×
South Asian Languages:
ইরান, জানুয়ারী 2012
২০১২ সাল আন্তর্জাতিক কূটনীতির পক্ষে জটিল বছর হতে চলেছে. নিকট প্রাচ্য ও আফ্রিকার উত্তরে বিরোধের আগুণ নেভানো সম্ভব হচ্ছে না. একই সঙ্গে হচ্ছে না এই পরিবর্তনের পরিণতির মূল্যায়ণও. কিন্তু কিছু দেশের জন্য একই সঙ্গে – যেমন, রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, ইরান, ইজিপ্ট – ২০১২ সাল, এটা নির্বাচনের বছর.
ইরান সিরিয়াতে হওয়া রাজনৈতিক সংশোধনকে সমর্থন করেছে, আর একই সঙ্গে সিরিয়াতে যে কোন ধরনের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশী হস্তক্ষেপের সমালোচনা করেছে. এই বিষয়ে ইথিওপিয়া দেশের রাজধানী আদ্দিস আবাবা শহরে আফ্রিকা সঙ্ঘের সদস্য দেশ গুলির শীর্ষ সম্মেলনে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী আলি আকবর সালেখি ঘোষণা করেছেন.
ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রধান আলি আকবর সালেখি এই ঘোষণা করেছেন বলে "নিউইয়র্ক টাইমস" সংবাদ পত্র প্রকাশ করেছে সোমবার. সালেখি ঘোষণা করেছেন যে, তিনি "ইতিবাচক ভাবেই" এই সংস্থার প্রতিনিধি দলের সফরের দিতে তাকিয়ে আছেন ও যদি তাঁরা চান, তাহলে তাঁদের ইরানের থাকার মেয়াদ তিন দিনের চেয়ে বেশী বাড়িয়ে দেওয়া হবে.
"আন্নাপোলিস" নামের পারমানবিক ডুবোজাহাজ ও "মমসেন" নামের মাইন ছোঁড়া জাহাজ সুয়েজ প্রণালী হয়ে লোহিত সমুদ্রে গিয়েছে. এই বিষয়ে খবর দিয়েছে সোমবার ইজিপ্টের খবরের ইন্টারনেট পোর্টাল "আলিয়ামাত". ভূমধ্যসাগর থেকে লোহিত সমুদ্রে এই জাহাজ গুলির সুয়েজ প্রণালী দিয়ে যাওয়ার সময়ে কর্তৃপক্ষ খুবই কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছিল.
আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার হুমকি স্বত্ত্বেও ইসলামাবাদ ইরান- পাকিস্তান গ্যাস পাইপ লাইন প্রকল্প থেকে হঠে যাবে না, এই ঘোষণা পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তরের সরকারি মুখপাত্র আবদুল্লা বশিট করেছেন. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি  ভানেত্সভ. ইরানের থেকে পাকিস্তান গ্যাস পাইপ লাইন বসানো প্রকল্পের ভাগ্য খুব একটা সহজ নয়. গত শতকের নব্বইয়ের দশকেই এই নিয়ে কথা শুরু হয়েছিল.
রবিবারে ইরানের মন্ত্রী আহমেদ কালেখবানি এই রকমের ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন. ইউরোপীয় সঙ্ঘ ২৩ শে জানুযারী এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ও ইরানের খনিজ তেলের উপরে নিযেধাজ্ঞা বহাল করেছে, তারা ইরানকে নিজেদের জাতীয় পারমানবিক পরিকল্পনা সম্বন্ধে বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর স্পষ্ট করে না দেওয়া ও বিশেষত তাদের এই ক্ষেত্রে সামরিক উদ্দেশ্য না জানানোর দোষে অভিযুক্ত করেছে.
আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থার(আইএইএ)একটি পরিদর্শকদল আজ রোববার ইরানের রাজধানী তেহরান পৌঁছেছে।ইরানি বার্তা সংস্থা ইরনা এ সংবাদ জানিয়েছে।খবরে
পাকিস্তানের সেনেট সদস্যরা দেশের সামরিক বাহিনীকে আমেরিকার ড্রোন ধ্বংস করতে আহ্বান করেছেন, যা তাঁদের দেশের বায়ু সীমান্ত লঙ্ঘণ করে ঢুকবে. তাঁরা একই সঙ্গে দাবী করেছেন পাকিস্তানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সমস্ত বিমান ঘাঁটি বন্ধ করে দেওয়ার. সেনেট সদস্যদের আহ্বানে বিশেষ করে উল্লেখ করা হয়েছে যে, এই ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে দেশের পার্লামেন্ট ও জনগনের সিদ্ধান্ত হিসাবে, আর তা পূর্ণ করতেই হবে.
