নোডেন মস্কো এসেছেন। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময়ে ভোর ৮টার দিকে লন স্নোডেনকে বহনকারী বিমানটি শেরমেতোভা বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

চলতি সপ্তাহে সিরিয়ায় গিয়ে পৌঁছেছে আন্তর্জাতিক রাসায়নিক অস্ত্রশস্ত্রের বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের দল. এই মাসের মধ্যেই দামাস্কাস প্রশাসন কর্তৃক যোগানো মজুত রাসায়নিক অস্ত্র ভান্ডারের পুরোপুরি হদিস ও হিসাব তাদের করার কথা. কিন্তু বিশেষজ্ঞরা উল্লেখ করছেন যে, তাদের মিশনে প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে চোরাগোপ্তা জঙ্গী আক্রমণ.

ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই ল্যাভরোভ ও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৭ অক্টোবর সোমবার ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, সিরিয়া সংকট নিরসণে যে মতৈক্যে পৌছানো সম্ভব হয়েছে তা দামাস্কাসের ওপর সামরিক হামলা চালানো বন্ধ হতে সহায়তা করবে। সিরিয়া সংকট নিরসণে গৃহিত পরিকল্পনাকে সবার মিলিত অর্জন বলে অভিহিত করেন তিনি।

মস্কোতে বুধবার “রাশিয়া কলিং” শিরোনামে শুরু হওয়া বিনিয়োগ ফোরামে পুতিন এসব কথা বলেন।

দামাস্কাসের উপকন্ঠের উদ্দ্যেশ্যে রওনা হয়েছে জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা সিরিয়ার সরকারের আবেদনের প্রেক্ষিতে জাতিসংঘের রাসায়নিক অস্ত্র বিষয়ক একটি পরিদর্শক দল দামাস্কাসের উপকন্ঠের একটি শহরের উদ্দ্যেশ্যে রওনা হয়েছে। রিয়া নোভাসতি শনিবার এ খবর জানিয়েছে।

গত দুই বছরের মধ্যে প্রথমবার সিরিয়া সংক্রান্ত জাতিসংঘের কোন প্রস্তাব পাশ হয়েছে। এবার কেউই ভেটো প্রদান করে নি বা কেউ অধিবেশন ছেড়ে যায় নি। নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি সদস্য রাষ্ট্রের সবাই প্রস্তবের পক্ষে সমর্থন জানিয়েছে।

সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র সম্পূর্ণ ধংস করার দাবি সম্বলিত একটি প্রস্তাব জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে সর্বসম্মতিক্রমে পাশ হয়েছে। প্রস্তাব অনুযায়ী সিরিয়ায় মজুদ থাকা সব ধরণের রাসায়নিক অস্ত্র ধংস করা হবে এবং এর জন্য দেশটির বিভিন্ন জায়গায় জাতিসংঘের পরিদর্শকদের প্রবেশ নিশ্চিত করতে হবে।

আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
জুন 2017
ঘটনার সূচী
জুন 2017
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30