১. কম করে হলেও ছয় লক্ষ লোক লেসার রশ্মি দিয়ে এক প্রদর্শনী দেখতে এসেছিলেন, যা চৌঠা সেপ্টেম্বর ভরোবিয়েভি পাহাড়ে হয়ে গেল. লেসার রশ্মি দিয়ে চার মাত্রার এই শো মস্কো রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ভবনের দেওয়ালে করা হয়েছে, যা মস্কো শহরের জন্ম দিনের উত্সবের শেষ অনুষ্ঠান হয়েছিল. উপস্থিত দর্শকদের জন্য ছিল এক বিশাল শো, যা "গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে" যোগ করার উপযুক্ত.

    ২. "আলফা- শো ৪ ডি" – এটা শহরের লোকেদের জন্য আলফা ব্যাঙ্কের উপহার এই শহরের ৮৬৪ বছর উপলক্ষে.

    ৩. "আলফা- শো ৪ ডি" অনুষ্ঠানের স্রষ্টা ডেভিড অ্যাটকিনস – যিনি সিডনি অলিম্পিক (২০০০ সাল) ও ভ্যাঙ্কুভার (২০১০ সাল) অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান রটনা করেছিলেন. মানুষের চোখের সামনেই এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বাড়ীটি অন্ধকারে হারিয়ে যাচ্ছিল ও আবার উদয় হচ্ছিল. তাকে একটা বরফ খণ্ড, বিশাল অ্যাকোরিয়াম, আইফেল টাওয়ার, পবিত্র ভাসিলির গির্জা, বলশয় থিয়েটারে "পরিনত করা" হচ্ছিল...

    ৪. এই শো চলার সময়ে এই অত্যন্ত উঁচু বাড়ীটির উপরে বেয়ে উঠেছেন বিশ্ব বিখ্যাত "স্পাইডার ম্যান" ও পাহাড়ে বেয়ে ওঠা অ্যালেন রব্বের. অকুতোভয় ফরাসী লোকটি এই বাড়ীর চুড়ার উপরে উঠেছেন.

    ৫. এই শো শেষ হওয়ার সময়ে মস্কো রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ভবন টিকে মোমবাতি দিয়ে সাজানো এক বিরাট জন্মদিনের কেকের মতো "দেখাচ্ছিল", যা পরে বিস্ফোরিত হয়েছে বিশাল আতস বাজীর রঙীণ আলো ছড়িয়ে.

    ৬. ফোটোতে: মস্কো ও শহরের অতিথিরা রাশিয়া মস্কো শহরে "আলফা- শো ৪ ডি" দেখছেন.

    ৭. আশা করা হচ্ছে যে, এই শো গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে জায়গা পাবে, ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রতিফলন বলে, যার সম্পূর্ণ মাপ ছিল ২৫, ৫ হাজার স্কোয়ার মিটার.

    ৮. এই প্রতিফলন দেখানোর জন্য এক হাজারেরও বেশী বিশেষজ্ঞ কাজ করেছেন, যারা এই কাজ করার জন্য ২০০০ কিউবিক মিটার ধাতব অংশ জোড়া দিয়েছেন ও ৮১টি ভিডিও প্রোজেক্টার লাগিয়েছেন.