×
South Asian Languages:
দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্র, মার্চ 2013
ডারবান শহরে এ সপ্তাহে শেষ হলো ব্রিকস জোটের পঞ্চম শীর্ষ সম্মেলন। দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিকসভুক্ত দেশগুলোর নেতারা মন্দাবিরোধী তহবিল, ব্রিকস
দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান শহরে ব্রিকস গোষ্ঠীর শীর্ষ সাক্ষাতের ফলাফলের ভিত্তিতে একসারি গুরুত্বপূর্ণ দলিল স্বাক্ষরিত হয়েছে. ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রের নেতারা, বিশেষ করে, পাঁচ দেশের কারবারী পরিষদ এবং বিশেষজ্ঞ কেন্দ্র গঠন সম্বন্ধে সমঝোতায় এসেছেন. আর্থিক-অর্থনৈতিক প্রশ্নাবলি ছাড়া তথ্য নিরাপত্তা, নার্কোটিক বিপদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম, যুব সম্প্রদায় ও শিক্ষা বিষয়ক বিনিময়ের মতো ক্ষেত্রে সমঝোতা অর্জিত হয়েছে.
২০১৪ সালে পরবর্তী ব্রিকস গোষ্ঠীর শীর্ষ সম্মেলন হতে চলেছে ব্রাজিলে, আর তারপরে ২০১৫ সালে রাশিয়াতে. এই ধরনের সমঝোতা গৃহীত হয়েছে বুধবারে দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান শহরে এই গোষ্ঠীর শীর্ষ সম্মেলনের পরে, যেখানে ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চিন ও দক্ষিণ আফ্রিকা রাষ্ট্র যুক্ত রয়েছে. ব্রিকস শীর্ষ সম্মেলন বছরে একবার করে হয়ে থাকে.
চীনের রাষ্ট্রীয় কর্পোরেশন সিনোপেক এবং দক্ষিণ আফ্রিকার জাতীয় পেট্রোল কোম্পানী পেট্রোএসএ সহযোগিতা বিষয়ক সম্মতিপত্র স্বাক্ষর করেছে. ঐ দলিলটিতে লিপিবদ্ধ শর্ত অনুযায়ী, সিনোপেক পূর্ব কেপে অবস্থিত কুখ শিল্পোন্নয়ন এলাকায় তৈল শোধনাগার নির্মাণের কাজে অংশ নেবে. ঐ কারখানাটি নির্মাণের সময় ধার্য করা হয়েছে ২০১৮-২০২০ সালে. ওটি হবে দেশের বৃহত্তম শিল্প-প্রতিষ্ঠান.
ব্রিকস গোষ্ঠী – ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চিন ও দক্ষিণ আফ্রিকা - বণিক সমাজের সঙ্গে সরাসরি আলোচনা শুরু করছে. ব্রিকস শীর্ষ সম্মেলনের মধ্যেই দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান শহরে ঘোষণা করা হতে চলেছে বণিক সভা গঠনের কথা. তার মুখ্য কাজ হবে বহু পাক্ষিক বিনিয়োগ প্রকল্প গুলিকে বাস্তবায়িত করা, এই কথা ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির সহকারী ইউরি উশাকভ.
ব্রিক্সের দেশগুলি বিনিময় ব্যবস্থা প্রয়োগ করে পারস্পরিক সাহায্যের প্রক্রিয়া গঠন করেছে. এই প্রক্রিয়া কার্যকরী করার জন্য ১০ হাজার কোটি ডলারের প্রয়োজন হতে পারে, বলে রুশ ফেডারেশনের অর্থমন্ত্রী আন্তন সেলুয়ানভের উদ্ধৃতি দিয়েছে ‘প্রাইম’ সংবাদসংস্থা.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন মঙ্গলবার কর্মসফরে দক্ষিণ আফ্রিকায় পৌঁছাচ্ছেন, যেখানে বিশ্বে সবচেয়ে দ্রুত উন্নয়নশীল অর্থনীতির পাঁচ দেশ – ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ কোরিয়াকে ঐক্যবদ্ধকারী ব্রিক্স সংস্থার শীর্ষবৈঠক অনুষ্ঠিত হবে. মঙ্গলবার পুতিন দক্ষিণ আ্ফ্রিকার রাষ্ট্রপতি জ্যাকব জুমার সাথে সাক্ষাত করবেন. আশা করা হচ্ছে, যে পক্ষদ্বয় সামরিক-প্রযুক্তিগত ক্ষেত্রে, শিক্ষা, বিজ্ঞান, জ্বালানী শক্তি ও পরিবহনের ক্ষেত্রগুলিতে স্ট্র্যাটেজিক সহযোগিতার ঘোষনাপত্র স্বাক্ষর করবেন.
