×
South Asian Languages:
পাকিস্থান-চিন, আগষ্ট 2011
সিন্ধ প্রদেশের প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ও প্রশাসনের প্রধান পাকিস্তানের জনতা পার্টির জুলফিকার মির্জার রবিবারের ঘোষণা পাকিস্তানে রাজনৈতিক ঝড় তুলেছে ও একই সঙ্গে বহু প্রশ্নের উদয় হয়েছে এই দেশের ভবিষ্যত নিয়ে.
ব্রিটেনের প্রভাবশালী সংবাদপত্র "দ্য ফাইনান্সিয়াল টাইমস" এর খবর অনুযায়ী পাকিস্তান চিনকে তাদের দেশে ওসামা বেন লাদেনকে ধ্বংস করার অপারেশনে ক্ষতিগ্রস্থ মার্কিন হেলিকপ্টারটিকে খুলে দিয়েছে দেখতে. যা তৈরী হয়েছে এক গোপন প্রযুক্তি "স্টেলথ" ব্যবহার করে, যার ফলে রাডারের বিকীরণ প্রতিফলিত হয়ে থাকে ও বিমানটি রাডারে অদৃশ্য থাকে.
  পাকিস্তান নাকি চীনের সামরিক বিশেষজ্ঞদের গোপন মার্কিনী হেলিকপ্টার অনুসন্ধান করতে দিয়েছে, এ রকম সংবাদ চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রক অস্বীকার করেছে. এ বছরের মে মাসে ওসামা বিন-লাদেনকে নিধন  করার অভিযানকালে হেলিকপ্টারটি দুর্ঘটনার শিকার হয়. চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রক কতৃক প্রচারিত ঘোষণাপত্রে এই সংবাদকে ভিত্তিহীন ও বিস্ময়জনক বলে অভিহিত করা হয়েছে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গুপ্তচর সংস্থা তাদের অনুমানে কিছু ভুল করে নি. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যেমন ভয় পাওয়া হয়েছিল যে, তেমন করেই পাকিস্তান তাদের দেশে ওসামা বেন লাদেনকে ধ্বংস করার অপারেশনে ক্ষতিগ্রস্থ মার্কিন হেলিকপ্টারটিকে চিনের জন্য খুলে দিয়েছে দেখতে. ওয়াশিংটনের একাধিকবার এটা করতে বারণ করায় কান দেয় নি ইসলামাবাদ.
পাকিস্তানের সরকার চিনের সামরিক বিশেষজ্ঞদের কাছে গোপন মার্কিন হেলিকপ্টার দেখিয়েছে. মনে করা হচ্ছে যে, এটা ইউ এইচ – ৬০ "কালো ঈগল" নামের হেলিকপ্টার. আমেরিকার লোকেরা "আল- কায়দা" দলের নেতা ওসামা বেন লাদেনকে পাকিস্তানের ভিতরে হত্যা করার অভিযানে গিয়ে এক দূর্ঘটনার পরে তা রেখে গিয়েছিল.
"সিনহুয়া" সংবাদ সংস্থা যেমন জানিয়েছে যে, শুক্রবার ভোর রাতে চিনের দক্ষিণ- পশ্চিমে সিচুয়ান রাজ্যের সিচান মহাকাশ উড়ান কেন্দ্র থেকে পাকিস্তানের "পাকস্যাট- ১ আর" উপগ্রহ সফল ভাবে মহাকাশে পাঠানো সম্ভব হয়েছে.     ২০০৮ সালে এই উপগ্রহ পাঠানোর চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল চিনের কর্পোরেশন "মহান প্রাচীর" ও পাকিস্তানের মহাকাশ ও বায়ুমণ্ডলের সর্ব্বোচ্চ স্তরের গবেষণা সংস্থার মধ্যে.
পাকিস্তান বাধ্য হওয়া উদ্বাস্তু প্লাবনে ঢেকে যাচ্ছে. এক লক্ষ মানুষের বেশী নিজেদের বাড়ী ঘর ছেড়ে কুর্রাম রাজ্য ছেড়ে পালিয়েছেন. উত্তর পশ্চিমের এই অঞ্চলে প্রায় এক মাস ধরে চলছে সন্ত্রাস বিরোধী অপারেশন. সেনা বাহিনী হেলিকপ্টার ও কামান ব্যবহার করে ঐস্লামিক চরমপন্থীদের উপরে অগ্নি বর্ষণ করেই চলেছে. তালিবেরা আবার রাস্তা ঘাটে মাইন পাতছে ও স্কুল আর হাসপাতালে গিয়ে লুকাচ্ছে.
আফগানিস্তানে অবস্থিত ন্যাটো জোটের সেনা বাহিনীর জন্য পাঠানো দশটি পেট্রোল ভর্তি ট্রাক পাকিস্তানের উত্তর পশ্চিমে হৈরপুর অঞ্চলে ন্যাটো জোটের কনভয় আক্রমণ করে জঙ্গী যোদ্ধারা জ্বালিয়ে দিয়েছে. সশস্ত্র চরমপন্থীরা আড়াল থেকে স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র ব্যবহার করে গুলি করে ট্রাক গুলিতে আগুণ ধরিয়ে দেয়. এই ধরনের আক্রমণে গাড়ী চালক ও তার পাহারাদার চারজন আহত হয়েছে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
আগষ্ট 2011
ঘটনার সূচী
আগষ্ট 2011
3
4
5
6
7
8
9
10
11
13
14
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
31