×
South Asian Languages:
ইরান, নভেম্বর 2012
ইরান আফগানিস্তানে বিদেশী সামরিক উপস্থিতির অবসান চেয়েছে. রাষ্ট্রসঙ্ঘে ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধির ডেপুটি এশাক আল- হাবিব নিজের দেশের অবস্থান সম্বন্ধে ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেছেন যে, আফগানিস্তানে বিদেশী শক্তির উপস্থিতি শুধু এই দেশে পরিস্থিতিকেই অস্থিতিশীল করছে. প্রতিবেশীদের মতামত অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু বর্তমানের ক্ষেত্রে চোখে পড়ার মতো হয়েছে যে, প্রতিবেশীরা একেবারেই উল্টো অবস্থানে রয়েছেন. এই প্রসঙ্গে পিওতর গনচারভ মন্তব্য করেছেন.
এই বিদ্যুত কেন্দ্রের নির্মাতা সংস্থা অ্যাটমস্ত্রোইএক্সপোর্ট কোম্পানীর মুখপাত্র এই খবর দিয়েছেন. ১৯৭০ সাল থেকে প্রকল্প হওয়া বুশের বিদ্যুত কেন্দ্রের বিদ্যুত শক্তি উত্পাদনের ক্ষমতা হবে এক হাজার মেগাওয়াট.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনেট বর্তমানে ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা নেওয়া নিয়ে এক নতুন আইন প্রণয়নের চেষ্টা করছে. তেহরানের উপরে চাপ বাড়ছে. তারই মধ্যে বিশেষজ্ঞরা কল্পনা করতে বসেছেন – এই চাপ এবারে কি ধরনের আকার নেবে – আর পরিনামে আমেরিকার লোকরা কি পেতে চলেছে.
প্রায় ৩০ জন লোক বার্লিনে ইরানের দূতাবাসের ভূভাগে ঢুকে পড়েছিল, তাদের মধ্যে ১০ জনকে আটক করা হয়েছে. এ সম্বন্ধে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে “অ্যাসোশিয়েটেড প্রেস” সংবাদ এজেন্সি. পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, অজানা ব্যক্তিরা কূটনৈতিক মিশনের ভূভাগে ঢুকে পড়ে দূতাবাসের ভবনে পাথর এবং রঙ ছোঁড়ে, আর তাছাড়া ইরানের রাষ্ট্রীয় পতাকা নামিয়ে ছিঁড়ে ফেলে. আটক ব্যক্তিদের সম্বন্ধে কিছু জানানো হয় নি.
মঙ্গলবারে রিয়া নোভস্তি সংস্থার খবরে প্রকাশ হয়েছে যে, এই কেন্দ্রের সঙ্গে যুক্ত এক উত্স থেকে খবর পাওয়া গিয়েছে যে, কেন্দ্র বিদ্যুত উত্পাদনের জন্য তৈরী. এই জ্বালানী ভরার কাজ আন্তর্জাতিক পারমানবিক শক্তি নিয়ন্ত্রণ সংস্থার প্রতিনিধিদের সামনেই করা হয়েছে. এর আগে প্রথমে এই পারমানবিক কেন্দ্রের কাজ শুরু হয়েছিল ১৯৭৪ সালে জার্মানীর কোম্পানী ক্রাফ্ট ওয়ার্ক ইউনিয়ন এ. জি. (সিমেন্স/কেডাব্লিউইউ) কোম্পানীর পক্ষ থেকে.
ইরানের কর্তৃপক্ষ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে বিগত সপ্তাহে ইস্লামিক প্রজাতন্ত্রের আকাশ সীমা বারবার লঙ্ঘনের. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে ইরানের “প্রেস-টিভি” টেলি-চ্যানেল, ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি রামিন মেহমনপরস্তের উদ্ধৃতি দিয়ে. ইরান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে আইন এবং আন্তর্জাতিক বিধানের মান পালনের দাবি করেছে. তেহেরান তাছাড়া ইরানের সার্বভৌমত্ব, স্বাধীনতা এবং ভূভাগীয় অখণ্ডতা শ্রদ্ধা করার আহ্বান জানিয়েছে.
