সিরিয়ার প্রশাসনকে কাজের পরিকল্পনা পেশ করা হবে এই সংস্থার কার্যকরী পরিষদের ৪১ সদস্যের দ্বারা এই পরিকল্পনা গৃহীত হওয়ার পরে. কিন্তু এই পরিকল্পনার কিছু অংশ নিয়ে এখনও বিভেদ রয়ে গিয়েছে, যা অংশতঃ হয়েছে দুই ভাবেই ব্যবহার যোগ্য প্রযুক্তি নিয়ে. এই পরিকল্পনা অনুযায়ী রাসায়নিক অস্ত্র উত্পাদনের উপযুক্ত পদার্থ সিরিয়াতে ১৩ই ডিসেম্বরের মধ্যে ১২টি জায়গায় রাখা হবে. তারপরে সেগুলিকে সিরিয়ার মূল বন্দর লাতাকিয়া আনা হবে ও ৫ই ফেব্রুয়ারীর মধ্যে এই দেশ থেকে নিয়ে যাওয়া হবে.

সিরিয়ার পক্ষ থেকে এই ধরনের জিনিষ নিয়ে যাওয়ার জন্য সাঁজোয়া গাড়ী চাওয়া হয়েছে ও ইলেকট্রনিক জ্যামার চাওয়া হয়েছে. পশ্চিমের দেশগুলি দামাস্কাসকে এই ধরনের প্রযুক্তি দিতে চাইছে না, কারণ তাঁদের মতে এই ধরনের প্রযুক্তি বিরোধী পক্ষের জঙ্গীদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা হতে পারে.