×
South Asian Languages:
ইরান, আগষ্ট 2012
বহু মাস ধরেই নিয়মিত ভাবে বিদেশ থেকে আগ্রাসনের হুমকি স্বত্ত্বেও, প্রায় ১২০টি দেশের শীর্ষ নেতৃত্বের উপস্থিতিতে ঐস্লামিক প্রজাতন্ত্র ইরানে জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের শীর্ষ সম্মেলনের আয়োজন নামক বাস্তব ঘটনাটি এমনিতেই সংজ্ঞাবহ.
ইরান কুম শহরের উপকণ্ঠে ভূগর্ভস্থ “ফোর্দো” পারমাণবিক প্রকল্পে ইউরেনিয়াম পরিশোধনের কর্মশালাগুলির ক্ষমতা দু গুণ বাড়িয়েছে. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সির রিপোর্টে.ইউরেনিয়াম পরিশোধনের সেন্ট্রিফিউজগুলির সংখ্যা ২ হাজার পর্যন্ত বেড়েছে, এ বছরের মে মাসে এ সংখ্যাটি ছিল এক হাজার.
পেন্টাগনের পক্ষ থেকে প্রকাশিত বিশ্বের “এক নম্বর সন্ত্রাসবাদী” ওসামা বেন লাদেনের হত্যার যে ঘটনা পরম্পরা ছিল, তা সম্ভবতঃ তথ্যে গরমিল আছে বলে স্বীকৃত হতে চলেছে. বহু বিশেষজ্ঞই, এই ঘটনা পরম্পরার মধ্যে বহু গোঁজামিলের দিকে অঙ্গুলি নির্দেশ করে, মনে করেছেন যে, তা প্রথম থেকে শেষ অবধিই ভেবে বার করা.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন জোট-নিরপেক্ষ আন্দোলনের সদস্য দেশগুলির রাষ্ট্র ও সরকারের নেতাদের কাছে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন, ইরানে এ আন্দোলনের ষোড়শ শীর্ষ সাক্ষাত্ অনুষ্ঠিত হচ্ছে. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির তার-বার্তায় উল্লেখ করা হয়েছে যে, এ সাক্ষাত্ অনুষ্ঠিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক সম্পর্কের দিক থেকে এক অসহজ সময়ে. বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক সঙ্কট বিভিন্ন ধরণের সমস্যা উত্থাপন করছে, যৌথভাবে যা মীমাংসা করা দরকার.
জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের সদস্য দেশ গুলির নেতৃত্ব ছয় দিন ব্যাপী শীর্ষ সম্মেলন শেষ করছেন দেশ গুলির শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের বৈঠক দিয়ে. ১০০রও বেশী দেশের প্রতিনিধিরা ইরান এসেছেন, তাদের মধ্যে ৩৬ জন রাষ্ট্রপতি, উপ রাষ্ট্রপতি অথবা প্রধানমন্ত্রী. এত শীর্ষ স্থানীয় প্রতিনিধিত্ব এর মধ্যেই বলতে দিয়েছে যে, শীর্ষ সম্মেলন সফল হয়েছে, তার পরিনাম যাই হোক না কেন, এই কথাই উল্লেখ করেছেন বিশেষজ্ঞরা.
মিশরের রাষ্ট্রপতি মুহম্মেদ মুর্সি বৃহস্পতিবার তেহেরানে পৌঁছেছেন জোট-নিরপেক্ষ আন্দোলনের শীর্ষ সাক্ষাতে অংশগ্রহণের জন্য, জানিয়েছে স্থানীয় টেলিভিশন. মিশরের রাষ্ট্রনেতার প্রতিনিধি আগে জানিয়েছিলেন যে, মুর্সি ইরানে থাকতে চান “মাত্র কয়েক ঘণ্টা”. আশা করা হচ্ছে যে, তেহেরানে মুর্সি সাক্ষাত্ করবেন দেশের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতোল্লা হামেনেই-এর সাথে, তাঁর সাথে আলোচনা করবেন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের প্রশ্ন এবং আঞ্চলিক সমস্যাবলি.
