বিশেষ করে, পক্ষদ্বয় বিজ্ঞান ও প্রকৌশলের ক্ষেত্রে, এবং তাছাড়াবায়োটেকনোলজির ক্ষেত্রে সহযোগিতার কর্মসূচি স্বাক্ষর করেছে. রাশিয়া ও ভারত রকেট ও নৌবাহিনীর ক্ষেত্রে প্রকৌশল এবং অস্ত্র ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সহযোগিতা প্রসার সম্পর্কে সমঝোতায় এসেছে. রাশিয়া সংস্কার সাধন করা রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে স্থায়ী সদস্য হিসেবে ভারতের প্রার্থী পদ চূড়ান্তভাবে সমর্থন করছে. শীর্ষ সাক্ষাতের সময় রাশিয়া তাছাড়া সমর্থন করেছে সাংহাই সহযোগিতা সংস্থায় ভারতের পূর্ণ-পরিসরের সদস্য হওয়ার অভিপ্রায়. দু দেশের নেতারা সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে প্রচেষ্টা ঐক্যবদ্ধ করার অভিপ্রায়ের কথা ঘোষণা করেন. মিলিত ঘোষণাপত্রে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং তাছাড়া “আরও প্রতিনিধিত্বমূলক এবং বিধিসঙ্গত আন্তর্জাতিক আর্থিক স্থাপত্য” গঠনের পক্ষে মত প্রকাশ করেছেন. পক্ষদ্বয় সম্মত হয় যে, “এ উপলক্ষে সর্বপ্রথম কর্তব্য হল আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলে পুঁজির কোটা বন্টনের পুনর্বিবেচনা শেষ করা, যা শেষ হওয়া উচিত্ ২০১৪ সালের জানুয়ারীর মধ্যে”, বলা হয়েছে ঘোষণাপত্রে.