আরটি টেলিচ্যানেলকে তিনি এই কথা বলেছেন. তিনি আরও বলেছেন – “যারা এবারে অংশ নেবে না, তারাও পরবর্তী পর্যায়গুলোতে যোগ দিতে পারে”. আলি হায়দার এও মনে করেন, যে যোগদানকারী রাষ্ট্রদের তালিকায় ইরানও থাকবে.

মে মাসেই দ্বিতীয় ‘জেনেভা’র আয়োজন করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ ও আমেরিকার বিদেশ সচিব জন কেরি. হায়দার উল্লেখ করেছেন, যে সিরিয়ায় শুরু হওয়া রাজনৈতিক প্রক্রিয়া এগিয়ে যেতে পারে, তাতে সব বিরোধী গোষ্ঠী যোগ না দিলেও.