আগে পশ্চিমী প্রচার মাধ্যম জানিয়েছিল যে, রাশিয়া নাকি এ বিবৃতির গ্রহণ অবরোধ করেছে অথবা তা গ্রহণের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করেছে. কূটনীতিজ্ঞ সংবাদ এজেন্সিকে বলেছেন যে, মার্কিনী প্রতিনিধিরা রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের বিবৃতির খসড়া পেশ করেছিল, আর রাশিয়ার পক্ষ শুধু তাতে সংশোধন এনেছিল, যাতে দলিল ভারসাম্যপূর্ণ হয়, কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা তা গ্রহণ করতে অস্বীকার করে. পশ্চিমী সংবাদ এজেন্সিগুলি নিজেদের সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে যে, প্রথমে রাশিয়া বিবৃতির বয়ানে সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি আসদের দ্বারা ব্যবহৃত সামরিক কৌশল সম্বন্ধে কোনো উল্লেখ অন্তর্ভুক্ত করতে দেয় নি. রাশিয়ার এ বিরোধিতার ফলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিবৃতির খসড়া ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয়, কারণ তা অনুমোদনের জন্য রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি সদস্য দেশের সকলের অনুমোদন প্রয়োজন. এক কূটনীতিজ্ঞের কথায় মার্কিনী প্রশাসন এ দলিল অবরোধে রাশিয়ার কার্যকলাপে “খুবই হতাশ হয়েছে”. “সীমানা-হীন চিকিত্সকরা” নামে সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, গত রবিবার আলেপ্পো-তে বোমা বর্ষণের ফলে অন্ততপক্ষে ১৮৯ জন নিহত হয়েছে এবং প্রায় ৯০০ জন আহত হয়েছে.