এ সম্বন্ধে বুধবার জানিয়েছেন রাশিয়ার ফেডারেল সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতা বিভাগের প্রধান আলেক্সান্দর ফমিন. তাঁর কথায়, অনুমান করা হচ্ছে যে, এ সমারোহের উপলক্ষ্য হবে সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতা সংক্রান্ত রুশ-ভারত আন্তঃসরকারী কমিশনের বৈঠক, যা নভেম্বরের মাঝামাঝি দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হবে. প্রযুক্তিগত সমস্যার জন্য জাহাজ হস্তান্তর করার সময় বদলানো হয়েছিল, তবে ভারতীয় শরিকরা তা উপলব্ধি করেছেন, উল্লেখ করেন ফমিন. এখন বিমানবাহী জাহাজের প্রযুক্তিগত অবস্থা সম্বন্ধে কোনো অভিযোগ নেই, জোর দিয়ে বলেন তিনি. জাহাজ প্রয়োজনীয় সমস্ত পরীক্ষা সফলভাবে অতিক্রম করেছে. ভারতের সাথে “সোভিয়েত ইউনিয়নের নৌবাহিনীর অ্যাডমিরাল গর্শকোভ” নামে ভারী বিমানবাহী ক্রুজারের আধুনিকীকরণের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছেল ২০০৪ সালে. প্রথমে বিমানবাহী জাহাজ ফরমাশদাতাকে হস্তান্তর করার কথা ছিল ২০০৮ সালে, কিন্তু কাজের পরিমাণ বৃদ্ধির জন্য তার মেয়াদ প্রলম্বন করা হয়.