আইন ও শৃঙ্খলা রক্ষা সংস্থাগুলি মিছিলকারীদের দ্বারা রাষ্ট্রীয় সম্পত্তির যথেষ্ট ক্ষতি সাধনের কথা জানিয়েছে. কর্মীদের কাজের পৃথক পৃথক কামরায় লুঠপাট চালানো হয়েছে এবং সেগুলি এখন কাজের জন্য অনুপযুক্ত হয়ে পড়েছে.প্রসঙ্গত, মিছিলকারীদের একটি দল এখনও ব্যাঙ্ককে রয়েছে সরকারের ভবন সমাহারের কাছে স্কোয়ারে এবং গণতন্ত্রের স্মৃতিস্তম্ভের স্কোয়ারে. প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনকারিণী ইইঙ্গলাক চিনাওয়াত বিরোধীপক্ষের দাবি অনুযায়ী পদত্যাগ করতে অস্বীকার করার পরে মিছিলকারীদের নেতা সুতেপ তাউগসুবান নিজের পক্ষসমর্থকদের কাছে ঘোষণা করেন যে, দেশে শাসন ক্ষমতা চলে আসছে আত্মঘোষিত গণতান্ত্রিক সংস্কারের গণ কমিটির হাতে. আগে প্রধানমন্ত্রী চিনাওয়াত ঘোষণা করেন যে, থাইল্যান্ডে নির্বাচন হবে ২রা ফেব্রুয়ারী.