পরীক্ষা চালানো হয়েছে মোবাইল ক্ষেপণ সরঞ্জাম থেকে, উড়িষ্যা রাজ্যের উইলার দ্বীপের পরীক্ষা ঘাঁটি থেকে. আগে “নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস” পত্রিকাকে এক সামরিক সূত্র জানিয়েছিলেন যে, “অস্ত্র ভাণ্ডার থেকে আন্দাজে বেছে নিয়ে” এ রকেটের পরীক্ষা করা হয়েছে. ২০০২ সালে প্রথম পরীক্ষার পর থেকে এ রকেটের গঠন বিন্যাসে যথেষ্ট পরিবর্তন আনা হয়েছে. বিশেষীকৃত সামরিক পোর্টালগুলি উল্লেখ করেছে যে, “অগ্নি-১” রকেটের উদ্দেশ্য হল স্বল্প পাল্লার “পৃথ্বী” রকেট এবং ২ হাজার কিলোমিটারেরও বেশি পাল্লার “অগ্নি-২” রকেটের মাঝামাঝি জায়গা পুরণ করা.