মন্ত্রণালয়ের সরকারী বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে যে, ভারত সরকার হেগ শহরে রাসায়নিক অস্ত্র নিষেধ সংস্থার দ্বারা গঠিত তহবিলে ১০ লক্ষ ডলার দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে, যাতে এ অর্থ সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্রের এবং তত্সংক্রান্ত পরিকাঠামোর উচ্ছেদ জন্য ব্যবহার করা যায়. আরও জানানো হয়েছে যে, ভারত নিজের বিশেষজ্ঞদের পাঠাতেও প্রস্তুত, যাদের রাসায়নিক অস্ত্র নিষেধ সংস্থা ব্যবহার করতে পারে রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংসের ঘটনার সমর্থন পাওয়ার জন্য, এবং তাছাড়া কর্মীদের অনুশীলনের জন্য. রাসায়নিক অস্ত্র নিষেধ সংস্থা ১৫ই নভেম্বর সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র উচ্ছেদের বিশদ পরিকল্পনা অনুমোদন করেছে, যা অনুযায়ী রাসায়নিক অস্ত্র তৈরীর জন্য শুধু আইসোপ্রোপেনল ছাড়া সমস্ত বস্তু সিরিয়া থেকে নিয়ে যাওয়া হবে ২০১৪ সালের ৫ই ফেব্রুয়ারীর মধ্যে, আর সবচেয়ে বিপজ্জনক বস্তুগুলি এ বছরের মধ্যেই. সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্রের উচ্ছেদে অংশগ্রহণের প্রস্তুতি প্রকাশ করেছে ৩৫টি কমার্শিয়াল কোম্পানি, তাদের প্রস্তাব অধ্যয়ন করছে রাসায়নিক অস্ত্র নিষেধ সংস্থা.