এ সম্বন্ধে জানিয়েছে "আল-আরাবিয়া" টেলি-চ্যানেল লন্ডনে অবস্থিত চরমপন্থা অধ্যয়ন সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক কেন্দ্রের উদ্ধৃতি দিয়ে. এ কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, ৮০ শতাংশ বিদেশী জঙ্গী সিরিয়ায় পৌঁছেছে বিভিন্ন আরব দেশ ও ইউরোপ থেকে, বাকিরা – দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, উত্তর আমেরিকা, আফ্রিকা এবং প্রাক্তন সোভিয়েত ইউনিয়নের প্রজাতন্ত্রগুলি থেকে. ইউরোপীয় দেশগুলি থেকে আসা জঙ্গীদের সংখ্যা প্রায় ১৯০০. তাদের বেশির ভাগের জন্ম ফ্রান্স, গ্রেট-বৃটেন ও বেলজিয়াম. সিরিয়ায় সরকারী বাহিনীর বিরুদ্ধে সামরিক ক্রিয়াকলাপে অংশগ্রহণকারী বিদেশীদের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক সিরিয়ায় এসেছে টিউনিশিয়া, জর্ডান, লিবিয়া ও সৌদি আরব থেকে. আগে আরব প্রচার মাধ্যম জানিয়েছিল যে, কাতারের দূতরা একসারি আরব দেশে, বিশেষ করে টিউনিশিয়ায় বহুসংখ্যক এজেন্সির জাল খুলেছে, যারা জঙ্গীদের ভাড়া করছে এবং সিরিয়ায় পাঠাচ্ছে সরকারী বাহিনীর বিরুদ্ধে সামরিক ক্রিয়াকলাপে অংশগ্রহণের জন্য.