×
South Asian Languages:
মালি, 2013

যখন হোয়াইট হাউসের থেকে পাঠানো দূতেরা ও আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি খুবই কড়া ভাষায় একে অপরের সঙ্গে আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা নিয়ে চুক্তির বিষয়ে সময় ও শর্ত নিয়ে আলোচনায় মত্ত, তখনই বিশেষজ্ঞরা অনুমান করতে বসেছেন যে, কি করে এই দরাদরি আফগানিস্তানের অন্যান্য জীবন যাপনের ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলবে.

কাবুলে কিছু বিশেষজ্ঞ ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছেন যে, আফগানিস্তানের লোকদের এই চুক্তির একেবারেই কোন দরকার নেই, কারণ দেখাই যাচ্ছে যে, আমেরিকার লোকরা আফগানিস্তানকে কিছুই দেয় নি, শুধুমাত্র সেই দেশে মাদক দ্রব্য উত্পাদনের বিষয়ে তুমুল পরিমাণে অগ্রগতি ছাড়া. আরও একদল মনে করেছেন যে, এই চুক্তির আবার কিছু ইতিবাচক দিকও রয়েছে, যা ব্যবহার করা দরকার.

এই এলাকার কয়েকটি দেশের মধ্যে এলাকা সংক্রান্ত বিরোধ থাকলেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ফিলিপাইনস চায় এখানের সমুদ্রে অবাধ জাহাজ চলাচলের ব্যবস্থায় সহায়তা করতে. এই বিষয়ে শনিবারে খবর দিয়েছে ফ্রান্স প্রেস সংস্থা, মার্কিন সামরিক বাহিনীর প্রধান মার্টিন ডেম্পসি ও তাঁর ফিলিপাইনসের সহকর্মী এমানুয়েল বাতিস্তুতার মধ্যে আলোচনার পরে.

মালির রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইব্রাহিম বৌবাকার কেইটা জয়ী হয়েছেন। দ্বিতীয় পর্বের ভোটের পর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী সাবেক অর্থমন্ত্রী সৌমালিয়া সিসি নিজের পরাজয় মেনে নেওয়ার পর কেইটাকে বিজয় হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী নেটওয়ার্ক “আল-কায়দা” পরিকল্পনা করেছে সিরিয়ার উত্তরের এলাকা থেকে বিরোধী মুক্তি বাহিনীকে কোনঠাসা করার আর সেখানে ঐস্লামিক রাষ্ট্র সৃষ্টির ঘোষণা করার. এই বিষয়ে সিরিয়ার জঙ্গীদের প্রতিনিধি আরব “আশ-শার্ক আল-আউসাত” সংবাদপত্রকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে বলেছেন. সিরিয়ার মুক্তি বাহিনী নিজেদের অবস্থান ঐস্লামিকদের ছেড়ে দিতে রাজী নয়. কিন্তু একই সঙ্গে দুটি ভিন্ন ফ্রন্টে যুদ্ধ চালানোর ক্ষমতাও তাদের নেই.
২০শে জুন বিশ্ব উদ্বাস্তু দিবস পালিত হচ্ছে. রাষ্ট্র সঙ্ঘের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে বর্তমানে নথিভুক্ত রয়েছেন প্রায় ২ কোটি মানুষ, যাঁরা বাধ্য হয়েছেন নিজেদের দেশ ছেড়ে যেতে, আর প্রায় আড়াই কোটি মানুষ নিজেদের দেশের ভিতরেই এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় চলে যেতে বাধ্য হয়েছেন. এটা গত ১৮ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশী সংখ্যা.
পশ্চিম আফ্রিকার রাষ্ট্র মালির সরকারের পক্ষে দেষের জঙ্গীদের সঙ্গে বোঝাপড়ায় আশা সম্ভব হয়েছে, যার ফলে এই দেশে মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করা সম্ভব হবে. এই খবর 'জি৮' সম্মেলন শেষে দেওয়া সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে জানিয়েছেন ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ফ্রান্সুয়া ওল্ল্যান্দ. মনে করিয়ে দেওয়া যেতে পারে যে, প্রাক্তন ফরাসী উপনিবেশ মালিতে কট্টর পন্থীদের সঙ্গে লড়াইয়ের সময়ে সেনা পাঠিয়েছে ফ্রান্স.
