তিনি আরও জানান যে, মিশরের নতুন রাষ্ট্রপতির নির্বাচন হওয়া উচিত্ “গ্রীষ্মের গোড়ায়”. ২০১৩ সালের জুলাই মাসের গোড়ায় সেনাবাহিনী ইস্লামপন্থী রাষ্ট্রপতিকে ক্ষমতা থেকে অপসারণ করে আটক রাখে জনগণের আশা পুরণ করতে না পারার জন্য এবং সাময়িকভাবে রাষ্ট্র প্রধানের দায়িত্ব পালনের জন্য নিযুক্ত করে সাংবিধানিক আদালতের সভাপতি আদলি মানসুর-কে.