২০১১ সালের মার্চে সুনামির আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল এ পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি। টোকিও ইলেকট্রিক পাওয়ার কোম্পানীর বিশেষজ্ঞরা সংস্কার কাজের দায়িত্ব পালন করছেন। কেন্দ্রটির রিয়াক্টর ও চতুর্থ জ্বালানী ব্লকের মাঝামাঝি স্থানে জ্বালানী অপসারণ করবেন বিশেষজ্ঞরা। পরে বিশেষ কন্টেইনারে ওই জ্বালানী তেলকে অন্য একটি শোধণাঘারে সংরক্ষণ করা হবে।

এদিকে ধারণা করা হচ্ছে যে, আগামী ২০২০ সাল থেকে তৃতীয় দফার সংস্কার কাজ শুরু হবে। বিশেষজ্ঞরা একে সবচেয়ে জটিল ধাপ বলে উল্লেখ করেছেন।