তাদের ভয় নির্বাচকদের রোষের, কারণ গ্রেট-বৃটেনে বাজেটের অর্থ খরচে মিতব্যয়িতার কঠোর ব্যবস্থা কার্যকরী আছে. রবিবার পার্লামেন্টারী মান সংক্রান্ত স্বাধীন বিভাগ ২০১৫ সালের নির্বাচনের ঠিক পরেই পার্লামেন্ট সদস্যদের মাসিক বেতন সঙ্গে সঙ্গেই ১১.৪ শতাংশ অর্থাত্ ১লক্ষ ২০ হাজার ডলার পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে. এদিকে অন্যান্য রাষ্ট্রীয় কর্মীদের বেতন বাড়ে গড়ে বছরে ১ শতাংশ. এ উপলক্ষে গ্রেট-বৃটেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রক্ষণশীল পার্টির ফিলিপ হ্যামন্ড, বিশেষ করে, বলেছেন যে, যতদিন এ পদে অধিষ্ঠিত আছেন ততদিন কোনো অতিরিক্ত অর্থ নেবেন না. তাঁর মতে, এ ব্যাপারে সরকারের সংহতির স্থিতি গ্রহণ করা উচিত, এবং এ সম্ভাবনা বাদ দেওয়া উচিত্ নয় যে, বাড়তি অর্থ দাতব্য কাজে দেওয়া যেতে পারে.