×
South Asian Languages:
রাশিয়া- ভারত, 2012
‘রেডিও রাশিয়া’র ইন্টারনেট সাইটের সবচেয়ে সক্রিয় ইউজার বাছাইয়ের ত্রৈমাসিক প্রতিযোগিতার ফলাফল জানানোর সময় হল. এবার জানাবো বছরের শেষ ৩ মাসের ফলাফল. এবার বিজয়ীর শিরোপায় ভূষিত হচ্ছেন হরিয়ানা রাজ্যের হিসার শহরের কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে মনস্তত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপিকা সুশীলা ধন্যা, সবচেয়ে বেশিবার আমাদের সাইটে এন্ট্রি করার ও সাইটে প্রকাশিত খবরাখবর সম্পর্কে মন্তব্য পাঠানোর জন্য.
রাশিয়ার কোম্পানী রুশ হেলিকপ্টার ও ভারতের এলকম সিস্টেম্স প্রাইভেট লিমিটেড যৌথভাবে ভারতে “মি” ও “কা” ধরনের হেলিকপ্টার জোড়া দিয়ে বানানোর কারখানা খুলতে চলেছে. এই ধরনের একটি চুক্তি কয়েকদিন আগে ভারতে রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সফরের সময়ে স্বাক্ষরিত হয়েছে. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.
রাশিয়ার সুমেরু বৃত্তের কাছে সমুদ্র উপকূলে খনিজ আহরণের কাজে ভারত নিজেদের আগ্রহকে আবার করে সমর্থন করে বলেছে. এই বিষয়ে বলা হয়েছে ভ্লাদিমির পুতিনের দিল্লী সফরের পরে প্রকাশিত এক সম্মিলিত বিজ্ঞপ্তিতে. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.
চীনের দৃঢ়বিশ্বাস, যে ইন্দো-রুশী সম্পর্কের ক্রমোন্নতি যেমন আঞ্চলিক, তেমনই বিশ্বব্যাপী স্থিতিশীলতার পক্ষে সহায়ক. বুধবার বেইজিংয়ে ব্রিফিংয়ে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রকের মুখপাত্র হুয়া চুনইন এই ঘোষনা করেছেন. ইন্দো-রুশী সামরিক সহযোগিতা জোরদার করার উদ্দেশ্য নাকি চীনকে ধরে রাখা – এরকম রটনার প্রত্তুত্যরেই তিনি এই মন্তব্য করেছেন. হুয়া চুনইন বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন, যে রাশিয়া ও ভারত চীনের প্রতিবেশী মিত্রদেশ.
ভ্লাদিমির পুতিনের ভারত সফরের সময়ে ও পরে যে সমস্ত মন্তব্য করা হয়েছে, তাতে প্রধান মনোযোগ দেওয়া হয়েছে সামরিক প্রযুক্তি সংক্রান্ত সহযোগিতার ক্ষেত্রে. এই নিয়ে বলার কিছু নেই – এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্র, কিন্তু শুধু সামরিক প্রশ্নেই সহযোগিতা শেষ হয়ে যাচ্ছে না.
পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তির ক্ষেত্রে রাশিয়া ও ভারতের সহযোগিতা, বিশেষ করে, "কুদানকুলাম" পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রের প্রকল্প নিয়ে সহযোগিতার অগ্রগতি হচ্ছে. এ সম্বন্ধে সোমবার বলেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে আলাপ-আলোচনার ফলাফলের ভিত্তিতে. ভারতের পারমাণবিক কর্মসূচির বিকাশ রুশ-ভারত শরিকানার একটি মুখ্য উপাদান, বলেন তিনি.
নয়াদিল্লী শহরে সরকারি সফরের সময়ে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন যে, ভারত ও রাশিয়ার সম্পর্ক বিশেষ সুবিধা প্রাপ্ত সহকর্মী হওয়ার চরিত্র বহন করে. এই বছর দুই দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রে এক বিশেষ বছর: কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের পঁয়ষট্টিতম জয়ন্তী বর্ষ. আর বর্তমানের শীর্ষবৈঠক পারস্পরিক ভাবে লাভজনক সহযোগিতার আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় হয়েছে. আলোচনার সময়ে প্রধান বিষয় হয়েছে দ্বিপাক্ষিক আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতার প্রসার.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের দিল্লি সফরের কাঠামোতে রাশিয়া ও ভারত সোমবার দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা সম্পর্কে একসারি দলিল স্বাক্ষর করেছে. বিশেষ করে, দু দেশের মাঝে প্রত্যক্ষ বিনিয়োগে সহায়তা সম্পর্কে রাশিয়ার প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ তহবিল এবং ভারতের রিজার্ভ ব্যাঙ্কের পারস্পরিক সমঝোতা সংক্রান্ত স্মারকলিপি স্বাক্ষরিত হয়েছে. কথা হচ্ছে যৌথ প্রকল্পে ১০০ কোটি ডলার পর্যন্ত বিনিয়োগের.
রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন সরকারি সফরে ভারতবর্ষে পৌঁছেছেন. এই সফরে তিনি রুশ- ভারত স্ট্র্যাটেজিক সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করবেন ও বেশ কয়েকটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করবেন. এর আগে ক্রেমলিন থেকে জানানো হয়েছিল যে, রাশিয়ার নেতার ভারত সফরের সময়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের সাথে দেখা হওয়ার কথা রয়েছে, যার পরে রুশ-ভারত আলোচনা হবে দুই পক্ষের প্রতিনিধিদের মধ্যে প্রসারিত ভাবেই.
রাশিয়া ও ভারতঃ একবিংশ শতকে কৌশলগত অংশীদারিত্ব সম্পর্কে নতুন দিগন্ত ভারতের অন্যতম প্রভাবশালী দৈনিক ' দ্যা হিন্দু ' পত্রিকার পাঠকদের দৃষ্টি আকর্ষন করার সুযোগ পেয়ে আমি আনন্দিত. নয়া দিল্লিতে আসন্ন সরকারি সফরের পূর্বে আমি আগামীর রুশ-ভারত কৌশলগত দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে বলতে চেয়েছিলাম. এবছর আমাদের দুটি দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ৬৫ বছর পূর্ণ হয়েছে.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের আসন্ন ভারত সফর প্রত্যাশাজনক ও বহুলাংশে তার ফলাফলের পূর্বাভাস দেওয়া সম্ভব. সেরকমই মনে করেন ভারতীয় ফাইন্যান্স ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রফেসর আগরওয়াল. আমাদের সংবাদদাতা ভ্লাদিমির ইভাশিনকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে তিনি জোর দিয়ে বলেছেন --- বিশ্বের বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রাখলে, দুই মিত্র দেশের শীর্ষনেতাদের সাক্ষাত্কারের বিশেষ গুরুত্ব আছে. আমাদের উভয় দেশই উন্নয়নের হার বৃদ্ধি করে চলেছে, আরও শক্তিশালী হয়ে উঠছে.
ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী ডঃ মনমোহন সিংহ একটি নতুন রাজনৈতিক পরিভাষা বিশ্বের রাজনীতিতে অন্তর্ভুক্ত করেছেন, এটা “ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকা”. এই পরিভাষা তিনি ব্যবহার করেছেন দিল্লী শহরে হওয়া ভারত- আসিয়ান শীর্ষ বৈঠকে. এই পরিভাষা ভারত- প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকার ধারণাকে প্রসারিত করে ও বিশেষ করে ভারতের এই এলাকা নিয়ে নিজেদের আগ্রহ বৃদ্ধির কথাই বলে. এই শীর্ষ বৈঠক বহু কারণেই ছিল খুবই সংজ্ঞাবহ.
রাশিয়া ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রককে আরও একপ্রস্থ ‘মি-১৭ভি-৫’ মার্কা সামরিক পরিবহন হেলিকপ্টার সরবরাহ করেছে. ২০০৮ সালে ৮০টি অনুরূপ হেলিকপ্টার কেনার জন্য স্বাক্ষরিত ‘রসঅবরনএক্সপোর্টে’র সাথে চুক্তির ভিত্তিতে এই সরবরাহ. চুক্তির অঙ্ক – ১৩৪ কোটি ডলার. চুক্তির শর্ত অনুযায়ী বাকি হেলিকপ্টারগুলি ২০১৩ সালে ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে রাশিয়ার ‘ভের্তোলোত রাসিয়ি’ কর্পোরেট হাউস.
ভারতের কর্তৃপক্ষ আশা করছেন যে, ২৪শে ডিসেম্বর রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের দিল্লি সফরের সময় একসারি গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে, বলা হয়েছে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাইটে. আশা করা হচ্ছে যে, আসন্ন ত্রয়োদশ রুশ-ভারত শীর্ষ সাক্ষাতের সময় দু দেশের নেতারা রাশিয়া ও ভারতের মাঝে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আলোচনা করবেন এবং পরবর্তী বছরের জন্য আলোচ্য-সূচি অনুমোদন করবেন.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ২৪শে ডিসেম্বর সরকারি সফরে ভারত যাচ্ছেন. এই বিষয়ে ক্রেমলিনের তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে খবর দেওয়া হয়েছে. বিষয় নিয়ে কিছু বিশদ মন্তব্য করেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.
রাশিয়া ভারত থেকে আমদানীকৃত শস্যের উপর যে নিষিদ্ধ তালিকা আরোপ করেছে, সেই তালিকা আরও দীর্ঘতর হওয়ার সম্ভাবনা. এর কারন হতে পারে ‘খাপড়া পোকা’. ক্ষতিকর ঐ পোকার সংক্রামণের জন্য ১৭ই ডিসেম্বর থেকে ভারত থেকে চাল আমদানী করার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে বলে ‘ইন্টারফ্যাক্স’ সংবাদসংস্থা জানিয়েছে. “আমরা অনতিবিলম্বে ভারতীয়পক্ষের সাথে এই বিষয়ে আলোচনা করতে চাই.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের আমন্ত্রণে এদেশে সরকারী সফরে যাবেন ২৪শে ডিসেম্বর, সোমবার জানিয়েছে ক্রেমলিনের প্রেস সার্ভিস. আলাপ-আলোচনায় পক্ষদ্বয় রুশ-ভারত স্ট্র্যাটেজিক শরিকানা আরও বিকাশের সুনির্দিষ্ট সব প্রশ্ন আলোচনার পরিকল্পনা করছে, ক্রেমলিনের ঘোষণা উদ্ধৃত করে জানিয়েছে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ এজেন্সি. পক্ষদ্বয় বাণিজ্যিক-অর্থনৈতিক, বিনিয়োগ, সামরিক-প্রযুক্তিগত, বিদ্যুত্ ও জ্বালানী এবং সাংস্কৃতিক-মানবতাবাদী ক্ষেত্রে সহযোগিতার প্রশ্ন আলোচনা করবে.
প্রাচীন ভারতীয় বৈদিক মার্শাল-আর্ট কালারিপায়াত্তু আনা হযেছে ঈশ্বরের আপন ভূমি কেরালা রাজ্য থেকে. এর সম্পর্কে উল্লেখ আছে প্রাচীনকালের ইতিহাসে, লোকগাথা ও ‘রামায়ন’ ও ‘মহাভারতের’ মতো মহাকাব্যেও. ভারতীয় মার্শাল-আর্টের পরীক্ষাগার ‘থিয়েট্রিকা’র পত্তন করা হয় ২০০৬ সালে. শুনুন এই প্রসঙ্গে পরীক্ষাগারটির প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ পেওতর নেমভের বক্তব্য.
রবিশঙ্করের মৃত্যু রাশিয়াতে খুবই গভীর শোকের কারণ হয়েছে. তাঁকে আমাদের দেশে ভাল করেই লোকে জানেন ও ভালও বেসেছেন. রবিশঙ্কর একাধিকবার রাশিয়াতে এসেছেন. তাঁরই কল্যাণে বহু রুশ মানুষ ভারতীয় সঙ্গীত সম্বন্ধে জানতে ও তা ভালবাসতে পেরেছেন. রবিশঙ্কর ও তাঁর সঙ্গীতের সঙ্গে প্রত্যেক বারের সাক্ষাত্কারই মানুষের জন্য এক বিরাট উত্সবে পরিণত হয়েছিল, তাঁরা সত্যিকারের ভারতকে এর মধ্যে দিয়েই চিনেছেন.
ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারদের প্রথম দল মস্কো এসে পৌঁছেছে রাশিয়ার সহকর্মীদের সঙ্গে রুশ ভারত যৌথ উদ্যোগে নির্মীয়মান পরিবহন বিমান এমটিএ নিয়ে কাজ শুরু করার জন্য. স্ট্র্যাটেজি ও টেকনলজি বিশ্লেষণ কেন্দ্রের বিশেষজ্ঞ ভাসিলি কাশিন মনে করেন যে, দুই দেশের পক্ষে খুব কম শক্তি প্রয়োগের প্রয়োজন হবে না যাতে মাঝারি পাল্লার পরিবহন বিমানের খুবই কড়া প্রতিযোগিতার বাজারে নিজেদের জায়গা পাওয়া যায়.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
20
21
22
24
25
27
28
29
30
31