প্রধান ইউরোপীয় ব্যাঙ্কগুলি ইরানকে দানাশষ্য সরবরাহের জন্য সমস্ত রকমের আর্থিক লেনদেন বন্ধ করেছে, এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন ইউরোপীয় সঙ্ঘের বাণিজ্য সংক্রান্ত পরিষদের প্রতিনিধিরা. জানিয়েছে ইন্টারফ্যাক্স সংস্থা. এর ফলে ইরানের সঙ্গে ব্যাঙ্ক ব্যবস্থার মাধ্যমে বাণিজ্য করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে. ইরানের ক্রেতারা চেষ্টা করছেন সরাসরি দাম দিতে, কিন্তু বড় মাপের দাম দেওয়ার ক্ষেত্রে এটা করা যাচ্ছে না.
রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে এই খবর দেওয়া হয়েছে. আফগানিস্তান নিয়ে আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থার এটি পঞ্চম সম্মেলন হতে চলেছে. ২৬ – ২৭ মার্চ এখানে নতুন রেল পথ নির্মাণ নিয়ে কথা হবে, যা মধ্য এশিয়াকে ইরান ও পাকিস্তানের সঙ্গে যুক্ত করবে আফগানিস্তানের মধ্য দিয়ে. এই খবর আগে জানিয়েছিলেন তাজিকিস্থানের পররাষ্ট্র দপ্তরের এশিয়া ও আফ্রিকা বিভাগের প্রধান আর্দাশের কাদিরি.
তেহরানে আইন গ্রহণ করা হচ্ছে, যাতে অবিলম্বে ইরানের খনিজ তেল ইউরোপীয় সঙ্ঘকে রপ্তানী করা বন্ধ হয়, এমনকি ইউরোপীয় সঙ্ঘের পক্ষ থেকে ১লা জুলাই থেকে নিষেধাজ্ঞা কার্যকরী হওয়া শুরুর আগেই. এই বিষয়ে মন্তব্য করেছেন ভ্লাদিমির সাঝিন.
ভারত ও পাকিস্তান তুর্কমেনিয়া থেকে আসা গ্যাসের ট্রানজিটের মূল্য বিষয়ে সমঝোতায় আসার কাছে পৌঁছেছে ও সম্মিলিত ভাবে স্ট্র্যাটেজি তৈরী করছে এই মধ্য এশিয়ার দেশের গ্যাস উত্তোলন খনি গুলিতে নিষ্কাশনের ও আমদানীর কাজের জন্য. এই বিষয়ে দিল্লীতে ভারতের খনিজ তেল ও গ্যাস মন্ত্রী জয়পাল রেড্ডী ও তাঁর পাকিস্তানের সহকর্মী আসিম হুসেইনের বৈঠকের পরে আয়োজিত যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করা হয়েছে.
জাতিসংঘের সাধারন সম্পাদক বান কি মুন সমস্ত আগ্রহীপক্ষের কাছে ইরানকে ঘিরে উত্তেজনা কমানোর ও শান্তিপূর্ণ উপায়ে সমস্যার নিষ্পত্তি করার আহ্বাণ জানিয়েছেন. তার ভাষ্য হল, সমস্যার শান্তিপূর্ণ পথে সমাধানের কোনো বিকল্প নেই.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা কংগ্রেসের উদ্দেশ্য বাত্সরিক ভাষণ দিয়েছেন- নভেম্বর মাসের নির্বাচনের আগে এটাই তাঁর শেষ কংগ্রেস সদস্যদের উদ্দেশ্য করে বক্তৃতা. পররাষ্ট্র নীতি সম্বন্ধে তাঁর ভাষণে সময় দেওয়া হয়েছিল সংক্ষেপে, কিন্তু ইরানের জায়গা আলাদা করে রাষ্ট্রপতির ভাষণে মিলেছে. ওবামা ঘোষণা করেছেন যে, আমেরিকা খুবই জোর দিয়েছে, যাতে ইরানের পক্ষে পারমানবিক অস্ত্র পাওয়া সম্ভব না হয়.
