এর প্রাক্কালে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় টেলি-চ্যানেলের কর্মীদের বিরুদ্ধে অ-পেশাদারীর অভিযোগ তোলেন, কারণ রাশিয়ার কূটনীতিজ্ঞের ইন্টারভিউ গোড়ায় সম্প্রচার করা হয়েছিল কেটে সংক্ষিপ্ত করে. ব্যাপারটা হল এই যে, সিরিয়ায় পরিস্থিতির মূলনীতিগত মূল্যায়ন কেটে বাদ দেওয়া হয়েছিল. সম্প্রচার করা অনুষ্ঠানের চূড়ান্ত রূপ থেকে উধাও হয়ে গিয়েছিল দুটি মুখ্য প্রশ্নে রাশিয়ার কূটনীতিজ্ঞের উত্তর, যার একটি সম্পর্কিত ছিল অন্তর্বর্তী প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পরে আসদের ভূমিকা সম্পর্কে, আর দ্বিতীয়টি – সিরিয়ার বিরোধীপক্ষকে একসারি দেশের সাহায্য সম্পর্কে. পরে রাশিয়ার “রিয়া নোভস্তি” সংবাদ এজেন্সিকে “সি.এন.এন”-এর প্রেস সার্ভিসে জানানো হয় যে, টেলি-চ্যানেল “কখনও কিছু সেন্সর করে না”. ইন্টারভিউ সংক্ষিপ্ত করার কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয় অনুষ্ঠানের সম্প্রচারের সীমিত সময়. এখন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধির ইন্টারভিউর পূর্ণ বয়ান পড়া যাবে “সি.এন.এন”-এর সাইটে, রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি দপ্তরেই শুধু নয়.