সিরিয়ার নেতৃত্বে কে থাকবে, কিছু কিছু দেশের দ্বারা তা মীমাংসার চেষ্টা অগ্রহণীয় বলে মনে করেন রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দমিত্রি মেদভেদেভ. ফ্রান্সের “ফ্রান্স প্রেস” সংবাদ এজেন্সি এবং “ফিগারো” পত্রিকাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে প্রধানমন্ত্রী মনে করিয়ে দেন যে, সিরিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের ভাগ্য মীমাংসা করা উচিত্ খাস সিরিয়ার জনগণেরই.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে সিরিয়ার প্রতিনিধি এই দেশে নিহত হওয়া ১৪৩ জন বিদেশীর তালিকা দিয়েছে, যারা বিরোধী পক্ষের হয়ে লড়াই করছিল. তালিকায় রয়েছে – কাতার, সৌদি আরব, লিবিয়া, আফগানিস্তান, তুরস্ক ও অন্যান্য রাষ্ট্রের নাগরিক. গত মাসে সিরিয়া নিরাপত্তা পরিষদকে ১০৮ জন নিহত হওয়া ভাড়াটে সেনার তালিকা দিয়েছিল, যারা বিরোধী পক্ষের হয়ে যুদ্ধ করছিল.
ইরান “ডি-৮” (মুসলমান দেশগুলির উন্নয়নশীল অষ্টদেশের গ্রুপ) দেশগুলির যৌথ ব্যাঙ্ক গঠনের প্রস্তাব করেছে, জানিয়েছে ইরানের “মেহ্র্” সংবাদ এজেন্সি. উক্ত উদ্যোগ প্রকাশ করেন ইরানের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের প্রধান মাহমুদ বাহমানি অষ্টদেশের সম-পদাধিকারীদের সাথে সাক্ষাতে, যা বৃহস্পতিবার ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিত হয় “ডি-৮” শীর্ষ সম্মেলনের কাঠামোতে.
গাজা সেক্টর ও সিরিয়া – সবচেয়ে টাটকা উদাহরণ, যেখানে নিয়মিত বাহিনীকে প্রতিরোধ করছে কালো বাজারে অস্ত্র যোগাড় করতে পারা গোষ্ঠীরা, এই ধরনের আঞ্চলিক যুদ্ধ বন্ধ করা অথবা অন্তত তা উদ্ভব হওয়া কিছুটা কম করতে পারা অংশতঃ বোধহয় সম্ভব হত, যদি আন্তর্জাতিক ভাবে অস্ত্র ব্যবসায় সংক্রান্ত একটা চুক্তি করতে পারা যেত.
তুরস্ক ন্যাটো জোটের কাছে আবেদন পাঠিয়েছে তার ভূভাগে “প্যাট্রিয়ট” মার্কা রকেট স্থাপনের, যাতে সম্ভাব্য আক্রমণের ক্ষেত্রে তার প্রতিরক্ষা ক্ষমতা সুদৃঢ় থাকে. এ সম্বন্ধে ইসলামাবাদে সাংবাদিকদের বলেছেন তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রেজেপ তাইইপ এর্দোগান. তিনি বলেন, এটি প্রতিরক্ষাত্মক ব্যবস্থা, ন্যাটো জোটের সংবিধির সাথে যার সম্পূর্ণ মিল আছে.
ইরানের রাষ্ট্রপতি মাহমুদ আহমাদিনেজাদ ইস্রাইল এবং “হামাস” আন্দোলনের মাঝে অগ্নি সংবরণের চুক্তি প্রতি সদর্থক মত প্রকাশ করেন. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে পাকিস্তানের টেলিভিশন, যাকে ইস্লামিক প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতি বৃহস্পতিবার ইন্টারভিউ দিয়েছেন. ইন্টারভিউতে সেই সঙ্গে আহমাদিনেজাদ এ চুক্তির ফলপ্রসূতা সম্বন্ধে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন.
বুধ থেকে বৃহস্পতিবারের রাত জুড়ে পাকিস্তানের বেশ কিছু বড় শহরে এক সারি অন্তর্ঘাত হয়েছে, যা করেছে শিয়া মুসলিমদের বিরুদ্ধে সুন্নী চরমপন্থীরা. এই সন্ত্রাসবাদ কাণ্ডে কম করে হলেও ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে. সুন্নী মুসলিমদের শিয়াদের উপরে আক্রমণ বিগত সময়ে পাকিস্তানের জন্য সাধারন ঘটনায় পর্যবসিত হয়েছে.