ইরানের উদ্যোগে জোট-নিরপেক্ষ আন্দোলনের একসারি দেশ সিরিয়ায় সঙ্কটের মীমাংসা অনুসন্ধানের জন্য গ্রুপ গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে. এ সম্বন্ধে বুধবার ঘোষণা করেছেন ইস্লামিক প্রজাতন্ত্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি আকবর সালেহি.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন সমস্ত দেশকে আহ্বান জানিয়েছেন সিরিয়ায় সঙ্ঘর্ষে অংশগ্রহণকারীদের অস্ত্র সরবরাহ বন্ধ করার. তেহেরানে ইরানের নেতৃবৃন্দের সাথে সাক্ষাতের সময় তিনি এ বিবৃতি দেন. একসারি প্রচার মাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, দামাস্কাস অস্ত্র পাচ্ছে ইরান থেকে, অন্যদিকে বিরোধীপক্ষের যোদ্ধাদের অস্ত্র সরবরাহ করছে কাতার এবং সৌদি আরব.এ দেশগুলি সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ-কে তাঁর পদ থেকে অপসারণের চেষ্টা করছে.
আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সি ইরান সম্পর্কে বিশেষ ওয়ার্কিং গ্রুপ – “ইরান টাস্ক ফোর্স” গঠনের কথা ঘোষণা করেছে.তা ইরানের পারমাণবিক সমস্যা নিয়ে আলাপ-আলোচনার প্রক্রিয়ায় অর্জিত সমঝোতার বাস্তবায়ন নিয়ে কাজ করবে. এইভাবে, আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সি ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচির উপর নিয়ন্ত্রণ বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে এবং এ দেশে যাতে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি না হয়, জানিয়েছে “এ.
ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনা গোটা অঞ্চলের স্থিতিশীলতা বিপন্ন করছে. এমন দৃষ্টিভঙ্গী প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিনা রাব্বানি হার, যিনি অংশগ্রহণ করছেন ইরানের রাজধানী তেহেরানে বুধবার শুরু হওয়া জোট-নিরপেক্ষ আন্দোলনের সদস্য দেশগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন তেহেরানে জোট-নিরপেক্ষ আন্দোলনের শীর্ষ সাক্ষাতে অংশগ্রহণের জন্য, এ সফরে না যাওয়ার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইস্রাইলের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও.
পশ্চিমী কূটনীতিজ্ঞরা সিরিয়াকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল দেশে সঙ্কট মীমাংসা করার, এই শর্তে যে, দামাস্কাস ইরানের সাথে, লেবাননের হেজবুল্লা আন্দোলন এবং প্যালেস্টাইনী হামাস আন্দোলনের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করুক. এ সম্বন্ধে লিখেছে বৃটিশ পত্রিকা “ইন্ডিপেন্ডেন্ট” সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়ালিদ মুয়াল্লেমের উদ্ধৃতি দিয়ে. মুয়াল্লেম সঙ্কট মীমাংসায় দামাস্কাসকে সাহায্যের প্রস্তাব করা কূটনীতিজ্ঞদের দেশ ও পদের কথা জানান নি.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইরান সহ একসারি দেশের অংশগ্রহণে বিশেষ কমিটি গঠন সম্পর্কে মিশরের রাষ্ট্রপতি মুহাম্মেদ মুর্সির উদ্যোগ সমর্থন করে নি. এ সম্বন্ধে ওয়াশিংটনে এক ব্রিফিংয়ে বলেছেন মার্কিনী পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া নুল্যান্ড. তাঁর কথায়, সিরিয়া সঙ্কট মীমাংসায় ইরানের অংশগ্রহণ সিরিয়ায় শান্তি ও স্থিতিশীলতা আনবে না, কারণ তেহেরান বাশার আসদের শাসনকে সমর্থন করছে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র চেষ্টা করছে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র নীতিতে সেই দেশের প্রজাতিগত বিরোধকে কাজে লাগিয়ে প্রভাব বিস্তার করতে আর এই কারণে বেলুচিস্তানে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মদত দিচ্ছে.