মালি-তে রাষ্ট্রপতির নির্বাচন নির্ধারণ করা হয়েছে ২৮শে জুলাই, জানিয়েছে “ফ্রান্স প্রেস” সংবাদ এজেন্সি, সোমবার দেশের সরকারের দ্বারা গৃহীত খসড়া আইনের উদ্ধৃতি দিয়ে. মালি-র মন্ত্রী পরিষদ দেশের পুরো ভূভাগে রাষ্ট্রপতির নির্বাচন আয়োজনের জন্য ২০১৩ সালের ২৮শে জুলাই নির্বাচক কলেজিয়াম আহ্বানের খসড়া আইন গ্রহণ করেছে.
সিরিয়া বা মালি রাষ্ট্রের ঘটনার সঙ্গে সুইডেনের রাজধানী বা শহরতলির শৃঙ্খলা ভঙ্গের কি যোগাযোগ থাকতে পারে? কয়েকজন বিশেষজ্ঞরে মতে, এই ধরনের যোগাযোগ রয়েছে, আর তা একেবারেই স্পষ্ট দেখতে পাওয়া যাচ্ছে, যদিও পশ্চিম তা স্বীকার করার জন্য তাড়াহুড়ো করছে না. আমাদের সমীক্ষক ইভগেনি এরমোলায়েভ যেমন মনে করেন যে, কারণটা হল যে, সঙ্কট বিদীর্ণ দেশ গুলি তাদের অস্থিতিশীলতাকেই বিশ্বের সর্বত্র রপ্তানী করছে.
মালির উত্তরাঞ্চলে ইসলামপন্থী বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ফ্রান্সের চারমাসের সামরিক অভিযান শেষ হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে দেশটি থেকে ফরাসি সৈন্য সরিয়ে
নিগের রাষ্ট্রের দক্ষিণ-পশ্চিমে মালিতে যুদ্ধে পাঠানো হবে আফ্রিকা সঙ্ঘের হয়ে এই সব যোদ্ধাদের, তাদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে তিরিশজন মার্কিন সামরিক প্রশিক্ষক. নিগের রাষ্ট্রের নিরাপত্তা বাহিনী থেকে পাওয়া খবর বলে বৃহস্পতিবারে জানিয়েছে ইন্টারফ্যাক্স সংবাদ সংস্থা.
রাশিয়া মনে করে যে, সমস্ত কাজ ও প্রক্রিয়া বৃহস্পতিবারে তৈরী হওয়া রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের মালির স্থিতিশীলতা অর্জনের জন্য মিশন শুধুমাত্র এই দেশের সরকারের সহযোগিতা করার জন্যই কাজ করবে. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন, তিনি এই কথা নিরাপত্তা পরিষদে এই বিষয়ে ভোটে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই বলেছেন.
ফ্রান্স প্রেস সংবাদসংস্থা জানাচ্ছে, যে ফ্রান্স মালির উত্তরাঞ্চলে গাও শহরের কাছে ঘাঁটি গাড়া ও ‘আল-কায়িদা’র সাথে সংযুক্ত ইসলামী গোষ্ঠীগুলির বিরুদ্ধে বড়সড় সামরিক অভিযান শুরু করেছে. ‘গুস্তাভ’ সাঙ্কেতিক নামে এই অভিযানে বহু ডজন সাঁজোয়া গাড়ি, হেলিকপ্টার ও ড্রোন ব্যবহার করা হচ্ছে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের “সহস্রাব্দের নতুন লক্ষ্য” পরিকল্পনার প্রথম অধ্যায় শেষ হওয়ার জন্য বাকী রয়েছে ১০০০ দিন. ২০০০ সালে এক সিদ্ধান্ত ঘোষণা গ্রহণ করে একটি মুখ্য কাজ বলে বলা হয়েছিল চরম নিঃস্বতা অতিক্রম করাকে – সেই পরিস্থিতিকে, যখন বিশ্বের বহু কোটি মানুষ দারিদ্র সীমার নীচে বাস করছেন.
