×
South Asian Languages:
রাশিয়া- ভারত, সেপ্টেম্বর 2013

শুরু করছি আমাদের পাক্ষিক অনুষ্ঠান ‘রাশিয়ার আদ্যোপান্ত’. এই অনুষ্ঠানে আমরা আপনাদের রাশিয়া সম্পর্কে পাঠানো প্রশ্নাবলীর উত্তর দিয়ে থাকি.

রাশিয়ার সামরিক নৌবাহিনী প্রযুক্তির অধুনাতম নমুনা ভারতের কোচিন বন্দরে আয়োজিত প্রথম সামরিক- নৌবাহিনী প্রদর্শনী “নেমেকস্পো-২০১৩” উপলক্ষে ২৩ থেকে ২৭শে সেপ্টেম্বর দেখাতে চলেছে. “রসআবারোনএক্সপোর্ট” কোম্পানীর উদ্যোগে ভারতে নিজেদের প্রযুক্তি প্রদর্শনী করবার জন্য নিয়ে গিয়েছে রাশিয়ার সংযুক্ত জাহাজ নির্মাণ কর্পোরেশন – সামুদ্রিক প্রযুক্তি নির্মাণ ব্যুরো “রুবিন”, কোম্পানী “মালাখিত”, বৈজ্ঞানিক- উত্পাদন জোট “মার্স”.

ভারতের নৌবাহিনীর কাছে “বিক্রমাদিত্য” (রাশিয়ার প্রাক্তন ক্রুজার “অ্যাডমিরাল গর্শকোভ”) বিমানবাহী জাহাজ আগামী ১৫ নভেম্বর হস্তান্তর করা হবে। রণতরীটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘সেভমাশ’ এর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ভারত বর্তমানে প্রস্তাব জমা করছে. এই দেশ ঠিক করেছে পঞ্চাশের বেশী কাছাকাছি দূরত্বে কাজের উপযুক্ত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার. খুবই আসন্ন সময়ে এই জন্য টেন্ডার ডাকা হতে চলেছে. “রসআবারোনএক্সপোর্ট” কোম্পানী সম্ভবতঃ পর্যালোচনার জন্য দুটি রাশিয়ার ব্যবস্থা প্রস্তাব করতে চলেছে – “আলমাজ-আন্তেই” কনসার্নের প্রস্তুত করা আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা “তোর-এম২এ”, আর জেনিথ রকেট –কামান কমপ্লেক্স (জেএরপেকা) “পান্তসির-এস১”.

রাশিয়া সামরিক প্রযুক্তি ক্ষেত্র, পারমানবিক শক্তি সহ সমস্ত দিকেই ভারতের সঙ্গে সহযোগিতা বৃদ্ধি করতে আগ্রহী. এই বিষয়ে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকার দেশগুলির সংবাদ মাধ্যমের সংগঠনের সাধারণ সভায় সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাত্কার করতে গিয়ে রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ উল্লেখ করেছেন.

ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী এ. কে. অ্যান্টনির নেতৃত্বে সামরিক ক্রয়ের পরিষদ রাশিয়ার কাছ থেকে ২৩৫টা টি-৯০এস ট্যাঙ্ক তৈরীর জন্য ৯৫ কোটি ডলার অর্থমূল্যের লাইসেন্স চুক্তি করতে চলেছে. এই বিষয়ে ভারতের “হিন্দুস্থান টাইমস” সংবাদপত্রে খবর দেওয়া হয়েছে.

‘ভারতের শিল্পীরা রাশিয়াকে আঁকছে’ – এই নামের বাত্সরিক সৃজনশীল শিবিরের প্রদর্শনী শুরু হয়েছে দিল্লীতে. এবারে এই ওয়ার্কশপে যোগ দিয়েছেন ১৭ জন ভারতীয় চিত্রশিল্পী.

৯ই সেপ্টেম্বর লেভ তলস্তোয়ের ১৮৫-বছরের জন্মজয়ন্তী পালিত হল. মহান সাহিত্যিক ও দর্শনগুরুর এই জয়ন্তী উদযাপনকালে রাশিয়ায় তাঁর ভক্তরা আবার তাঁর জীবনাদর্শন ও সাহিত্যকীর্তির দিকে মুখ ফিরিয়েছে.

মস্কো ও দিল্লীর স্ট্র্যাটেজিক সহযোগিতার অর্থ আন্তর্জাতিক সঙ্কট ও বিরোধের সময়েই পরীক্ষিত হয়ে থাকে. দুই দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রে শেষ “সত্যের মুহূর্ত” হয়েছে সিরিয়াকে নিয়ে কি করা উচিত্ সেই আলোচনার সময়. “বড় কুড়ি” অর্থনৈতিক রাষ্ট্রের শীর্ষ সম্মেলনের সময়ে সেন্ট পিটার্সবার্গে মস্কো এবং দিল্লী সেই দলে দেখতে পাওয়া গিয়েছে, যারা সিরিয়াতে সামরিক অনুপ্রবেশের একেবারে চরম বিরুদ্ধাচরণ করেছে, তাদের মধ্যেই.

“সোভিয়েত ইউনিয়নের পতন হওয়ার পরে মস্কো নগরীর চেহারায় ও হালচালে কোনো বড়সড় পরিবর্তন এসেছে কি ?” - পাকিস্তানের খয়েরপুর মির্জা থেকে এই প্রশ্নটি পাঠিয়েছেন আজম আলি সুমরো.

1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2013
1
2
3
4
5
6
7
10
11
14
15
16
17
18
22
24
25
26
27
28
30