ইজিপ্ট পররাষ্ট্র নীতিতে প্রাথমিক বিষয় গুলিকে সংশোধন করছে. রাষ্ট্রপতি মুহাম্মেদ মুর্সি তাঁর প্রথম রাষ্ট্রীয় সফর করতে চলেছেন এক ঐস্লামিক রাষ্ট্র নয় এমন দেশে – চিনে (২৮ – ৩০ আগষ্ট). এটা হতে চলেছে পূর্ববর্তী ইজিপ্টের নেতৃত্বের ঐতিহ্যের বদলে, যা অনেকটাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ও পশ্চিমের দেশ গুলির সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধির দিকেই অনেকখানি লক্ষ্য করে থাকত. মুহাম্মেদ মুর্সির সফরকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেওয়া হয়েছে.
এ সপ্তাহের জন্য পরিকল্পিত ইরান সফরের সময় রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন ঐ দেশের পারমাণবিক প্রকল্প পরিদর্শন করবেন না. এ সম্বন্ধে সাংবাদিকদের বলেছেন সাধারণ সম্পাদকের সরকারী প্রতিনিধি মার্টিন নেসিরকি.
ভারত, ইরান ও আফগানিস্তান ইরানের চাবাহার বন্দরের প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ঘটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে. তেহরানে জোটনিরপেক্ষ আন্দোলন সংস্থার সম্মেলন শুরু হওয়ার ঠিক আগে ঐ ৩ দেশ তিনপাক্ষিক কার্যকরী কমিটি গঠণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে. ঐ কমিটি আগামী ৩ মাসের মধ্যে কর্তব্য ও কাজের অভিমুখ নির্ধারণ করবে. ইরান ঐ বন্দরের উন্নতিকল্পে ৩৪ কোটি ডলার ব্যয় করবে. ভারত ঐ প্রকল্পে ৫,৫-৭ কোটি ডলার লগ্নি করবে.
ইরান, ভারত ও পাকিস্তানের কর্তৃপক্ষ এক ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে. যার লক্ষ্য হবে অর্থনীতির ক্ষেত্রে সহযোগিতা বিকাশ করা, সোমবার জানিয়েছে ইরানের সরকারী প্রচার মাধ্যম. তার তথ্য অনুযায়ী, এ তিন দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মীরা এ সমঝোতায় এসেছে ইরানের দক্ষিণ-পুবে চাখবেহারে শহরে ত্রিপাক্ষিক সাক্ষাতের পরে.
জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনের ১৬-তম শীর্ষ সম্মেলন তেহেরানে শুরু হওয়ার আগে কেচ্ছা হওয়ার আশঙ্কা ছিল. উত্তেজনা বেড়েছিল আমন্ত্রিতদের তালিকা নিয়ে, বিশেষতঃ যখন জাতিসংঘের সাধারন সম্পাদক ঘোষণা করেছিলেন, যে তিনিও আসবেন. ইরানে শীর্ষ সম্মেলন শুরু হয়েছে সরকারীভাবে ২৬শে আগস্ট, কিন্তু যোগদানকারীরা সোমবার থেকে কাজ শুরু করেছেন. পান কি মুন শেষপর্যন্ত জোটনিরপেক্ষ সম্মেলনে যাবেন. ইস্রায়েল ও ইউরোপীয় সংস্থাগুলির আপত্তি সত্ত্বেও তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন.
ইরানের কর্তৃপক্ষ মিশরের রাষ্ট্রপতি এবং অন্য কিছু দেশের নেতাদের নিজের পারমাণবিক প্রকল্পগুলি দেখানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে ইরানের পার্লামেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্রনীতি সংক্রান্ত কমিটি. বিশেষ করে, মুর্সি-কে দেখানো হবে নাতানজে এবং ইস্ফাহানে পারমাণবিক প্রকল্পগুলি, যেখানে ইউরেনিয়াম পরিশোধন করা হয়, এবং তাছাড়া বুশের পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্র.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
আগষ্ট 2012
ঘটনার সূচী
আগষ্ট 2012
2
4
5
11
20
26