মালির সরকার ও রাশিয়ার ‘রসওবোরনএক্সপোর্ত’ অদূর ভবিষ্যতে মালিতে সামরিক প্রযুক্তি, আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদ সরবরাহ করার জন্য চুক্তি স্বাক্ষর করতে পারে. মঙ্গলবার রাশিয়ার ‘ভেদোমস্ত’ সংবাদপত্র এই সম্পর্কে লিখেছে. নিজের সেনাবাহিনীর জন্য অস্ত্রের ফরমায়েশ মালি ইতিমধ্যেই মস্কোয় পাঠিয়েছে. মালির রাষ্ট্রীয় সামরিক বাহিনী দেশের উত্তরাঞ্চলে বিদ্রোহী ইসলামীদের বিরুদ্ধে লড়ছে ফরাসী ও একসারি আফ্রিকান দেশের ফৌজের সাথে একত্রে.
ইউরোপের লোকরা এবারে ভয় পেয়েছে. গ্রেট ব্রিটেন, ফ্রান্স ও ইউরোপীয় সঙ্ঘের বহু দেশের পাসপোর্ট হাতে থাকা বহু শত মুসলিম লোক, যারা এখন সিরিয়াতে চরমপন্থীদের মধ্যে যুক্ত হয়ে যুদ্ধে লিপ্ত হয়েছে, তারা অদূর ভবিষ্যতে ইউরোপে ফিরে আসতে পারে. এই ধরনের সাবধান বাণী গ্রেট ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের রিপোর্টে করা হয়েছে.
নিরাপত্তা পরিষদের ঠিকানায় পাঠানো বার্তায় জাতিসংঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন লিখেছেন, যে বর্তমানে মালিতে মোতায়েন আফ্রিকান সংঘের সশস্ত্র শক্তিকে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষক বাহিনীতে পরিণত করা যেতে পারে, যেখানে ১১ হাজারেরও বেশি সামরিক কর্মী থাকবে.
ফ্রান্সুয়া অল্যান্দের কথামতো, জানুয়ারী মাসে শুরু হওয়া মালি রাষ্ট্রে ফরাসী অনুপ্রবেশ খুবই গুরুত্বপূর্ণ ফল দিয়েছে. অংশতঃ, সম্ভব হয়েছে দেশের প্রধান শহরগুলিতে নিয়ন্ত্রণ ফিরিয়ে আনার ও ঐস্লামিক জঙ্গী গোষ্ঠীকে দেশের দক্ষিণের দিকে তাড়িয়ে নিয়ে যাওয়া. এপ্রিল মাসে ফরাসী সরকার স্থির করেছে মালি থেকে বাহিনী প্রত্যাহার করার.
আল-কায়িদার আঞ্চলিক শাখা মালিতে ফরাসী পণবন্দীকে খুন করার কথা জানিয়েছে. ইসলামী মাগ্রিবের আল-কায়িদা গোষ্ঠী জানিয়েছে, যে ফরাসী ব্যবসায়ী ফিলিপ ভের্দোঁ, যাকে মালিতে ২০১১ সালে অপহরন করা হয়েছিল, তাকে তারা খুন করেছে. সন্ত্রাসবাদীরা জোর দিয়ে বলছে, যে মালিতে ফ্রান্সের অনুপ্রবেশের বদলা হিসাবে তারা এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে.
মালিতে ইসলামীরা তাদের পান্ডা আবদেলহামিদ আবু জেইদের নিহত হওয়ার খবরের সত্যতা স্বীকার করেছে, তবে তাদের আর এক শিখন্ডী মোক্তার বেলমোক্তার জীবিত আছে বলে দাবী করছে. গত সপ্তাহে ইফোঘাস পাহাড়ে ফরাসী বোমাবর্ষনের ফলে আবু জেইদ নিহত হয়েছে বলে আল-কায়িদার বেনামী এক প্রতিনিধির সূত্র ধরে সাহারা মেডিয়াস সংবাদসংস্থা এই খবর জানিয়েছে. তার কথায়, বেলমোক্তার জীবিত ও লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2013
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2013
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
29
31