উড়িষ্যা প্রদেশে বন্যার ফলে নিহত আরও কয়েকজনের দেহ উদ্ধার-কর্মীরা গত রাতে খুঁজে পেয়েছে. উড়িষ্যায় বন্যার পরে জলের মান বর্তমানে কমছে, প্রাদেশিক কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে পুনর্স্থাপনের কাজের প্রস্তুতি শুরু করেছে. সামনের ছুটির দিনগুলিতে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য প্রায় ৫০০ শিবির খোলার কথা. প্রাথমিক হিসেব অনুযায়ী, এই “ফাইলিন” ঝড় এক কোটিরও বেশি লোকের জীবনকে প্রভাবিত করেছে. জানানো হয়েছিল যে, প্রায় ৫ লক্ষ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং প্রায় ৩ লক্ষ বাড়ি ধ্বংস হয়েছে. সরকার দেশের ইতিহাসে বৃহত্তম উদ্ধার অভিযান চালিয়েছে, যার কল্যাণে বহু সংখ্যক লোকের হতাহত হওয়া এড়ানো গিয়েছে. যেমন, কয়েক দিনের মধ্যে উড়িষ্যা ও অন্ধ্র প্রদেশের উপকূলবর্তী এলাকা থেকে মোট ৯ লক্ষ লোককে, অর্থাত্ উপকূলবর্তী এলাকার প্রায় ৯৫ শতাংশ বাসিন্দাকে অপসারণ করা সম্ভব হয়েছে.