২৭শে মার্চ এই সাক্ষাত্কার হবে ডারবান শহরে. এই বিষয়ে জানিয়েছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপ্রধানের সহকারী ইউরি উশাকভ, মস্কোয় এক সাংবাদিক সম্মেলনে. উশাকভের কথামতো, দুই দেশের নেতারা একই সঙ্গে সিরিয়ার পরিস্থিতি, নিকটপ্রাচ্যের পরিস্থিতি ও উত্তর আফ্রিকা নিয়ে কথা বলবেন. ইজিপ্টের জটিল সামাজিক – রাজনৈতিক পরিস্থিতি হওয়া স্বত্ত্বেও, রাশিয়ার সঙ্গে সহযোগিতা সফল ভাবেই বৃদ্ধি হচ্ছে.
গত সপ্তাহের শেষে ভারত ও চিন চুক্তি করেছে দুই দেশের সামরিক বাহিনীর মধ্যে যোগাযোগ পুনর্বহাল করার. এই সমঝোতা ভারতে চিনের জাতীয় স্বাধীনতা বাহিনীর সদর দপ্তরের ডেপুটি চিফ অফ স্টাফ লেফটেন্যান্ট জেনারেল শী জিয়াংগুও এর সফরের সময়ে ভারতীয় সামরিক বাহিনীর সচিব শশী কান্ত শর্মার সঙ্গে সাক্ষাত্কারের সময়ে করা হয়েছে.
চীনা গণ-প্রজাতন্ত্রের সভাপতি সি জিনপিন নিজের বিদেশ সফরে তানজানিয়ায় পৌঁছেছেন.সোমবার তিনি দার-এস-সালামে চীন-আফ্রিকা সম্পর্ক সম্বন্ধে বক্তৃতা দেবেন. এ সফরের সময় অর্থনীতি ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে প্রায় ২০টি চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে, জানিয়েছে “ইতার-তাস” সংবাদ এজেন্সি. এ সফরের পর তিনি রওনা হবেন দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রে ২৬-২৭শে মার্চ ব্রিকস গোষ্ঠীর (ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা) শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণের জন্য.
ব্রিকস দেশগুলির (ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন, দক্ষিণ আফ্রিকা) ৯০০ জনেরও বেশি ব্যবসায়ী সোমবার এ গোষ্ঠীর পঞ্চম শীর্ষ সাক্ষাতের উদ্বোধনের প্রাক্কালে ব্যবসায়িক সম্মেলনে যোগ দেবেন. আলোচ্য সূচির মুখ্য বিষয়গুলির মধ্যে থাকবে “পঞ্চদেশের” স্থায়ীভাবে কর্মরত কারবারী পরিষদ এবং ব্রিক্স দেশগুলির বিকাশ ব্যাঙ্কের গঠন.
বিশ্ব রাজনীতি ও অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণতম প্রশ্ন গুলির ক্ষেত্রে পারস্পরিক আলোচনার জন্য ব্রিকসকে ধীরেধীরে একটি ব্যবস্থায় রূপান্তরিত করাকে রাশিয়া ও চিন সমর্থন করে. এই বিষয়ে বলা হয়েছে রাশিয়া ও গণ প্রজাতন্ত্রী চিনের প্রধানদের যৌথ ঘোষণায়, যা শুক্রবারে ক্রের্মলিনে স্বাক্ষর করেছেন ভ্লাদিমির পুতিন ও শী জিনপিন.
ব্রিকস গোষ্ঠীর শীর্ষ সম্মেলন, যা হতে চলেছে দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান শহরে, তা সিরিয়ার সঙ্কট নিয়ন্ত্রণের জন্য অংশগ্রহণকারী দেশ গুলির অবস্থান স্বচ্ছ করতে পারে. তারই সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে অপেক্ষা করা যেতে পারে ব্রিকস গোষ্ঠীর ঐক্যবদ্ধ ব্যাঙ্ক গঠনের খবর.
ব্রিকস (রাশিয়া, ভারত, চীন, ব্রাজিল এবং দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্র) কারুরই বিরুদ্ধে নিজেকে স্থাপনের চেষ্টা করছে না. দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রের ডারবান শহরে ২৬-২৭শে মার্চ অনুষ্ঠিতব্য শীর্ষ সম্মেলনের প্রাক্কালে এ সম্বন্ধে “রেডিও রাশিয়াকে” প্রদত্ত এক ইন্টারভিউতে বলেছেন রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকোভ. তিনি বলেন, “আমরা ব্রিকস গোষ্ঠীর ক্রমবর্ধমান মর্যাদা ও প্রভাবের কথা বলছি, যা সন্দেহাতীত.
ব্রিকস দেশগুলি আন্তঃসিরীয় সংলাপ গড়ে তোলার পক্ষে মত প্রকাশ করছে. এ সম্বন্ধে “রেডিও রাশিয়াকে” প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকোভ দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রের ডারবান শহরে ২৬-২৭শে মার্চ রাশিয়া, ভারত, চীন, ব্রাজিল ও দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রের শীর্ষ সম্মেলনের প্রাক্কালে. আশা করা হচ্ছে যে, আলোচ্য সূচিতে সিরিয়ার বিষয়টি একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান অধিকার করবে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
মার্চ 2013
ঘটনার সূচী
মার্চ 2013
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
23
24
29
30