এ সম্বন্ধে তিনি বলেছেন সোমবার মস্কো সফরের সময় মস্কোর রাষ্ট্রীয় আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ইনস্টিটিউটের ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে সাক্ষাতে. ভারতের নেতা তাছাড়া বলেন যে, সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস সম্বন্ধে রুশ-মার্কিন সমঝোতা দিল্লি সমর্থন করে. মনমোহন সিং তাছাড়া রুশ-ভারত সহযোগিতার পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তির মতো গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রের কথাও বলেন. তিনি ছাত্রদের বলেন যে, রাশিয়ার সাথে সহযোগিতায় ভারতের দক্ষিণাঞ্চলে নির্মীয়মাণ “কুদানকুলাম” পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রের দ্বিতীয় ব্লক কাজ করতে শুরু করবে আগামী বছরের গোড়ার দিকে. তাঁর কথায়, প্রথম ব্লক চালু করা হবে নভেম্বরে. তাঁর কথায়, দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা সামরিক-প্রযুক্তিগত ক্ষেত্রেও সফলভাবে বিকশিত হচ্ছে. দৃষ্টান্ত হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন রাশিয়ার বিমানবাহী ক্রুজার “অ্যাডমিরাল গর্শকোভ” জাহাজটিকে আধুনিকীকরণ করা “বিক্রমাদিত্য” বিমানবাহী জাহাজের কথা এবং মিলিতভাবে পঞ্চম প্রজন্মের ফাইটার বিমান তৈরীর কথা. তিনি বলেন যে, রাশিয়ার মতো পৃথিবীর আর কোনো রাষ্ট্রের সাথে ভারতের এত উচ্চ মাত্রার আস্থা নেই.