-    এক বছর আগে রাশিয়ার একটি অন্যতম বৃহত্ এবং বিশ্বেরও একটি বৃহত্তম জল বিদ্যুত কেন্দ্র সায়ানো সুশিনস্কি জল বিদ্যুত কেন্দ্রে দুর্ঘটনার ফলে ৭৫ জন নিহত হয়েছিলেন.-    দুর্ঘটনার সময়ে এই কেন্দ্রে তিনশ জন মানুষ ছিলেন.-    খাকাসিয়া রাজ্যের উইস্কি কবর খানাতে, যেখানে এই দুর্ঘটনায় নিহতদের বেশীর ভাগকে কবর দেওয়া হয়েছিল, সেখানে ১৭ই আগষ্ট একটি অর্থোডক্স নতুন গির্জার মন্দির ও ঘন্টা ঘর যাজকরা প্রাণ প্রতিষ্ঠা করেন ও নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করে প্রার্থনা সভা করেন.-    সায়ানো সুশিনস্কি জল বিদ্যুত কেন্দ্রের দুর্ঘটনা নিয়ে ফরিয়াদী মামলার তদন্ত এখনও শেষ হয় নি, অভিশংসক দপ্তরের অনুসন্ধান কমিটি এর মেয়াদ ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত বাড়িয়েছে, যদিও এর আগে প্রথম যাদের সন্দেহ করা হয়েছে, তাদের নাম প্রকাশ করার কথা ছিল আগষ্ট মাসের শেষে.-    রাশিয়ার যন্ত্র পাতি বিষয়ক পর্যবেক্ষণ কমিশন ও লোকসভার পরিষদ তাদের অনুসন্ধানের ফল ২০০৯ সালের ডিসেম্বর মাসেই পেশ করেছিল.-    লোকসভার পরিষদ সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে, এই দুর্ঘটনা বহু কারণে ও একটা ব্যবস্থার গলদের ফল. তার মধ্যে যারা কাজ করছিলেন সেই সমস্ত লোকেদের দায়িত্বের মাত্রা খুব কম হওয়া, বিদ্যুত কেন্দ্রের নেতৃত্বের দায়িত্ব ও পেশাদারী মনোভাব ভীষণ কম হওয়া এবং তা অযৌক্তিক হওয়া, আর তার সঙ্গে কেন্দ্রের নেতৃত্বের কার্য করী ক্ষমতার অপ ব্যবহার.-    রাশিয়ার যন্ত্র পাতি বিষয়ক পর্যবেক্ষণ কমিশন "রসটেখনাদজোর" এর অনুসন্ধান পরিষদ দেখাতে সক্ষম হয়েছিল যে, এই দুর্ঘটনার কারণ ছিল জেনারেটরের মূল এঞ্জিনের জোড় লাগানোর অংশ গুলির ধাতব ক্লান্তি এবং তার ফলে ঢাকনা খুলে গিয়ে এঞ্জিন রুমে জল ঢুকে ধ্বংস হওয়া.-    ইতার তাস সংবাদ সংস্থা জানিয়েছিল যে, এই ধাতব অংশ গুলির কতদিন কাজ করার কথা ও কবে তা পাল্টানো দরকার, তা কোন রকমের নিয়মের দলিলে লেখা ছিল না.-    এই দুর্ঘটনার আরও একটি সম্ভাব্য কারণ বিশেষজ্ঞদের মতে সব মিলিয়ে দেশের শিল্পের পরিকাঠামোর ক্রন্দন যোগ্য পরিস্থিতি.-    সারা বছর ধরেই এই জল বিদ্যুত কেন্দ্রের পুনর্নির্মাণের কাজ চলছে. তাই এই বছরের ফেব্রুয়ারী মাস থেকে এখন পর্যন্ত তিনটি জেনারেটর ব্যবস্থা ৬, ৫ ও ৪ স্থাপন করা সম্ভব হয়েছে, তিন নম্বরটি চালু করার কথা ডিসেম্বরে.২০১৪ সালে সায়ানো সুশিনস্কি জল বিদ্যুত কেন্দ্র পুনর্নির্মাণ শেষ হবে.