এই ছটি চাকা বিশিষ্ট চন্দ্রযান ছাঁদে পাঠানো হয়েছে সেখানের ভূতাত্ত্বিক পরীক্ষা করার জন্য ও মাটি পরীক্ষা করে দেখার জন্যই. ঘন্টায় ২০০ মিটার গতিতে চলতে সক্ষম এই যান সেখানে কাজ করবে তিন মাস সময় ধরে.