এ সাক্ষাতের ফলাফল সম্বন্ধে সাংবাদিকদের বলেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির প্রেস-সেক্রেটারি দমিত্রি পেস্কোভ. সিরিয়ায় মীমাংসায় রাশিয়ার এবং ব্যক্তিগতভাবে রাষ্ট্রপতি পুতিনের প্রচেষ্টার অতি উচ্চ মূল্যায়ন করেছেন, বলেন পেস্কোভ. নিজের তরফ থেকে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি সিরিয়ার প্রশ্নে ইন্দোনেশিয়ার স্পষ্ট ও সুনির্দিষ্ট স্থিতির কথা উল্লেখ করেন. তাছাড়া, পুতিন অন্যান্য দেশের কথাও উল্লেখ করেন, যা তাঁরা প্রকাশ করেন সাঙ্কত-পিতারবুর্গে“জি-২০” শীর্ষ বৈঠকে, যা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে সেই প্রচেষ্টায়, যা এখন আমাদের রয়েছে, যোগ করে বলেন প্রেস-সেক্রেটারি. পেসেকোভ বলেন, “রাশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার পক্ষ এ বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে যেক্রমেই বেশি সংখ্যক দেশ, সেই সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বুঝেছে যে. সিরিয়ার সমস্যা মীমাংসা করা যেতে পারে শান্তিপূর্ণ উপায়ে”.