এ সম্বন্ধে বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে নিজের শেষ রিপোর্টে, এ কথা উল্লেখ করে যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘ এ খবরের প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছে. বান কি মুন উল্লেখ করেছেন যে, ইস্রাইল আগে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল “হেজবোলা”-কে রাসায়নিক অস্ত্র অথবা অগ্রণী অস্ত্র ব্যবস্থা, সেই সঙ্গে সিরিয়া থেকে রকেট সমাহার হস্তান্তরের পরিপ্রেক্ষিত সম্পর্কে. “হেজবোলা” আন্দোলনের প্রতিনিধিরা, নিজেদের তরফ থেকে, তাদের রাসায়নিক অস্ত্র হস্তান্তরের সম্ভাবনা সম্বন্ধে নিশ্চয়োক্তি খন্ডন করেছে এবং ঘোষণা করেছে যে, তা পাওয়ার লক্ষ্য তাদের নেই.