ইরানের বিরুদ্ধে বল প্রয়োগের হুমকি তেহেরানের সাথে আলাপ-আলোচনার প্রক্রিয়া ক্ষুণ্ণ করে. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকোভ ব্রাসেলসে আন্তর্জাতিক মধ্যস্থ “ছয় দেশের” শেষ বৈঠকের ফলাফলের ভিত্তিতে. একই সঙ্গে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন এ ব্যাপারে যে, ধারাবাহিকতা এবং পারস্পরিকতার মূলনীতি, যার পক্ষে মত প্রকাশ করছে রাশিয়া, ইরানের সাথে আলাপ-আলোচনায় মুখ্য দৃষ্টিভঙ্গী হিসেবে অনুমোদিত হয়েছে.
ইজরায়েল ও প্যালেস্টাইনের হামাস আন্দোলনের মধ্যে এক ভঙ্গুর আপাতঃ শান্তি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে. তা দিয়ে ইজরায়েলের “ধূম স্তম্ভ” অপারেশন, যা ১৪ই নভেম্বর থেকে ইজরায়েলের এলাকায় গাজা সেক্টরের ছোঁড়া রকেটের উত্তরে শুরু হয়েছিল, তা থামিয়েছে. বুধবার সন্ধ্যাবেলায় এই শান্তির বিষয়ে ইজিপ্ট ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতার ফলে সমঝোতা হয়েছে.
ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে আলাপ-আলোচনায় আন্তর্জাতিক মধ্যস্থ “ছয় দেশের” (রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য দেশগুলি এবং জার্মানির) রাজনৈতিক ডিরেক্টররা ২১শে নভেম্বর ব্রাসেলসে সাক্ষাত্ করবেন. এ বৈঠক – ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি সংক্রান্ত সমস্যার মীমাংসা অনুসন্ধানের প্রচেষ্টারই অংশ, বলেছেন ইউরোপীয় কূটনীতির প্রধানের প্রতিনিধি মাইকেল মান.
ইজরায়েল ও প্যালেস্টাইনের হামাস গোষ্ঠীর লোকরা এখনও শান্তি স্থাপন নিয়ে কোনও চুক্তিতে আসতে পারছে না. আরও বেশী করেই তারা বাইরের খেলোয়াড় দলে টানছে. প্যালেস্টাইনের লোকদের স্বার্থ দেখছে ইজরায়েল ও টিউনিশিয়া. আর কাতারের আমীর ঘোষণা করেছে যে, আরব বসন্তের পরে জোট বদ্ধ মুসলিম বিশ্বের উচিত্ এবারে ইজরায়েলকে কড়া জবাব দেওয়া. কিন্তু গাজা সেক্টরে বিরোধের থেকে প্রধানতঃ লাভবান হতে চলেছে ইরান.
ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে “ছয় দেশের” (রাষ্ট্রসঙ্ঘের পাঁচটি স্থায়ী সদস্য দেশ ও জার্মানি) প্রতিনিধি ও ইরানের মাঝে আলাপ-আলোচনার প্রক্রিয়া যেভাবে বিকশিত হচ্ছে তাতে মস্কো উদ্বিগ্ন. মস্কো এ ব্যাপারে বিশেষ করে উদ্বিগ্ন যে, আলাপ-আলোচনার প্রস্তুতি সম্পর্কে পক্ষগুলির বিবৃতির পটভূমিতে এমন যোগাযোগের তারিখ নির্ধারণে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে না.
ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার গাজা অঞ্চলে ইস্রাইলের সামরিক অভিযানের নিন্দে করেছে এবং তেল-আভিভের ক্রিয়াকলাপকে সন্ত্রাসবাদ বলে অভিহিত করেছে. এ সম্বন্ধে বলেছেন ইস্লামিক প্রজাতন্ত্র ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি রামিন মেহমানপরস্ত. তাঁর কথায়, তেহেরান মনে করে ইস্রাইলী সশস্ত্র বাহিনীর ক্রিয়াকলাপ অপরাধজনক. এ হল “শান্তিপূর্ণ অধিবাসীদের হত্যা” এবং “সুসংগঠিত সন্ত্রাসবাদ”, বলেন কূটনীতিজ্ঞ.
রাশিয়া ও ইরানের প্রতিনিধিরা “পাঁচ যুক্ত এক” (রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য দেশগুলি এবং জার্মানি) ফর্মেটে তেহেরান ও আন্তর্জাতিক জনসমাজের প্রতিনিধিদের মাঝে আলাপ-আলোচনা পুনরারম্ভের সম্ভাবনা আলোচনা করেছেন. ইরানের “ইরনা” সংবাদ এজেন্সি জানিয়েছে যে, আলাপ-আলোচনা অনুষ্ঠিত হয় বুধবার তেহেরানে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2012
1
2
3
4
5
11
17
18
19
24
25