টেলিফোন আলাপে মার্কিনী কূটনীতিজ্ঞ এ আশা প্রকাশ করেছেন যে, এই দুঃখজনক ঘটনা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভারতের সাথে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষতি সাধন করবে না, সাংবাদিকদের জানিয়েছেন পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি মেরি হার্ফ. ভারতের ডেপুটি কনস্যুল দেবযানী খোবরাগাদে-কে পুলিশ ১২ই ডিসেম্বর নিউ-ইয়র্কে গ্রেপ্তার করেছিল. খোবরাগাদে-র প্রতিবাদ এবং কূটনৈতিক ইমিউনিটির বিবৃতি সত্ত্বেও তাঁকে জেলে বন্দী করে রাখা হয়. তাঁর কথায়, তাঁকে একাধিকবার ন্যক্কারজনক প্রক্রিয়া, কাপড় খুলে সম্পূর্ণ খানাতল্লাসী সহ্য করতে হয়েছে. এ ঘটনা দিল্লি ও ওয়াশিংটনের মাঝে সম্পর্কে কূটনৈতিক কেলেঙ্কারী সৃষ্টি করেছে. প্রতিবাদ হিসেবে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ ভারতে মার্কিনী কূটনীতিজ্ঞদের বিরুদ্ধে একসারি কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে.