এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাইটে মঙ্গলবার বসানো খবরে. “হিউম্যান রাইটস ওয়াচ” গত সপ্তাহে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, যাতে বলা হয়েছে যে, ৪ঠা আগস্ট লাতাকিয়া প্রদেশে জঙ্গীদের দ্বারা পরিচালিত অভিযানে অংশগ্রহণ করেছিল পাঁচটি দলের সদস্য, সেই সঙ্গে “আল-কাইদার” সাথে জড়িত দলও, আর অভিযানের জন্য অর্থ যুগিয়েছিল পারস্য উপসাগরের দেশগুলির ব্যক্তিগত “পৃষ্ঠপোষকরা”. জঙ্গীদের লক্ষ্যস্থল ছিল সেই সব বসতি-কেন্দ্র, যেখানে একত্রে বাস করে আলাউইটরা, যারা সিরিয়ার কর্তৃপক্ষের অনুগত. জঙ্গী গুণ্ডাদের হাতে নিহত হয়েছিল ১৯০ জন শান্তিপ্রিয় অধিবাসী, আরও ২০০ জনকে বন্দী করে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল.