×
South Asian Languages:
রাজনীতি 22 মার্চ 2011
ইউরি গাগারিনের মহাকাশযাত্রার ৫০তম বার্ষিকীর প্রতি উত্সর্গীত প্রদর্শনী শুরু হয়েছে ব্রাসেলসে ইউরো-পার্লামেন্টের সদর-দপ্তরে. তাতে প্রদর্শিত হচ্ছে এ ঐতিহাসিক ঘটনার প্রতি উত্সর্গীত বহুসংখ্যক অসাধারণ ফোটো. এ প্রদর্শনীর উদ্যোক্তা- চেকিয়া থেকে ইউরো-পার্লামেন্টের প্রতিনিধি ভ্লাদিমির রেমেক বলেন, “কি থেকে মহাকাশযাত্রা শুরু হয়েছিল, তা মনে করিয়ে দেওয়া দরকার. এক সময়ে এ ছিল এমন ঘটনা, যা নিঃসন্দেহে লোকেদের ভাগ্যকে প্রভাবিত করেছিল, সেই সঙ্গে আমারও.
মঙ্গলবারে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তৃতীয় স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত চুক্তি র বাস্তবায়ন করার জন্য তথ্য বিনিময় করবে. এই বিষয়ে চুক্তির একটি বিশেষ বাধ্যতামূলক দলিলে আগে থেকেই উল্লেখ করা হয়েছে.     তথ্য বিনিময় সম্বন্ধে নিয়ম দুই চুক্তিবদ্ধ দেশের কাছেই আগের চুক্তি অনুযায়ী খুব ভাল করেই করা রয়েছে, যার নাম ছিল প্রথম স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা নিয়ন্ত্রণ চুক্তি.
রাশিয়া মিশরের নতুন নেতৃবৃন্দ ও তার সংস্কার পরিচালনার নীতি সমর্থন করে. এ সম্বন্ধে কায়রোতে বলেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ. তিনি আরও বলেন যে, “মিশর ও রাশিয়ার মাঝে বাণিজ্যিক-অর্থনৈতিক সহযোগিতা বলবত্ থাকছে”. তাঁর কথায়, নিকট ভবিষ্যতে আন্তঃসরকারী কমিশনের পরবর্তী বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে, যাতে সহযোগিতার সমস্ত দিক এবং বিভিন্ন প্রকল্প আলোচিত হবে, সেই সঙ্গে মিশরে রাশিয়ার শিল্প-এলাকার গঠনও.
ভাগ্যের পরিহাসে, পশ্চিমের জোটের লিবিয়াতে সামরিক হানা শুরু হওয়ার দিন প্রায় একই সঙ্গে পশ্চিমের জোটের আরও একটি স্মরণীয় বর্ষপূর্তি দিবসের সাথে এক হয়েছে. ২০০৩ সালে ২০ শে মার্চ ইরাকে অনুপ্রবেশ শুরু হয়েছিল. জামাহিরি উদ্দেশ্যে প্রথম রকেট গুলি ছোঁড়া হয়েছিল ১৯ শে মার্চ. কিন্তু এটাই একমাত্র মিল নয়. এই বিষয়ের দিকে বহু পর্যবেক্ষক লক্ষ্য করেছেন.
রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা হ্রাস সংক্রান্ত চুক্তিতে অনুমিত পারমাণবিক ক্ষমতা সম্পর্কে তথ্য বিনিময় শুরু করেছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পারমাণবিক বিপদ হ্রাস সংক্রান্ত কেন্দ্র নিজের তথ্যাবলি বিগত ছুটির দিনগুলিতে রাশিয়াকে হস্তান্তর করেছে. এ সব তথ্যের মধ্যে আছে রকেট, ক্ষেপণ সরঞ্জাম, ভারী বোমারু বিমান এবং ওয়ারহেড সংক্রান্ত তথ্যাবলি.
লিবিয়ার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে, সরকারী সৈন্যবাহিনী দেশের পশ্চিমে মিস্রাতা শহর নিয়ন্ত্রণাধীন করেছে, জানিয়েছে "প্রেস টি.ভি" টেলিচ্যানেল. বিরোধী পক্ষের তথ্য অনুযায়ী, এ আক্রমণের সময় নিহত হয়েছে ৪০ জনের উপর, ২০০ জন আহত হয়েছে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ আগামী বৃহস্পতিবার লিবিয়াকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি আলোচনা করবে. পরামর্শ বৈঠক আহ্বান করা হচ্ছে এজন্য যে, নিরাপত্তা পরিষদের কয়েক সদস্য “যা ঘটছে তার বৈধতায় সন্দেহ প্রকাশ করছে”. নিরাপত্তা পরিষদ তাছাড়া লিবিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুসা কুসা-র চিঠিগুলিও আলোচনা করতে চায়. এমন একটি বার্তা রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছে পাঠানো হয়েছিল সামরিক অভিযান শুরু হওয়ার পরে.
লিবিয়াকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতির মীমাংসায় মধ্যস্থ হিসেবে রাশিয়া নিজের অবদান উপস্থিত করতে প্রস্তুত. এ সম্বন্ধে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ সাংবাদিকদের বলেছেন.
মার্চ 2011
ঘটনার সূচী
মার্চ 2011