×
South Asian Languages:
বাংলাদেশ, 26 এপ্রিল 2013
ভয়ঙ্কর ট্র্যাজেডি, যা বুধবারে বাংলাদেশে হয়ে গিয়েছে ও কয়েক শো লোকের জীবন হানীর কারণ হয়েছে, তা একই সারিতে প্রশ্ন গুলিকে বসিয়ে দিয়েছে: কে দোষী? কে দায়ী যে এই রকম বাড়ী তৈরী করা হয়েছে কোন রকমের প্রযুক্তিগত নিয়মই না মেনে? কারা দোষী যে প্রয়োজন মত নিরাপত্তার ব্যবস্থা না নিয়ে কাজের আয়োজন করা হয়েছে বলে?
বাংলাদেশের সাভারে একটি বহুতল বাণিজ্যিক ভবনের ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে  নিহতদের সংখ্যা পৌঁছেছে ৩০৪ জনে, ২৩০০ জনেরও বেশি লোককে বাঁচানো সম্ভব হয়েছে, শুক্রবার জানিয়েছে ফ্রান্স প্রেস সংবাদ এজেন্সি সৈন্যবাহিনীর প্রতিনিধি শাহিনুল ইসলামের উদ্ধৃতি দিয়ে. ঢাকার উপকণ্ঠে রানা প্লাজা কমপ্লেক্স ধ্বসে পড়ে বুধবার ২৪শে এপ্রিল. এ ভবনে ছিল চারটি পোষাক সেলাইয়ের কারখানা, ব্যাঙ্ক এবং বহুসংখ্যক দোকান.
গত বুধবার বাংলাদেশের সাভারে একটি বহুতল বাণিজ্যিক ভবনের ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে প্রায় তিন শতাধিক মানুষের প্রাণহানির ঘটনায় রেডিও
বাংলাদেশের পুলিশ রবারের গুলি এবং কাঁদুনে গ্যাস ব্যবহার করেছে, ভবন ধ্বসে পড়ার পরে প্রতিবাদ আন্দোলনে যোগ দেওয়া মিছিলকারীদের সংযত রাখার জন্য. এ ভবন ধ্বসে যাওয়ার ফলে প্রায় ২৮০ জন নিহত হয়েছে. স্থানীয় প্রচার মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, শুক্রবার রাস্তার মিছিলে যোগ দিয়েছে সাভার পোষাক সেলাই কারখানার এক হাজারেরও বেশি কর্মী.
সাভারের রানা প্লাজার ধ্বংস স্তূপ থেকে বৃহস্পতিবারে ৪৫ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে. স্থানীয়  টেলিভিশনের  দেওয়া খবরের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা ফ্রান্স প্রেস এ খবর জানিয়েছে. ত্রাণ ও উদ্ধারের কাজের সময়ে এদের একটি রক্ষা পাওয়া ঘরে পাওয়া গিয়েছে. শেষ পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী মৃতের সংখ্যা ২০০ পার হয়েছে. বৃহস্পতিবারে বাংলাদেশে শোক দিবস ঘোষিত হয়েছিল.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
এপ্রিল 2013
ঘটনার সূচী
এপ্রিল 2013
1
2
3
4
5
6
8
9
10
13
15
16
17
19
20
21