বারাক ওবামা ঘোষণা করেছেন, যে ইরানের পারমানবিক অস্ত্র বানানোর প্রয়াসে আমেরিকা সর্বোতভাবে বাধা দেবে এবং সে দেশের সরকারের উপর চাপ সৃস্টি করার জন্য বিধিনিষেধ আরও কড়া করতে থাকবে. “ইরানের দিকে তাকিয়ে দেখুন. আমাদের কূটনৈতিক প্রয়াসের সুবাদে বিশ্ব, যা আগে বিভক্ত ছিল এবং তর্ক হোত ইরানের পারমানবিক প্রকল্প নিয়ে, অতঃপর জোট বেঁধেছে.
ওয়াশিংটনের ইরান বিরোধী রাজনীতি, যার প্রয়োগে সম্ভব হয়েছে ইরানের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক ও বিনিয়োগ সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা গ্রহণ করা, তা এই দেশ ও তার খনিজ তেলের গ্রাহক দেশ গুলিকে এড়িয়ে যাওয়ার পথ খুঁজতে বাধ্য হতে. বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.     ইরান বর্তমানে ২৫ লক্ষ ব্যারেলের বেশী খনিজ তেল রপ্তানী করে.
গতকাল বিশ্বের সর্বত্র পেট্রোলের দাম বেড়েছে. ইউরোপীয় সংঘ ইরান থেকে খনিজতেল আমদানীর উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করার পরিপ্রেক্ষিতেই এটা ঘটেছে. নিউ-ইয়র্কের স্টক এক্সচেঞ্জে আমেরিকার ডব্লু.টি.আই মার্কা পেট্রোলের ফিউচার্সের দাম বেড়ে ব্যারেল প্রতি ৯৯,৫৮ ডলারে গিয়ে পৌঁছেছে.
ইরানের উপর চাপ বাড়ানোর উদ্দেশ্যে ওয়াশিংটন ইরানের বিরূদ্ধে বিধিনিষেধ আরও কড়া করতে দৃঢ়সংকল্প. গতকাল মার্কিনী রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা এই উক্তি করেছেন. তিনি ইউরোপীয় সংঘ কতৃক জারী করা ইরানের বিরূদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞাবলীকেও স্বাগত জানিয়েছেন. ওবামা উল্লেখ করেছেন, যে সোমবারে ইউরোপীয় সংঘ কতৃক আরোপীত ইরানের বিরূদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞাবলী আন্তর্জাতিক জনসমাজের ইরানের পারমানবিক প্রকল্পের বিপজ্জনক ধারার বিরূদ্ধে যথাযুক্ত প্রত্যুত্তর দেওয়ার সংকল্পের প্রমাণ দেয়.
কিছু সংবাদ মাধ্যমের কাছ থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী বিগত কয়েক বছর ধরে নিকট প্রাচ্যে যুদ্ধের কাজে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশেষ করে প্রশিক্ষিত ডলফিন ব্যবহার করছে. আমেরিকার লোকেরা বলছে যে, এই জীব গুলি আমেরিকার সেনা বাহিনীর সাধারন সৈনিকের তুলনায় ইরাকের সমুদ্র তীরের কাছে বেশ কয়েক শো ইরাকের সৈন্য বেশীই হত্যা করেছে.
ফ্রান্স প্রেস সংবাদসংস্থা জানাচ্ছে, যে আজ ব্রাসেলসে ইউরোপীয় সংঘের ২৭টি সদস্য দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা ইরান থেকে খনিজতেল আমদানী করার উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করেছে. ইতিপূর্বে ব্রাসেলসে কূটনৈতিক সূত্র জানায়, যে নতুন নিষেধাজ্ঞার আওতায় ইউরোপীয় সংঘের সব সদস্য দেশ, যারা ইরান থেকে খনিজতেল আমদানী করে, তারা ১লা জুলাইয়ের মধ্যে সমস্ত আমদানী বন্ধ করবে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
8
15
28