লাভরভ বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, “জেনেভা- ২” সম্মেলন যত দ্রুত সম্ভব আহ্বান করার, যাতে আন্তর্সিরিয়া আলোচনা শুরু করা যায় জেনেভা সম্মেলনে নেওয়া কমিউনিকে অনুযায়ী, যা হবে সকলের সহমতে নেওয়া এক রাজনৈতিক- কূটনৈতিক ভিত্তি যার উপরে ভর করে সিরিয়ার সঙ্কট নিরসন সম্ভব হতে পারে, উল্লেখ করা হয়েছে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে.