বিরোধীদের মতে, চিনাভাত নিজের ভাইয়ের স্বার্থ দেখছেন ও আসলে তাঁরই হাতের পুতুল হয়ে রয়েছেন. বিরোধী আন্দোলনের নেতা সুতেপ তাউগসুবান এর আগে ঘোষণা করেছেন যে, তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেছেন কিন্তু কোন সমঝোতা হয় নি. তিনি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছেন যে, প্রশাসনের হাতে মাত্র দুই দিন সময় রয়েছে, যাতে “ক্ষমতা দেশের জনগনের করায়ত্ত হয়”.