ভিয়েতনামী সহকর্মীর সাথে আলাপের পর পুতিন উল্লেখ করেন যে, দু দেশের বহু প্রকল্প আছে যন্ত্রনির্মাণ, এভিয়েশন, মহাকাশ, এবং মানবতাবাদী ক্ষেত্রে. পুতিন বলেন, “রাশিয়া ও ভিয়েতনামের মাঝে সম্পর্ক বিশেষ চরিত্র ধারণ করে, তা এমনকি স্ট্র্যাটেজিক সম্পর্কের চেয়েও বেশি, আমাদের অতীতের সাধারণ মিলিত বীরত্বপূর্ণ কাজের ও সংগ্রামের অভিজ্ঞতা আছে, সেই সঙ্গে ভিয়েতনামের স্বাধীনতার জন্যও”. তিনি যোগ করে বলেন যে, দু দেশের সহযোগিতার “খুব সুন্দর পরিপ্রেক্ষিত আছে”. নিজের তরফ থেকে চিওঙ্গ তান শাঙ্গ এ গভীর বিশ্বাস প্রকাশ করেন যে, পুতিনের ভিয়েতনাম সফর দু দেশের মাঝে স্ট্র্যাটেজিক শরিকানা সুদৃঢ় করতে সাহায্য করবে. চিওঙ্গ তান শাঙ্গ জোর দিয়ে বলেন, “ব্যক্তিগতভাবে আমি এবং আমাদের সব নেতৃবৃন্দ কমরেড পুতিনকে আমাদের অতি ঘনিষ্ঠ বন্ধু বলে মনে করি”. নিজের তরফ থেকে পুতিন ভিয়েতনামী সহকর্মীকে রাশিয়া সফরের আমন্ত্রণ জানান. হ্যানয়ে রুশ-ভিয়েতনামী আলাপ-আলোচনার ফলাফলের খতিয়ান টেনে মঙ্গলবার পুতিন সাংবাদিকদের বলেন, “আমি ভিয়েতনামের রাষ্ট্রপতিকে রাশিয়া সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছি এবং আশা করব যে, রাষ্ট্রপতির জন্য সুবিধাজনক সময়ে আমাদের সাক্ষাত্ হবে”.