এদিকে রাশিয়ার উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই রিয়াকোভ বলেছেন, আলোচনা শেষে সুনির্দিষ্ট ফলাফল ছাড়া অংশগ্রহণকারীর কেউই জেনেভা থেকে শূণ্য হাতে ফিরতে চাচ্ছেন না।

ইরানের সাথে ছায়জাতির দুইদিনের ওই বৈঠকের কথা থাকলেও তা তৃতীয় দিনে গড়ায়। আশা করা হচ্ছে, এ আলোচনায় দীর্ঘদিন ধরে চলা সংকট নিরসনে দুই পক্ষের সমঝোতা হতে পারে।

ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় দেশটির সঙ্গে কথা বলছে পি ফাইভ+ওয়ান হিসেবে। এরঅর্থ হচ্ছে, নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, চীন, ফ্রান্স, রাশিয়া এবং ষষ্ঠ দেশ জার্মানি।