এই সিদ্ধান্তের খসড়া, যা তৈরী করা নিয়ে ব্রাজিল ও জার্মানী কাজ করছে, তা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে অভূতপূর্ব ভাবে ইলেকট্রনিক গুপ্তচর বৃত্তির প্রকল্পের প্রত্যুত্তরেই করা হচ্ছে. এই দলিলে, যাতে একবারের জন্যও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাম করা হয় নি, তাতে নির্দেশ করা হয়েছে যে, “বেআইনি ভাবে নজরদারি করা ব্যক্তি জীবনের অধিকার হনন করে ও মত দানের স্বাধীনতাতেও হস্তক্ষেপ করে, আর তারই সঙ্গে গণতান্ত্রিক সমাজের ভিত্তিতেই আঘাত করতে সক্ষম”.